রফিকুল ইসলাম (ভাষা কর্মী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম (ভাষা কর্মী).png
জন্ম১৯৫৩
মৃত্যু২০১৩
নাগরিকত্বপাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
পেশাব্যবসা
পুরস্কারস্বাধীনতা পুরস্কার (২০১৬)

রফিকুল ইসলাম (১৯৫৩ - ২০১৩) হলেন বাংলাদেশের একজন ভাষা কর্মী যিনি ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি আদায়ের জন্য নিরলসভাবে কাজ করেছেন।[১] মাতৃভাষার প্রতি অনবদ্য ভালোবাসা প্রদর্শন ও নিরলসভাবে এর স্বীকৃতি আদায়ে কাজ করার অনন্য সাধারণ অবদানের জন্য ২০১৬ সালে তাকে “স্বাধীনতা পুরস্কার” প্রদান করা হয়।[২]

পুরস্কার ও সম্মননা[সম্পাদনা]

বাংলা ভাষার মর্যাদা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেয়ার অসাধারণ অবদানের জন্য ২০১৬ সালে দেশের “সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার”[৩][৪][৫] হিসাবে তাকে “মাতৃভাষায় স্বাধীনতা পুরস্কার” প্রদান করা হয়।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "চলে গেলেন রফিকুল ইসলাম"দৈনিক প্রথম আলো অনলাইন। ২২ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ০২ নভেম্বর ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের তালিকা"মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ০৯ অক্টোবর ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. সানজিদা খান (জানুয়ারি ২০০৩)। "জাতীয় পুরস্কার: স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার"। সিরাজুল ইসলাম[[বাংলাপিডিয়া]]ঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ০৯ অক্টোবর ২০১৭স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য); ইউআরএল–উইকিসংযোগ দ্বন্দ্ব (সাহায্য)
  4. "স্বাধীনতা পদকের অর্থমূল্য বাড়ছে"কালেরকন্ঠ অনলাইন। ২ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৭ 
  5. "এবার স্বাধীনতা পদক পেলেন ১৬ ব্যক্তি ও সংস্থা"এনটিভি অনলাইন। ২৪ মার্চ ২০১৬। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]