স্বদেশ বসু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্বদেশ বসু
ড.
জন্মস্বদেশ রঞ্জন বোস
(১৯২৮-০১-০২)২ জানুয়ারি ১৯২৮
কাশিমপুর, বরিশাল জেলা, ব্রিটিশ ভারত
(এখন বাংলাদেশ)
মৃত্যু৩ ডিসেম্বর ২০০৯(২০০৯-১২-০৩) (৮১ বছর)
ঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
জাতিসত্তাবাঙ্গালী
শিক্ষাপিএইচডি
যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীকেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ব্রজমোহন কলেজ
পেশাঅর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদ

স্বদেশ বসু বাংলাদেশের একজন অর্থনীতিবিদ। তিনি ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেছিলেন। অর্থনীতিতে অনন্য সাধারণ অবদানের জন্য ২০১৩ সালে তাকে মরণোত্তর “অর্থনীতিতে স্বাধীনতা পুরস্কার ২০১৩” প্রদান করা হয়।[১][২]

জীবন[সম্পাদনা]

স্বদেশ বসু ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দের ২ জানুয়ারি তারিখে বরিশালের কাশিমপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।[৩][৪] কৈশোর থেকেই তিনি ব্রিটিশবিরোধী স্বদেশি আন্দোলনের দিকে ঝুঁকে পড়েন। ১৯৪৮ সালের মার্চ মাসে ভাষার দাবি তোলার প্রথম দিকে বাংলা ভাষার দাবিতে ধর্মঘট পালন করতে গিয়ে তিনি গ্রেপ্তার হন। এরপর দফায় দফায় মামলা দিয়ে দীর্ঘ সময় তাঁকে জেলের ভেতর রাখে পাকিস্তান সরকার। ‘কমিউনিস্ট’ পরিচয়ের কারণে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তি পাওয়া সত্ত্বেও তাঁকে ভিসা দেওয়া হয়নি। পরবর্তী সময়ে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিরে এসে যোগদান করেন আগের কর্মস্থল পাকিস্তান ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট ইকোনমিকসে। ১৯৬৬ খ্রিস্টাব্দে তিনি আওয়ামী লীগের ছয় দফা আন্দোলন-এর সঙ্গে যুক্ত হন এবং অনেকের সঙ্গে পাকিস্তান ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট ইকোনমিকস (পিআইডিই) থেকে দুই অঞ্চলের অর্থনৈতিক বৈষম্য তুলে ধরেন।

মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

তিনি ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। তিনি মুজিবনগর অস্থায়ী সরকারের পরিকল্পনা সেলের একজন সদস্য ছিলেন। ছিলেন কুদরাত-এ-খুদা শিক্ষা কমিশনের সদস্য। শুধু তা-ই নয়, স্বদেশ বোস বুঝতে পেরেছিলেন, স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশে একটি সমস্যা হবে খাদ্য সরবরাহ নিয়ে। তাই মুক্তিযুদ্ধের শেষ দিকে বাংলাদেশে খাদ্য সরবরাহ বিষয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা করেন।[৫]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০০৯ খ্রিস্টাব্দের ৭ ডিসেম্বর তারিখে ঢাকা শহরের ধানমণ্ডিতে বসবাসকালে তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর তাঁর দেহভস্ম সমাধিস্থ হয়েছে বরিশালে, স্ত্রী মনোরমা বসুর সমাধির সঙ্গে। দীর্ঘদিন কারাগারে থাকার ফলে পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হয়ে জীবনের শেষভাগে নির্বাক ছিলেন বহুদিন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের তালিকা"মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ০৯ অক্টোবর ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "স্বাধীনতা পুরস্কার ২০১৩ ঘোষণা"স্পন্দন। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১৭  |আর্কাইভের-ইউআরএল= ত্রুটিপূর্ণভাবে গঠিত: save command (সাহায্য)
  3. "Swadesh Bose passes away"The Daily Star। ২০০৯-১২-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১২-০৪ 
  4. "স্বদেশ বসু - বাংলা পিডিয়া"। Banglapedia। ২০১৪-১০-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১২-০৪ 
  5. দৈনিক প্রথম আলো, "স্বদেশ বোস: ভালোবাসার মানুষ", জোবাইদা নাসরীন | তারিখ: ০২-০১-২০১০