দাকোপ উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দাকোপ
উপজেলা
দাকোপ বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
দাকোপ
দাকোপ
বাংলাদেশে দাকোপ উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°৩৪′২০″উত্তর ৮৯°৩০′৪০″পূর্ব / ২২.৫৭২২° উত্তর ৮৯.৫১১১° পূর্ব / 22.5722; 89.5111স্থানাঙ্ক: ২২°৩৪′২০″উত্তর ৮৯°৩০′৪০″পূর্ব / ২২.৫৭২২° উত্তর ৮৯.৫১১১° পূর্ব / 22.5722; 89.5111
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ খুলনা বিভাগ
জেলা খুলনা জেলা
আয়তন
 • মোট ৯৯১.৯৮ কিমি (৩৮৩.০১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট ১,৫৮,৩০৯
 • ঘনত্ব ১৬০/কিমি (৪১০/বর্গমাইল)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ৫৬%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইট dakop.khulna.gov.bd/


দাকোপ উপজেলা পশুর নদীর পাড়ে অবস্থিত বাংলাদেশের খুলনা জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা। দাকোপের প্রশাসনিক অঞ্চল চালনায় অবস্থিত। দাকোপের সাথে খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলা, পাইকগাছা উপজেলা এবং বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার সীমানা রয়েছে।

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

দাকোপের ভৌগোলিক অবস্থান ২২°৩৪′২০″উত্তর ৮৯°৩০′৪০″পূর্ব / ২২.৫৭২২° উত্তর ৮৯.৫১১১° পূর্ব / 22.5722; 89.5111। দাকোপের মোট আয়তন ৯৯১.৫৮ কিমি²। উত্তরে বটিয়াঘাটা উপজেলা, পূর্বে বটিয়াঘাটারামপাল উপজেলা, দক্ষিণে সুন্দরবন এবং পশ্চিমে পাইকগাছা উপজেলা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

১৯১৩ সালে দাকোপ থানার প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু হয় এবং ১৯৮৩ সালে উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১০ টি ইউনিয়ন পরিষদ, ২৬ মৌজা এবং শতাধিক গ্রাম নিয়ে দাকোপ থানা গঠিত। ১৯৭১ সালে দাকোপে অবস্থিত বাজুয়া উচ্চবিদ্যালয় প্রাঙ্গনে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী কর্তৃক গণহত্যা সংঘটিত হয়। শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে উপজেলা পরিষদ ভবনের সামনে যুদ্ধ সৌধ স্মৃতি অম্লান নির্মান করা হয়েছে।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

প্রাথমিক বিদ্যালয়[সম্পাদনা]

  • বটবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • আড়াখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • বটবুনিয়া জে. এন. সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • হামিদা খাতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • সোনাপাখি প্রি-ক্যাডেট স্কুল
  • নতুনকুঁড়ি কিন্ডারগার্টেন

মাধ্যমিক বিদ্যালয়[সম্পাদনা]

  • বটবুনিয়া কলেজিয়েট স্কুল
  • মোজামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়

কলেজ[সম্পাদনা]

কৃষি[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

দাকোপ থানার অর্থনীতি কৃষি এবং চিংড়ি চাষের উপর নির্ভরশীল। এই থানার বিস্তৃত এলাকা জুড়ে চিংড়ি ঘেরগুলোতে বাগদা চিংড়ির চাষ হয়।

যোগাযোগ[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান ও স্থাপনা[সম্পাদনা]

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে দাকোপ"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগৃহীত ২৫ জানুয়ারী, ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]