শ্রীপুর উপজেলা, মাগুরা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শ্রীপুর
উপজেলা
শ্রীপুর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
শ্রীপুর
শ্রীপুর
বাংলাদেশে শ্রীপুর উপজেলা, মাগুরার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৫′৪৫″ উত্তর ৮৯°২৩′৩″ পূর্ব / ২৩.৫৯৫৮৩° উত্তর ৮৯.৩৮৪১৭° পূর্ব / 23.59583; 89.38417স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৫′৪৫″ উত্তর ৮৯°২৩′৩″ পূর্ব / ২৩.৫৯৫৮৩° উত্তর ৮৯.৩৮৪১৭° পূর্ব / 23.59583; 89.38417 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগখুলনা বিভাগ
জেলামাগুরা জেলা
প্রতিষ্ঠা১৯৮৩
সরকার
 • উপজেলা চেয়ারম্যানমিয়া মাহমুদুল গনি শাহিন (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ)
আয়তন
 • মোট১৭৯.১৮ কিমি (৬৯.১৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১,৭৩,০৯৭[১]
সাক্ষরতার হার
 • মোট৪৩.৫%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৪০ ৫৫ ৯৫
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

শ্রীপুর উপজেলা বাংলাদেশের মাগুরা জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

আয়তন[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলার আয়তন ১৭৯.১৮ বর্গ কিলোমিটার।[২]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলার জনসংখ্যা ১লাখ ৭৩ হাজার ৯৭জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮৫ হাজার ১০০শ ১২জন ও মহিলা ৮৭ হাজার ৯০০শ ৮৫জন।

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

মাগুরা জেলার উত্তর-পূর্বাংশে শ্রীপুর উপজেলার অবস্থান। উপজেলার উত্তরে রাজবাড়ী জেলা, পশ্চিমে শৈলকুপা উপজেলা, দক্ষিণে মাগুরা সদর উপজেলা, পূর্বে মধুখালী উপজেলাগড়াই নদীকুমার নদী শ্রীপুরের উল্লেখযোগ্য নদ-নদী। [৩]

নামকরন[সম্পাদনা]

১৮৫৯ সালে সালের আয়তন জরীপ অনুযায়ী শ্রীপুর উপজেলা মাগুরা জেলার মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ উপজেলা। নির্দিষ্টভাবে এই উপজেলার নামকরণ সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায়নি। তবে জনশ্রুতি আছে যে, নবম শতাব্দিতে পাল রাজার শাসন আমলে এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ নগর ছিল। এককালে শ্রীপুর অঞ্চলে বিরাট রাজা নামে এক রাজার শাসন ছিল। তার প্রকৃত নাম ছিল রাজা রাম চন্দ্র। রাজার স্ত্রীর নাম ছিল শ্রীদেবী। শ্রীদেবীর নাম অনুসারে এই উপজেলার নামকরণ হয় শ্রীপুর।

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস[সম্পাদনা]

মিয়া আকবর হোসেন-এর নেতৃত্বে বেসামরিক যোদ্ধাদের নিয়ে গড়ে উঠা বাংলাদেশের অন্যতম গেরিলা বাহিনী‘আকবর বাহিনী’ মুক্তিযুদ্ধের ৮ নম্বর সেক্টরের অধীনে যুদ্ধ করে ১০ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে শ্রীপুর স্বাধীন করে। এছাড়াও ইপিআর, পুলিশসশস্ত্র বাহিনীতে চাকুরীত শ্রীপুরের বেশ কয়েকজন অধিবাসী দেশের বিভিন্ন স্থানে যুদ্ধে অংশ নিয়ে কৃতীত্বপূর্ণ সাহসিকতার পরিচয় দেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন পূর্ব শ্রীকোল গ্রামের নায়েক আব্দুল মোতালেব, বীর বিক্রম, এবং হরিন্দী গ্রামের সুবেদার সিগন্যাল সৈয়দ আমিরুজ্জামান, বীর বিক্রম

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলায় বর্তমানে ৮টি ইউনিয়ন রয়েছে। এটি নির্বাচনী এলাকা ৯১ মাগুরা-১ (জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকা)

ইউনিয়নসমূহ:

শিক্ষা[সম্পাদনা]

মোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা:১৩০টি , এই উপজেলায় শিক্ষার হার ৪৩.৫%

  • প্রাথমিক বিদ্যালয় - ৭১
  • কিন্ডার গার্টেন - ৫
  • এনজিও কেন্দ্র (ব্রাক) - ৬
  • হাই স্কুল - ২৬
  • কলেজ - ৬[৪]
  • মাদ্রাসা - ১৬

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলার অর্থনীতি প্রধানত কৃষি নির্ভর। উপজেলার মধ্য দিয়ে কয়েকটি নদী প্রবাহিত হওয়ার ফলে এর কৃষি জমি সমূহ বেশ উর্বর।জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ৬৪.৩৫%, অকৃষি শ্রমিক ২.০৭%, শিল্প ১.৫০%, ব্যবসা ১২.৭৯%, পরিবহন ও যোগাযোগ ৪.৭২%, চাকরি ৮.১৭%, নির্মাণ ১.২৭%, ধর্মীয় সেবা ০.১৫%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিটেন্স ০.৬২% এবং অন্যান্য ৪.৩৬%। এখানকার প্রধান কৃষি ফসল ধান, পাট, গম, সরিষা, ডাল, কাজুবাদাম, শাকসবজি। বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় ফসলাদি অড়হর, চীনা, যব। প্রধান ফল-ফলাদি আম, কাঁঠাল, নারিকেল, লিচু, কলা।

নদ-নদী[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলায় অনেকগুলো নদী রয়েছে। নদীগুলো হচ্ছে গড়াই নদী, মুচিখালি নদী, মরাকুমার নদ, কুমার নদ এবং সিরাজপুর হাওর নদী[৫][৬]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

কৃতি ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • কবি ফররুখ আহমদ,মুসলিম রেনেসাঁর কাব্য (কাব্যগ্রন্থ হাতেম তাই, মীরাজুম মুনীরা)
  • কবি কাজী কাদের নেওয়াজ,কাব্যগ্রন্থ (মরাল, নীল কুমুদিনী)
  • কবি যতীন্দ্রমোহন বাগচী,কাব্যগ্রন্থ(কেয়া, বন্ধুর দান)
  • কবি আফছার উদ্দীন,কাব্যগ্রন্থ (ফুল ও একটি জীবন, চলন্ত পৃথিবী)
  • সৈয়দ মারুফ আহম্মেদ মাখু মিয়া,কাব্যগ্রন্থ (শ্রেষ্ট সন্তান)
  • আলহাজ্ব আকবর আলী মিয়া,অধিনায়ক, শ্রীপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহিনী,শ্রীপুর,মাগুরা
  • মোল্যা নবুয়ত আলী,উপ-অধিনায়ক, শ্রীপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহিনী , শ্রীপুর,মাগুরা

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

সংসদীয় আসন জাতীয় নির্বাচনী এলাকা সংসদ সদস্য রাজনৈতিক দল
৯১ মাগুরা-১[৭] শ্রীপুর উপজেলা, মাগুরা সাইফুজ্জামান শিখর[৮][৯][১০] বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "জনসংখ্যা"www.sreepur.magura.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৯ 
  2. "আয়তন"www.bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৯ 
  3. "ভৌগলিক পরিচিতি"www.sreepur.magura.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৯ 
  4. "কলেজ"www.sreepur.magura.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৯ 
  5. ড. অশোক বিশ্বাস, বাংলাদেশের নদীকোষ, গতিধারা, ঢাকা, ফেব্রুয়ারি ২০১১, পৃষ্ঠা ৩৯০, আইএসবিএন ৯৭৮-৯৮৪-৮৯৪৫-১৭-৯
  6. মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক (ফেব্রুয়ারি ২০১৫)। বাংলাদেশের নদনদী: বর্তমান গতিপ্রকৃতি। ঢাকা: কথাপ্রকাশ। পৃষ্ঠা ৭৯, ৬১২। আইএসবিএন 984-70120-0436-4 
  7. "Constituency 91_11th_En"www.parliament.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৯ 
  8. "ভেদাভেদ ভুলে ফের আ.লীগকে জয়ী করুন : শিখর"আমাদের সময় 
  9. "মাগুরা-১: নৌকা প্রতীকে সাইফুজ্জামান শিখরের জয়"ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৯ 
  10. "মাগুরা-১ শিখরের পক্ষে একাট্টা আ'লীগ"সমকাল 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]