বেন জনসন (অভিনেতা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
বেন জনসন
Ben Johnson The Wild Bunch publicity photo.JPG
১৯৬৯ সালে একটি প্রচারণামূলক ছবিতে জনসন
স্থানীয় নাম Ben Johnson
জন্ম (১৯১৮-০৬-১৩)১৩ জুন ১৯১৮
ফোরেকার, ওকলাহোমা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যু ৮ এপ্রিল ১৯৯৬(১৯৯৬-০৪-০৮) (৭৭ বছর)
মেসা, অ্যারিজোনা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক
জাতীয়তা মার্কিন
পেশা অভিনেতা
কার্যকাল ১৯৩৯-১৯৯৬
দাম্পত্য সঙ্গী ক্যারল এলাইন জোন্স (বি. ১৯৪১; মৃ. ১৯৯৪)

বেন "সন" জনসন জুনিয়র (ইংরেজি: Ben "Son" Johnson, Jr.; ১৩ই জুন ১৯১৮ - ৮ই এপ্রিল ১৯৯৬) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেতা, স্টান্টম্যান ও রোডিও কাউবয়। গবাদিপশুর খামারের মালিক পিতার পুত্র জনসন হাওয়ার্ড হিউজ পরিচালিত দি আউট'ল (১৯৪৩) চলচ্চিত্রের জন্য ঘোড়া দিতে হলিউডে আসেন। তিনি এই চলচ্চিত্রে প্রথম স্টান্টম্যান হিসেবে কাজ করেন এবং পরের কয়েক বছর বিভিন্ন চলচ্চিত্রে স্টান্টম্যান হিসেবে কাজ চালিয়ে যান। স্টান্ট হিসেবে কাজ করতে গিয়ে তিনি পরিচালক জন ফোর্ডের নজরে আসেন এবং দীর্ঘদেহী জনসন তার ঘোড়া চালনার পারদর্শিতার জন্য পরবর্তীতে বেশ কিছু পশ্চিমা ধাঁচের চলচ্চিত্রে কাজের সুযোগ পান। ১৯৭১ সালে নাট্যধর্মী দ্য লাস্ট পিকচার শো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারবাফটা পুরস্কার জয় করেন।

প্রারম্ভিক জীবন ও বিবাহ[সম্পাদনা]

জনসন ১৯১৮ সালের ১৩ই জুন ওকলাহোমার ফোরেকারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা বেন জনসন সিনিয়র (১৮৯৬-১৯৫২) ছিলেন একজন গবাদিপশুর খামারের মালিক ও ওসেজ কাউন্টির রোডিও চ্যাম্পিয়ন এবং তার মাতা ওলি সুজান জনসন (জন্ম: ওয়ার্কমন; ১৮৯৯-২০০০)। জনসন শৈশবেই রোডিও ও ঘোড়া চালনায় আগ্রহী হয়ে ওঠেন।

জনসন ১৯৪১ সালে ক্যারল এলাইন জোন্সকে বিয়ে করেন। জোন্স হলিউডের ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা ক্লেরেন্স "ফ্যাট" জোন্সের কন্যা। জনসন-জোন্স দম্পতির কোন সন্তান ছিল না।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

বেন জনসনের প্রথম চলচ্চিত্র দি আউট'ল (১৯৪৩)। হাওয়ার্ড হিউজ পরিচালিত এই চলচ্চিত্রের জন্য তিনি ওকলাহোমা থেকে অ্যারিজোনায় ঘোড়া নিয়ে আসেন এবং পরে তা হলিউডে নিয়ে যান। এই চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম স্টান্টম্যান হিসেবে কাজ করেন।

১৯৫৩ সালে তিনি পেশাদার রোডিও কাউবয়েজ সংঘের একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে উচ্চ পারশ্রমিকের একটি চলচ্চিত্র থেকে বিরতি নেন এবং টিম রোপিং বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হন।

তিনি জন ওয়েন পরিচালিত দি আনডিফিটেড (১৯৬৯) চলচ্চিত্রে রক হাডসনের সাথে অভিনয় করেন এবং অ্যান্ড্রু ভি ম্যাকলাগলেন পরিচালিত চিসাম (১৯৭০) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৭১ সালে পিটার বোগডানভিচ পরিচালিত নাট্যধর্মী দ্য লাস্ট পিকচার শো চলচ্চিত্রে স্যাম দ্য লায়ন চরিত্রে তার অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারবাফটা পুরস্কার অর্জন করেন।

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

১৯৭৩ সালে প্রোরোডিও হল অব ফেমে তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[২] ২০০৩ সালে টেক্সাস ট্রেইল অব ফেমে তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. জেনসেন, রিচার্ড ডি. (২০১০)। The Nicest Fella - the Life of Ben Johnson: The World Champion Rodeo Cowboy who Became an Oscar-winning Movie Star। আইইউনিভার্স। আইএসবিএন 9781440196782 
  2. "Ben Johnson"প্রোরোডিও হল অব ফেম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৮ 
  3. "Ben Johnson"টেক্সাস ট্রেইল অব ফেম (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ জুন ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]