স্থানাঙ্ক: ২৩°৩২′৫৪″ উত্তর ৮৬°৪৩′৩৫″ পূর্ব / ২৩.৫৪৮২° উত্তর ৮৬.৭২৬৫° পূর্ব / 23.5482; 86.7265

বেরো রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বেরো
ভারতীয় রেল স্টেশন
Bero Railway.jpg
বেরো রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানবেরো, পুরুলিয়া জেলা, পশ্চিমবঙ্গ
ভারত
স্থানাঙ্ক২৩°৩২′৫৪″ উত্তর ৮৬°৪৩′৩৫″ পূর্ব / ২৩.৫৪৮২° উত্তর ৮৬.৭২৬৫° পূর্ব / 23.5482; 86.7265
উচ্চতা১৪৭ মিটার (৪৮২ ফু)
লাইনআসানসোল-টাটানগর-খড়গপুর লাইন
প্ল্যাটফর্ম2
নির্মাণ
গঠনের ধরনঅ্যাট গ্রাউন্ড
পার্কিংপাওয়া যায়
সাইকেলের সুবিধাপাওয়া যায় না
অন্য তথ্য
স্টেশন কোডBERO
অঞ্চল দক্ষিণ পূর্ব রেল
বিভাগ আর্দ্রা
ইতিহাস
চালু১৮৯১
বৈদ্যুতীকরণ১৯৫৭-৬২
আগের নামবেঙ্গল নাগপুর রেলওয়ে
অবস্থান
চুঁচুড়া পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
চুঁচুড়া
চুঁচুড়া
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান
চুঁচুড়া ভারত-এ অবস্থিত
চুঁচুড়া
চুঁচুড়া
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান

বেরো রেল স্টেশন হল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার বেরো গ্রাম ও পার্শ্ববর্তী গ্রামাঞ্চলে রেল-পরিষেবা প্রদানকারী একটি রেল স্টেশন। রামকানালী ও জয়চণ্ডী পাহাড় স্টেশনের মধ্যবর্তী রেলওয়ে স্টেশন হল 'বেরো'।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

নাগপুর ছত্তীসগঢ় রেলওয়ের মানোন্নয়নের উদ্দেশ্যে ১৮৮৭ সালে বেঙ্গল নাগপুর রেলওয়ে গঠিত হয়। এরপর এলাহাবাদকে এড়িয়ে হাওড়া থেকে মুম্বই থেকে একটি কম দূরত্বের রেলপথ স্থাপনের লক্ষ্যেবিলাসপুর হয়ে লাইনটি আসানসোল পর্যন্ত সম্প্রসারিত করা হয়। ১৮৯১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি হাওড়া দিল্লি মেন লাইনের উপর নাগপুর থেকে আসানসোল পর্যন্ত বেঙ্গল নাগপুর রেলওয়ে মেন লাইনটি পণ্য পরিবহনের জন্য খুলে দেওয়া হয়।[১]

বৈদ্যুতিকরণ[সম্পাদনা]

বেরো রেলস্টেশন

টাটানগর-আর্দ্রা-আসানসোল বিভাগের বৈদ্যুতিকরণের কাজ সমাপ্ত হয়েছিল ১৯৫৭-১৯৬২ পর্যায়ে।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Major Events in the Formation of S.E. Railway"। South Eastern Railway। ২০১৩-০৪-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০২-০৫ 
  2. Ghose, Arabinda। "Platinum Jubilee of Railway Electrification in India"। Press Information Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০২-০৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]