শেওড়াফুলি জংশন রেলওয়ে স্টেশন

স্থানাঙ্ক: ২২°৪৬′২৯″ উত্তর ৮৮°১৯′৪২″ পূর্ব / ২২.৭৭৪৮° উত্তর ৮৮.৩২৮৪° পূর্ব / 22.7748; 88.3284
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Indian Railways Suburban Railway Logo.svg
শেওড়াফুলি জংশন
কলকাতা শহরতলি রেল স্টেশন
Seorafulist1.jpg
শেওড়াফুলি জংশন রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানশেওড়াফুলি, বৈদ্যবাটি পৌরসভা, জেলা: হুগলী, পশ্চিমবঙ্গ
 ভারত
স্থানাঙ্ক২২°৪৬′২৯″ উত্তর ৮৮°১৯′৪২″ পূর্ব / ২২.৭৭৪৮° উত্তর ৮৮.৩২৮৪° পূর্ব / 22.7748; 88.3284
উচ্চতা১২ মিটার (৩৯ ফু)
মালিকানাধীনভারতীয় রেল
পরিচালিতপূর্ব রেল
লাইনহাওড়া-বর্ধমান প্রধান রেলপথ
প্ল্যাটফর্ম
নির্মাণ
গঠনের ধরনআদর্শ (ভূপৃষ্ঠ স্টেশন)
পার্কিংনা
সাইকেলের সুবিধাহ্যাঁ
অন্য তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
স্টেশন কোডSHE[১]
অঞ্চল পূর্ব রেল
বিভাগ হাওড়া
ইতিহাস
বৈদ্যুতীকরণ১৯৫৮
আগের নামইস্ট ইন্ডিয়া রেলওয়ে কোম্পানি
পরিষেবা
পূর্ববর্তী স্টেশন   ভারতীয় রেলওয়ে   পরবর্তী স্টেশন
পূর্ব রেল
পূর্ব রেল
রুটের মানচিত্র
হাওড়া-বর্ধমান প্রধান রেলপথ
কিমি
Up arrow
Up arrow
Left arrow
১৪৪
কাটোয়া
১৩৭
দাঁইহাট
LowerLeft arrow
Down arrow
১০৭
বর্ধমান
১০০
গাংপুর
৯৬
শক্তিগড়
LowerLeft arrow
৯২
পালসিট
৮৮
রসুলপুর
৮৫
নিমো
UpperRight arrow
৮২
মেমারী
৭৯
বাগিলা
৭৫
দেবীপুর
৭০
বৈঁচি
৬৮
বৈঁচিগ্রাম
৬৬
সিমলাগড়
৬১
পাণ্ডুয়া
৫৬
খন্যান
৫১
তালাণ্ডু
Up arrow
Left arrow
৪৭
মগরা
৪৩
আদিসপ্তগ্রাম
৪৫
হাজী মোঃ মহসিন হল্ট
৪৪
বাঁশবেড়িয়া
৪০
ব্যাণ্ডেল
৪৪
হুগলীঘাট
৪৫
গরিফা
৫৩
নৈহাটি
৩৮
হুগলী
৩৬
চুঁচুড়া
৩৩
চন্দননগর
৩১
মানকুণ্ডু
২৯
ভদ্রেশ্বর
ভদ্রেশ্বর ঘাট
২৫
বৈদ্যবাটি
Left arrow
২৩
শেওড়াফুলি জংশন
২০
শ্রীরামপুর
১৭
রিষড়া
১৪
কোন্নগর
১২
হিন্দ মোটর
১০
উত্তরপাড়া
বালি
UpperLeft arrow
UpperRight arrow
বেলুড়
বেলুড় মঠ
লিলুয়া
UpperLeft arrow
হাওড়া
কিমি

উৎস: ভারতীয় রেলওয়ে সময়সূচি

অবস্থান
শেওড়াফুলি জংশন পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
শেওড়াফুলি জংশন
শেওড়াফুলি জংশন
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান
শেওড়াফুলি জংশন ভারত-এ অবস্থিত
শেওড়াফুলি জংশন
শেওড়াফুলি জংশন
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান

শেওড়াফুলি জংশন রেলওয়ে স্টেশন হল হাওড়া-বর্ধমান মেইন লাইন এর একটি গুরুত্ব পূর্ণ রেলওয়ে স্টেশন। এই স্টেশনটি কলকাতা শহরতলি রেলওয়ে ব্যবস্থার অন্তর্গত একটি ব্যস্ত স্টেশন। এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের হুগলী জেলায় অবস্থিত। স্টেশনটি শেওড়াফুলি এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় রেল পরিষেবা প্রদান করে। হাওড়া জংশন রেলওয়ে স্টেশন থেকে ২২ কি.মি. দূরে স্টেশনটি অবস্থিত।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইস্ট ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কোম্পানি ১৮৫১ সালে হাওড়া থেকে রাজমহল এবং মিরজাপুরের মধ্য দিয়ে দিল্লির সাথে প্রস্তাবিত সংযোগের জন্য একটি লাইন নির্মাণ শুরু করেছিলেন। [৩]

পূর্ব ভারতের প্রথম যাত্রী ট্রেনটি ১৮৫৪ সালের ১৫ আগস্ট হাওড়া থেকে হুগলি পর্যন্ত দৌড়ে ছিল। রেলপথটি ১৮৫৫ সালে রানিগঞ্জ পর্যন্ত প্রসারিত হয়। [৩]

বৈদ্যুতীকরণ[সম্পাদনা]

হাওড়া-বর্ধমান মেইন লাইনের বিদ্যুৎকৌশল ১৯৫৮ সালে ২৫ কেভি এসি ওভারহেড সিস্টেম করা হয়। [৪] হাওড়া-শেওড়াফুলী-তারকেশ্বর লাইনটি ১৯৫৭-৫৮ সালে বিদ্যুতায়িত হয়। [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Indian railway codes"। Indian Railways। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১৮ 
  2. "Seoraphuli junction Railway Station Map/Atlas ER/Eastern Zone – Railway Enquiry"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৯ 
  3. "IR History Part I 1832–1869"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৩ 
  4. "IR History Part IV 1947–1970"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  5. "History of Electrification"। IRFCA। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭