রেক্স হ্যারিসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
স্যার
রেক্স হ্যারিসন
Rex Harrison Allan Warren.jpg
১৯৭৬ সালে অ্যালান ওয়ারেনের আলোকচিত্রে হ্যারিসন
স্থানীয় নাম Rex Harrison
জন্ম রেজিনাল্ড কেরি হ্যারিসন
(১৯০৮-০৩-০৫) ৫ মার্চ ১৯০৮ (বয়স ১১০)
হুইটন, ল্যাঙ্কাশায়ার, ইংল্যান্ড
মৃত্যু ২ জুন ১৯৯০(১৯৯০-০৬-০২) (৮২ বছর)
ম্যানহাটন, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণ প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সার
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান লিভারপুল কলেজ
পেশা অভিনেতা
কার্যকাল ১৯৩০-১৯৮৯
দাম্পত্য সঙ্গী কোলেট থমাস (বি. ১৯৩৪; তালাক. ১৯৪২)
লিলি পালমার (বি. ১৯৪৩; তালাক. ১৯৫৭)
কে কেন্ডাল (বি. ১৯৫৭; কে'র মৃত্যু ১৯৫৯)
র‍্যাচেল রবার্টস (বি. ১৯৬২; তালাক. ১৯৭১)
এলিজাবেথ রিজ-উইলিয়ামস (বি. ১৯৭১; তালাক. ১৯৭৫)
মার্সিয়া টিঙ্কার (বি. ১৯৭৯; তার মৃত্যু ১৯৯০)
সন্তান নোয়েল হ্যারিসন (পুত্র)
কেরি হ্যারিসন (পুত্র)
আত্মীয় ক্যাথরিন হ্যারিসন (নাতনী)
পুরস্কার পূর্ণ তালিকা

রেক্স হ্যারিসন নামে পরিচিত স্যার রেজিনাল্ড কেরি হ্যারিসন (ইংরেজি: Reginald Carey Harrison; ৫ই মার্চ ১৯০৮ - ২রা জুন ১৯৯০) ছিলেন একজন ইংরেজ অভিনেতা। তিনি ১৯২৪ সালে মঞ্চে কাজ করার মাধ্যমে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে রয়্যাল এয়ার ফোর্সে দায়িত্ব পালন করেন এবং ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট পদ অধিকার করেন। ১৯৪৯ সালে অ্যান অব দ্য থাউজেন্ট ডেজ মঞ্চনাটকে অষ্টম হেনরি ভূমিকায় অভিনয় করে তাঁর প্রথম টনি পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৫৭ সালে মাই ফেয়ার লেডি মঞ্চনাটকে প্রফেসর হেনরি হিগিনস চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তাঁর দ্বিতীয় টনি পুরস্কার অর্জন করেন। ১৯৬৪ সালে তিনি একই নামের চলচ্চিত্রে একই চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

হ্যারিসনের চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ১৯৩০ সালে দ্য গ্রেট গেম দিয়ে। চলচ্চিত্র জীবনের শুরুর দিকে তাঁর অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল দ্য সিটাডেল (১৯৩৮), নাইট ট্রেইন টু মিউনিখ (১৯৪০), মেজর বারবারা (১৯৪১), ব্লিথ স্পিরিট (১৯৪৫), আন্না অ্যান্ড দ্য কিং অব সিয়াম (১৯৪৬), দ্য ঘোস্ট অ্যান্ড মিসেস মুইর (১৯৪৭) এবং দ্য ফক্সেস অব হ্যারো (১৯৪৯)। ১৯৪৯ সালে অ্যান অব দ্য থাউজেন্ট ডেজ মঞ্চনাটকে অষ্টম হেনরি ভূমিকায় অভিনয় করে তার প্রথম টনি পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৫৭ সালে মাই ফেয়ার লেডি মঞ্চনাটকে প্রফেসর হেনরি হিগিনস চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তার দ্বিতীয় টনি পুরস্কার অর্জন করেন। ১৯৬৪ সালে তিনি এই মঞ্চনাটক অবলম্বনে নির্মিত একই নামের চলচ্চিত্রে একই চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন।[১][২]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

১৯৮৯ সালের ২৫ জুলাই রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ বাকিংহাম প্রাসাদে তাঁকে নাইট উপাধিতে ভূষিত করেন। হলিউড ওয়াক অব ফেমে তাঁর নামাঙ্কিত দুটি তারকা রয়েছে; একটি চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য ৬৯০৬ হলিউড বলেভার্ডে ও অপরটি টেলিভিশনে অবদানের জন্য ৬৩০৮ হলিউড বলেভার্ডে অবস্থিত। হ্যারিসন ১৯৭৯ সালে আমেরিকান থিয়েটার হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত হন।[৩]

এছাড়া তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য দুটি একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে একটি পুরস্কার ও চারটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে একটি পুরস্কার লাভ করেন, এবং মঞ্চে অভিনয়ের জন্য তিনটি টনি পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে একটি পুরস্কার ও দুটি ড্রামা ডেস্ক পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে একটি পুরস্কার অর্জন করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The 37th Academy Awards - 1965"অস্কার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৮ 
  2. "Winners & Nominees 1965"গোল্ডেন গ্লোব (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৮ 
  3. জনস্টন, লরি (১৯ নভেম্বর ১৯৭৯)। "Theater Hall of Fame Enshrines 51 Artists; Great Things and Blank Walls"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]