জো পেশি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জো পেশি
JoePesci-2009.jpg
২০০৯ সালে পেশি
স্থানীয় নাম
Joe Pesci
জন্ম
জোসেফ ফ্রাঙ্ক পেশি

(1943-02-09) ৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৩ (বয়স ৭৬)
বাসস্থানলাভালেত, নিউ জার্সি
পেশাঅভিনেতা, কৌতুকাভিনেতা, গায়ক
কার্যকাল১৯৬১-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীক্লাউদিয়া হারো
(বি. ১৯৮৮; বিচ্ছেদ. ১৯৯২)
সঙ্গীঅ্যাঞ্জি এভারহার্ট (২০০০-২০০৮)
সন্তান

জোসেফ ফ্রাঙ্ক পেশি (ইংরেজি: Joseph Frank Pesci; জন্ম: ৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৩)[১] হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা, কৌতুকাভিনেতা ও গায়ক। তিনি মাই কাজিন ভিনি (১৯৯২)-এ ভিনসেন্ত গাম্বিনি; হোম অ্যালোনহোম অ্যালোন টু: লস্ট ইন নিউ ইয়র্ক-এ হ্যারি লাইম;[২] লিদাল উইপন চলচ্চিত্র ধারাবাহিকে লিও গেট্‌জ; এবং রবার্ট ডি নিরোর সাথে মার্টিন স্কোরসেজির রেজিং বুল (১৯৮০), গুডফেলাস (১৯৯০), ও ক্যাসিনো (১৯৯৫) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেন। তিনি রেজিং বুল চলচ্চিত্রে জোই লামোত্তা চরিত্রে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং গুডফেলাস চলচ্চিত্রে গ্যাংস্টার টমি ডিভিটো চরিত্রে অভিনয় করে এই পুরস্কার অর্জন করেন।

কৌতুকাভিনেতা হিসেবে পেশি একাধিক বৃহৎ নির্মাণ ব্যয়ের চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, তন্মধ্যে রয়েছে ইজি মানি (১৯৮৩), ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন আমেরিকা (১৯৮৪), মুনওয়াকার (১৯৮৮), জেএফকে (১৯৯১) এবং আ ব্রনক্স টেল (১৯৯৩)। তিনি ১৯৯৯ সালে অভিনয় থেকে অবসরের ঘোষণা দেন এবং এরপর থেকে অল্প কয়েকটি চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন, তন্মধ্যে রয়েছে ২০০৬ সালে রবার্ট ডি নিরো পরিচালিত গোয়েন্দা থ্রিলার দ্য গুড শেপার্ড-এ ক্ষণিক চরিত্রাভিনয়, এবং জীবনীমূলক অপরাধধর্মী দ্য আইরিশম্যান। এছাড়া তিনি ভিনসেন্ট লাগার্দিয়া গাম্বিনি সিংস জাস্ট ফর ইউ অ্যালবাম প্রকাশ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৯ সালে পেশি মার্টিন স্কোরসেজিরবার্ট ডি নিরোর নিকট থেকে ফোন কল পান। তারা দ্য ডেথ কালেকটর ছবিতে তার কাজে মুগ্ধ হয়ে তাকে রেজিং বুল (১৯৮০) ছবিতে জোই লামোত্তা চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দেন। পেশি এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রধান চরিত্রে সেরা নবাগত হিসেবে বাফটা পুরস্কার অর্জন করেন এবং শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। পরবর্তী কালে পেশি ডিয়ার মিস্টার ওয়ান্ডারফুল (১৯৮২), ইজি মানি (১৯৮৩) ও ইউরেকা (১৯৮৩) ছবিতে অভিনয় করেন।

১৯৮৪ সালে তিনি ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন আমেরিকা ছবিতে পুনরায় ডি নিরোর সাথে অভিনয় করেন। পরের বছর স্বল্পদৈর্ঘ্য হাস্যরসাত্মক টিভি ধারাবাহিক হাফ নেলসন-এ গোয়েন্দা রকি নেলসন চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৮৮ সালে পেশি মাইকেল জ্যাকসনের গান নিয়ে নির্মিত সঙ্গীতধর্মী অমনিবাস চলচ্চিত্র মুনওয়াকার (১৯৮৮)-এর ষষ্ঠ ও দীর্ঘতম খন্ড "স্মুদ ক্রিমিনাল"-এ অভিনয় করেন।

তিনি গুডফেলাস (১৯৯০) চলচ্চিত্র দিয়ে পুনরায় স্কোরসেজি ও ডি নিরোর সাথে কাজ করেন। এতে তিনি গ্যাংস্টার টমি ডিভিটোর ভূমিকায় অভিনয় করেন। ছবিটিতে তার পুরনো বন্ধু ফ্রাঙ্ক ভিনসেন্টও অভিনয় করেন, পেশির চরিত্র ভিনসেন্টের চরিত্রটিকে খুন করেন যা চলচ্চিত্রের সবচেয়ে স্মরণীয় একটি দৃশ্য, ভিনসেন্টের চরিত্রটি তাকে বলে, "বাড়ি যাও এবং তোমার জুতা পালিশ করার বাক্সের খোঁজ কর।" পেশি তার অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার অর্জন করেন এবং তার পুরস্কার গ্রহণকালে অস্কারের ইতিহাসের সবচেয়ে কম সময় স্থায়ী বক্তব্য প্রদান করেন, তিনি পুরস্কারের মঞ্চে উঠে বলেন, "এটা আমার জন্য গর্বের, ধন্যবাদ" এবং মঞ্চ ছেড়ে আসেন।[৩]

তিনি লিদাল উইপন চলচ্চিত্র ধারাবাহিকে ১৯৮৯, ১৯৯২ ও ১৯৯৮ সালে মেল গিবসনড্যানি গ্লোভারের সাথে লিও গেট্‌জ চরিত্রে অভিনয় করেন। তিনি ব্লকবাস্টার ক্রিসমাস চলচ্চিত্র হোম অ্যালোন (১৯৯০) ও এর অনুবর্তী পর্ব হোম অ্যালোন টু: লস্ট ইন নিউ ইয়র্ক (১৯৯২)-এ হ্যারি লাইম চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯১ সালে তিনি জেএফকে ছবিতে ডেভিড ফেরি এবং ১৯৯২ সালে তিনি মাই কাজিন ভিনি ছবিতে রাফ মাচিহো, মারিসা টোমে, ও ফ্রেড গুইনের সাথে নাম ভূমিকা ভিনসেন্ত চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯২ সালে দ্য পাবলিক আই ছবিতে আলোকচিত্রী লিও বার্নজি বার্নস্টাইন চরিত্রে তার অভিনয় সমাদৃত হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Joe Pesci | Biography & Facts"এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  2. ক্রেপস, ড্যানিয়েল (২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯)। "See Joe Pesci Make Rare Screen Appearance in Google's 'Home Alone' Ad"রোলিং স্টোন (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  3. "10 Oscar Winners Whose Speeches Were Under 11 Words"মেন্টাল ফ্লস। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]