লিলুয়া রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লিলুয়া রেলওয়ে স্টেশন
কলকাতা শহরতলি রেল স্টেশন
অবস্থানবেলুড় রোড, লিলুয়া, জেলা: হাওড়া, পশ্চিমবঙ্গ
 ভারত
স্থানাঙ্ক২২°৩৭′১৬″ উত্তর ৮৮°২০′২১″ পূর্ব / ২২.৬২১১° উত্তর ৮৮.৩৩৯২° পূর্ব / 22.6211; 88.3392স্থানাঙ্ক: ২২°৩৭′১৬″ উত্তর ৮৮°২০′২১″ পূর্ব / ২২.৬২১১° উত্তর ৮৮.৩৩৯২° পূর্ব / 22.6211; 88.3392
উচ্চতা১০ মিটার (৩৩ ফু)
মালিকানাধীনভারতীয় রেল
পরিচালিতপূর্ব রেল
লাইন (সমূহ)হাওড়া-বর্ধমান মেইন লাইন
হাওড়া-বর্ধমান কর্ড
প্ল্যাটফর্ম
নির্মাণ
গঠনের ধরণআদর্শ (ভূপিষ্ঠ স্টেশন)
পার্কিংসীমিত
সাইকেলের সুবিধাহ্যাঁ
অন্য তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
স্টেশন কোডএলএলএইচ (LLH)
জোন(সমূহ) পূর্ব রেল
বিভাগ(সমূহ) হাওড়া
ইতিহাস
চালু?
বৈদ্যুতীকরণ১৯৫৮
আগের নামইস্ট ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কোম্পানি
পরিসেবাসমূহ
পূর্ববর্তী স্টেশন   ভারতীয় রেলওয়ে   পরবর্তী স্টেশন
পূর্ব রেল
পূর্ব রেল
হাওড়া-বেলুড় মঠ লাইন
অবস্থান
লিলুয়া স্টেশন পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
লিলুয়া স্টেশন
লিলুয়া স্টেশন
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান

লিলুয়া রেলওয়ে স্টেশন হল হাওড়া-বর্ধমান মেইন লাইন এবং হাওড়া-বর্ধমান কর্ড লাইনের একটি গুরুত্ব পূর্ণ রেল স্টেশন। এই স্টেশনটি কলকাতা শহরতলি রেলওয়ে ব্যবস্থার অন্তর্গত একটি ব্যস্ত স্টেশন। এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের হাওড়া জেলায় অবস্থিত। স্টেশনটি লিলুয়া এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় রেল পরিষেবা প্রদান করে। হাওড়া জংশন রেলওয়ে স্টেশন থেকে ৫ কি.মি. দূরে স্টেশনটি অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইস্ট ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কোম্পানি ১৮৫১ সালে রাজমহল ও মিরজাপুরের মাধ্যমে দিল্লির সাথে প্রস্তাবিত সংযোগের জন্য হাওড়ার বাইরে একটি লাইন নির্মাণ শুরু করে। [১]

পূর্ব ভারতের প্রথম যাত্রী ট্রেনটি ১৮৫৪ সালের ১৫ আগস্ট হাওড়া থেকে হুগলি পর্যন্ত দৌড়ে ছিল। রেলপথটি ১৮৫৫ সালে রানিগঞ্জ পর্যন্ত প্রসারিত হয়। [১]

বৈদ্যুতীকরণ[সম্পাদনা]

হাওড়া-বর্ধমানের প্রধান লাইনের বিদ্যুৎকৌশল ১৯৫৮ সালে ২৫ কেভি এসি ওভারহেড সিস্টেম সম্পন্ন হয়। [২] হাওড়া-শরফুলী-তারকেশ্বর লাইনটি ১৯৫৭-৫৮ সালে বিদ্যুতায়িত হয়। [৩]

লোক শেড[সম্পাদনা]

লিলুয়াতে একটি ডিজেল লোক শেড আছে। [4]

লিলুয়া ওয়ার্কশপ ও কলোনি[সম্পাদনা]

লিলুয়া কর্মশালা ও কারশেড

রেলওয়ে ক্যারেজ এবং ওয়াগান ওয়ার্কশপ হাওড়ায় ইস্ট ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কোম্পানি কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯০০ সালে লিলুয়াতে বর্তমান স্থানে স্থানান্তরিত হয়। এই কর্মশালার ২,৯৯,০০০ বর্গমাইল এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে এবং ৯,৯৯০ জনের একটি কর্মী শক্তি রয়েছে এই কর্মশালায়। কর্মশালাটি মূলত কোচর পুনর্বিন্যাসে জড়িত। কর্মশালার সাথে সংযুক্ত একটি বদ্ধ টাউনশিপ আছে। "রেলওয়ে কলোনি" এলাকার রাস্তাগুলি ব্রিটিশ প্রকৌশলীদের নামকরণ করা হয় এবং তাদের স্মৃতি বহন করে থাকে। [৪][৫]

দূর্ঘটনা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "IR History Part I 1832-1869"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৩ 
  2. "IR History Part IV 1947-1970"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "History of Electrification"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  4. "Brief History of Liluah Workshp"। Eastern Railway। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  5. "Liluah Workshops"। IRFCA। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭