পিটার ফিঞ্চ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পিটার ফিঞ্চ
Peter Finch 2.jpg
১৯৫৫ সালে প্যাসেজ হোম ছবিতে ফিঞ্চ
স্থানীয় নাম
Peter Finch
জন্ম
ফ্রেডেরিক জর্জ পিটার ইঙ্গল ফিঞ্চ

(১৯১৬-০৯-২৮)২৮ সেপ্টেম্বর ১৯১৬
মৃত্যু১৪ জানুয়ারি ১৯৭৭(1977-01-14) (বয়স ৬০)
মৃত্যুর কারণহার্ট অ্যাটাক
সমাধিহলিউড ফরেভার সিমেট্রি
পেশাঅভিনেতা
কার্যকাল১৯৩৪–১৯৭৭
দাম্পত্য সঙ্গীতামারা চিনারোভা (বি. ১৯৪৩–১৯৫৯)
ইয়োল্যান্ড টার্নার (বি. ১৯৫৯–১৯৬৫)
এলেথা ব্যারেট (বি. ১৯৭৩–১৯৭৭)
সন্তান৪ সন্তান
পুরস্কারপূর্ণ তালিকা

ফ্রেডেরিক জর্জ পিটার ইঙ্গল ফিঞ্চ (ইংরেজি: Frederick George Peter Ingle Finch; ২৮শে সেপ্টেম্বর ১৯১৬ - ১৪ই জানুয়ারি ১৯৭৭) ছিলেন একজন ইংরেজ-অস্ট্রেলীয় অভিনেতা।[১][২] তিনি নেটওয়ার্ক (১৯৭৬) চলচ্চিত্রে টেলিভিশন উপস্থাপক হাওয়ার্ড বিল চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রসিদ্ধ। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি মরণোত্তর শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন এবং তার পঞ্চম শ্রেষ্ঠ প্রধান চরিত্রে অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার এবং শ্রেষ্ঠ নাট্য চলচ্চিত্র অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন। তিনি অভিনয়ের জন্য একাডেমি পুরস্কার প্রাপ্ত দুইজনের মধ্যে প্রথম এবং কাকতালীয়ভাবে দুজনেই অস্ট্রেলীয় অভিনেতা, অপর জন হলেন হিথ লেজার

জীবনী[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ফিঞ্চ ইংল্যান্ডের লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। তার পূর্ণ নাম ফ্রেডেরিক জর্জ পিটার ইঙ্গল ফিঞ্চ[৩] তার মাতার নাম আলিসিয়া গ্লাডিস ফিশার। ফিঞ্চের জন্মের সময় তার স্বামী ছিলেন জর্জ ফিঞ্চ[২][৪][৫] জর্জ ফিঞ্চ অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসে জন্মগ্রহণ করেন এবং প্যারিস ও জুরিখে শিক্ষা গ্রহণ করেন। তিনি ১৯১২ সালে যখন যুক্তরাজ্যে আসেন তখন একজন গবেষক রসায়নবিদ ছিলেন এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধে রয়েল আর্মি অর্ডান্যান্স ডিপো ও রয়েল ফিল্ড আর্টিলারিতে দায়িত্ব পালন করেন।[৬] ১৯১৫ সালে তিনি হ্যাম্পশায়ারের পোর্টসমাউথে আলিসিয়া ফিশারকে বিয়ে করেন।[৪] পিটার ফিঞ্চ জর্জ ফিঞ্চের ঔরসজাত সন্তান নন। পিটার পরবর্তীতে জানতে পারেন যে তার পিতা ছিলেন ওয়েন্টওর্থ এডওয়ার্ড ডালাস "জক" ক্যাম্পবেল। তিনি একজন ভারতীয় সেনা কর্মকর্তা ছিলেন। তার সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কারণে পিটারের যখন দুই বছর বয়স, তখন তার মা ও জর্জ ফিঞ্চের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।[২] আলিসিয়া ১৯২২ সালে জক ক্যাম্পবেলকে বিয়ে করেন।[৪]

ব্রিটিশ চলচ্চিত্র কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ফিঞ্চ যুক্তরাজ্যে আসার পর লরন্স অলিভিয়ে তার উপদেষ্টা ছিলেন এবং তার অধীনে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তিতে আবদ্ধ হন। তার প্রথম সুযোগ আসে ওল্ড ভিসে জেমস ব্রিডির নাটক ড্যাফনি লরেওলাতে। এই নাটকটি সমালোচনামূলক ও বাণিজ্যিক সফলতা অর্জন করে এবং ফিঞ্চ লন্ডনে প্রতিষ্ঠা অর্জন করেন।[৭] তিনি পরবর্তীতে তার প্রথম ব্রিটিশ চলচ্চিত্র ট্রেন অফ ইভেন্টস (১৯৪৯) এ খুনি অভিনেতা ভূমিকায় অভিনয় করেন। লন্ডন অবজার্ভারের সমালোচক সি. এ. লেজেউন তার অভিনয়ের প্রশংসা করেন।[৮] দ্য স্কটসম্যান লিখে, "তাকে ব্রিটিশ পর্দার জন্য অন্যতম আশাবাদী নিয়োগ বলে অভিহিত করা যায়।"[৯]

পরের বছর দ্য উডেন হর্স চলচ্চিত্রে তিনি একজন অস্ট্রেলীয় কয়েদী চরিত্রে অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রটি ১৯৫০ সালের তৃতীয় জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ছিল। একই বছর তিনি ১৯৪২ সালের মিসেস মিনিভার চলচ্চিত্রের অনুবর্তী পর্ব দ্য মিনিভার স্টোরি চলচ্চিত্রে পোলীয় সেনা চরিত্রে অভিনয় করেন। পূর্ববর্তী চলচ্চিত্রের মত এই চলচ্চিত্রটি নেতিবাচক সমালোচনা অর্জন করে।[১০][১১] এই সময়ে ফিঞ্চ অলিভিয়ের চুক্তির অধীনে বেশ কিছু মঞ্চনাটকে কাজ করেন। অলিভিয়ের পরিবারের সাথে তার ঘনিষ্ঠতার ফলে অলিভিয়ের সুন্দরী কিন্তু অস্থিরমতি স্ত্রী ভিভিয়েন লেইয়ের সাথে তিনি সম্পর্কে জড়ান। তাদের এই সম্পর্কের সূত্রপাত হয় ১৯৪৮ সালে এবং কয়েক বছর এই সম্পর্ক চলতে থাকে, কিন্তু অবশেষে লেইয়ের মানসিক অবস্থা খারাপের দিকে যেতে থাকলে তারা আলাদা হয়ে যান।[১২]

ফিঞ্চ ১৯৫১ সালে ওথেলো নাটকে ইয়াগো চরিত্রে অভিনয় করেন, যাতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন অরসন ওয়েলস[১৩] ১৯৫২ সালে তিনি স্যামুয়েল টেলর রচিত হাস্যরসাত্মক দ্য হ্যাপি টাইম নাটকে অভিনয় করেন। লরন্স অলিভিয়ে ও গিলবার্ট মিলারের নির্দেশনায় নাটকটি লন্ডনের কিং স্ট্রিটের সেন্ট জেমসেস থিয়েটারে মঞ্চস্থ হয়। ফিঞ্চ এতে পাপা ভূমিকায় অভিনয় করেন।[১৪] মঞ্চে অভিজ্ঞতা থাকা সত্ত্বেও তার গুরু অলিভিয়ের মত তারও মঞ্চ ভীতি ছিল[১২] এবং ১৯৫০ এর দশকের বাকি সময়ে তিনি চলচ্চিত্রেই বেশি কাজ করতে থাকেন।

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

বছর বিভাগ চলচ্চিত্র ফলাফল সূত্র
১৯৫৬ শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার আ টাউন লাইক অ্যালিস বিজয়ী
১৯৫৭ শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার উইনডম্‌স ওয়ে মনোনীত
১৯৫৯ শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার দ্য নান্‌স স্টোরি মনোনীত
১৯৬০ শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার দ্য ট্রায়াল্‌স অফ অস্কার ওয়াইল্ড বিজয়ী
১৯৬১ শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার নো লাভ ফর জনি বিজয়ী
১৯৭১ শ্রেষ্ঠ প্রধান চরিত্রে অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার সানডে ব্লাডি সানডে বিজয়ী
শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার সানডে ব্লাডি সানডে মনোনীত [১৫]
গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার (সেরা অভিনেতা - নাট্য চলচ্চিত্র) সানডে ব্লাডি সানডে মনোনীত [১৬]
১৯৭৬ শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার নেটওয়ার্ক বিজয়ী [১৭]
শ্রেষ্ঠ প্রধান চরিত্রে অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কার নেটওয়ার্ক বিজয়ী
গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার (সেরা অভিনেতা - নাট্য চলচ্চিত্র) নেটওয়ার্ক বিজয়ী [১৮]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Obituary ভ্যারাইটি, 19 January 1977, p. 94.
  2. "Finch, Frederick George Peter Ingle (1916–1977)"Australian Dictionary of Biography Online Edition। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Index entry"ফ্রিবিএমডি (ইংরেজি ভাষায়)। ONS। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  4. Faulkner (1979)
  5. "Peter Finch"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  6. The Times, 24 November 1970, p. 14 (Obituary – George Ingle Finch)
  7. "Finch, In Films, Plays A Zestful Strangler"দ্য সিডনি হেরাল্ড। Sydney। ১০ এপ্রিল ১৯৪৯। পৃষ্ঠা 8 Supplement: Magazine। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  8. "International Manners", Lejeune, C. A. The Observer [London] 21 Aug 1949: 6.
  9. "Train of Events": "Star" from Platform 13 The Scotsman [Edinburgh, Scotland] 22 Aug 1949: 6.
  10. Time magazine, 23 October 1950
  11. The Age (Melbourne), 26 February 1951
  12. Richard Brooks (৭ আগস্ট ২০০৫)। "Olivier Worn Out by Love and Lust of Vivien Leigh"দ্য সানডে টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। timesonline.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  13. Production Information on Othello at Wellsnet
  14. From an original theatre programme, printer's date 30 January 1952.
  15. "The 44th Academy Awards - 1972"অস্কার। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  16. "Winners & Nominees 1972"গোল্ডেন গ্লোব। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  17. "The 49th Academy Awards - 1977"অস্কার। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  18. "Winners & Nominees 1977"গোল্ডেন গ্লোব। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]