পাবনা

স্থানাঙ্ক: ২৪°০১′ উত্তর ৮৯°১৩′ পূর্ব / ২৪.০১৭° উত্তর ৮৯.২১৭° পূর্ব / 24.017; 89.217
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পাবনা
Tarash Bhaban Pabna.jpg
Durjoy Pabna.jpg
অন্নদা গোবিন্দ লাইব্রেরী পাবনা.jpg
Ichamati river.jpg
পাবিপ্রবি.jpg
ঘড়ির কাঁটার ক্রমানুযায়ী: তারাস রাজবাড়ী, দুর্জয় জাগরণ স্মৃতিসৌধ, অন্নদা গোবিন্দ পাবলিক লাইব্রেরী, ইছামতী নদী, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ
পাবনা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
পাবনা
পাবনা
স্থানাঙ্ক: ২৪°০১′ উত্তর ৮৯°১৩′ পূর্ব / ২৪.০১৭° উত্তর ৮৯.২১৭° পূর্ব / 24.017; 89.217
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগরাজশাহী বিভাগ
জেলাপাবনা জেলা
উচ্চতা১৬ মিটার (৫২ ফুট)
জনসংখ্যা (২০২১)
 • মোট৩,০১,০০০
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটpabna.gov.bd

পাবনা বাংলাদেশ এর মধ্য ভাগে অবস্থিত বাংলাদেশের একটি প্রধান শহর। এটি রাজশাহী বিভাগ এর পাবনা জেলার অন্তর্গত। পাবনা শহর বিখ্যাত পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত।

প্রশাসন[সম্পাদনা]

পাবনা পৌরসভা একজন মেয়র এবং ১৫ জন কাউন্সিলর এবং ৫ জন মহিলা কাউন্সিলর দ্বারা গঠিত। প্রতিটি কাউন্সিলর শহরের একটি করে ওয়ার্ডের প্রতিনিধিত্ব করেন। তারা সবাই জনগণের ভোটে সরাসরি নির্বাচিত।

যাতায়াত[সম্পাদনা]

যমুনা বহুমুখী সেতু পার হয়ে সড়কপথে রাজধানী ঢাকা থেকে মাত্র সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার পথ। এছাড়া নদী পথে আরিচা থেকে নগরবাড়ি ঘাট হয়ে ৪ ঘণ্টায় পাবনায় যাওয়া যায়।

পাবনা সড়ক দ্বারা সব জেলা এবং শহরগুলির সাথে সংযুক্ত। পাবনা শহর নতুন রেলওয়ে নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত হয়েছে। শালগরিয়ায় পাবনা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের কাছাকাছি পাবনা রেলওয়ে স্টেশনটি অবস্থিত। এর আগে রেলওয়ে ছিল টেবুনিয়ায়, যা শহরের কেন্দ্র থেকে ১০ কিমি দূরে ছিল।

জলবায়ু[সম্পাদনা]

পাবনা-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
সর্বোচ্চ গড় °সে (°ফা) ২৫.৩
(৭৭.৫)
২৮.৫
(৮৩.৩)
৩৩.৬
(৯২.৫)
৩৬.৭
(৯৮.১)
৩৫.২
(৯৫.৪)
৩২.৭
(৯০.৯)
৩১.৭
(৮৯.১)
৩১.৮
(৮৯.২)
৩২.২
(৯০.০)
৩১.৬
(৮৮.৯)
২৯.১
(৮৪.৪)
২৬.৪
(৭৯.৫)
৩১.২
(৮৮.২)
সর্বনিম্ন গড় °সে (°ফা) ১১.৬
(৫২.৯)
১৩.৯
(৫৭.০)
১৮.৫
(৬৫.৩)
২২.৮
(৭৩.০)
২৪.৬
(৭৬.৩)
২৫.৬
(৭৮.১)
২৫.৯
(৭৮.৬)
২৬.৪
(৭৯.৫)
২৬.২
(৭৯.২)
২৩.৬
(৭৪.৫)
১৭.৫
(৬৩.৫)
১২.৯
(৫৫.২)
২০.৮
(৬৯.৪)
অধঃক্ষেপণের গড় মিমি (ইঞ্চি) ১৯
(০.৭)
১৮
(০.৭)
৩৪
(১.৩)
৫৬
(২.২)
১৫৯
(৬.৩)
৩০০
(১১.৮)
২৬০
(১০.২)
২৯৪
(১১.৬)
২৪২
(৯.৫)
২০১
(৭.৯)
১৭
(০.৭)

(০.১)
১,৬০৩
(৬৩.১)
উৎস: Climate-data.org

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

  1. পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
  2. পাবনা মেডিকেল কলেজ
  3. পাবনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
  4. পাবনা ক্যাডেট কলেজ
  5. এডওয়ার্ড কলেজ
  6. সরকারী শহীদ বুলবুল কলেজ
  7. সরকারী মহিলা কলেজ, পাবনা
  8. পাবনা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  9. পাবনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ
  10. সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ, পাবনা
  11. পাবনা কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ
  12. পাবনা জিলা স্কুল
  13. মেরিন একাডেমী, পাবনা
  14. শহীদ এম মনসুর আলী কলেজ, পাবনা
  15. পাবনা ইসলামিয়া মাদ্রাসা
  16. পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, পাবনা

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গ[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায়
শ্রী শ্রী ঠাকুর অনুকূল চন্দ্রের সৎসঙ্গ(আশ্রম-মন্দির) যে কোন স্থান হতে বাস অথবা নিজস্ব পরিবহন মারফত পাবনা বাস টার্মিনাল আগমন। বাস টার্মিনাল হতে শ্রী শ্রী ঠাকুর অনুকূল চন্দ্রের সৎসঙ্গ(আশ্রম-মন্দির) ৭ (সাত) কি:মি: দুরে অবস্থিত। উক্ত পথ বাস টার্মিনাল হতে রিক্সা/অটোরিক্সা/সিএনজি যোগে যাওয়া যায়। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো আছে।
পাকশীস্থ হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পাবনা জেলা সদর হতে ঈশ্বরদী উপজেলার দুরত্ব আনুমানিক ২৫-৩০ কিলোমিটার। যাতায়াত ব্যবস্থা ভাল। ঈশ্বরদী উপজেলার ১টি ইউনিয়ন ও গ্রামের নাম পাকশী। পাকশী রুপপুর প্রকল্পের পাশে এবং পদ্মা নদীর তীরে পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজের অবস্থান। উক্ত স্থানে আনুমানিক ০১(এক) ঘন্টা সময়ে পাবনা জেলা শহর হতে সড়কপথে দাশুরিয়া মোড় হয়ে যাওয়া যায়
ক্ষেতুপাড়া জমিদার বাড়ী সাথিয়া হইতে ৭ কি.মি দুরেক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নে অবস্থিত। সাথিয়া থেকে সিএনজি করে ১৫ টাকা ভাড়া নেবে সাথিয়া টু চিনাখড়া রোডে। চিনাখড়া হতে ৩ কি. মি দুরে এবং ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ৫ কিলোমিটার দুরে।
জোড় বাংলা মন্দির পাবনা শহর হতে রিক্সা/অটোরিক্সা/সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে ১৫-২০ মিনিটে যাওয়া যায়।
ভাড়ারা শাহী মসিজদ পাবনা শহর হতে ২০ মিনিট দুরত্বে সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে যাওয়া যায়।
কিংবদন্তী নায়িকা সুচিত্রা সেনের স্মৃতি সংগ্রহশালা পাবনা শহর হতে রিক্সা/অটোরিক্সা/সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে ১০-১৫ মিনিটে যাওয়া যায়।
প্রমথ চৌধুরীর পৈত্রিক নিবাস প্রমথ চৌধুরীর পৈত্রিক নিবাস পাবনা শহর হতে প্রায় ৩৪-৩৫ কি:মি: দুরত্বে চাটমোহর উপজেলা হরিপুরে অবস্থিত। সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে ১.৫০-২.০০ ঘন্টায় উক্ত যায়গায় যাওয়া যায়।
তাড়াশ জমিদার ভবন পাবনা শহেরর প্রাণকেন্দ্রে আব্দুল হামিদ রোড সংলগ্ন গোপাল্পুর মৌজায় কারুকার্য খচিত দ্বিতল ভবনটি অবস্থিত
পাবনা মানসিক হাসপাতাল সড়ক পথে যে কোন স্থান হতে  বাস অথবা নিজস্ব পরিবহন মারফত পাবনা বাস টার্মিনাল আগমন। বাস টার্মিনাল হতে  পাবনা মানিসিক হাসপাতাল ৭ (সাত) কি:মি: দুরে অবস্থিত। উক্ত পথ বাস টার্মিনাল হতে রিক্সা/অটোরিক্সা/সিএনজি যোগে আনুমানিক ৩০-৪০ মিনিটে যাওয়া যায়। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো আছে।
১০ এডরুক লিমিটেড, পাবনা পাবনা শহর হতে রিক্সা/অটোরিক্সা/সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে ১০-১৫ মিনিটে যাওয়া যায়।
১১ পাবনার ঐতিহ্যবাহী তাঁতশিল্প পাবনার অন্যতম তাঁতপ্রধান এলাকা দোগাছী, সুজানগর, বেড়া, সাঁথিয়া, আটঘরিয়া ইত্যাদি । উক্ত স্থানে সড়ক পথে পাবনা জেলা শহর হতে সিএনজি/বাসযোগে সহজে যাওয়া যায় ।
১২ লালন শাহ সেতু পাবনা জেলা সদর হতে ঈশ্বরদী উপজেলার দুরত্ব আনুমানিক ২৫-৩০ কিলোমিটার। যাতায়াত ব্যবস্থা ভাল। ঈশ্বরদী উপজেলার ১টি ইউনিয়ন ও গ্রামের নাম পাকশী। পাকশী রুপপুর প্রকল্পের পাশে এবং পদ্মা নদীর তীরে পাকশী লালন শাহ সেতু অবস্থান। উক্ত স্থানে আনুমানিক ০১(এক) ঘন্টা সময়ে পাবনা জেলা শহর হতে সড়কপথে দাশুরিয়া মোড় হয়ে যাওয়া যায় ।
১৩ চাটেমাহর শাহী মসিজদ চাটমোহর শাহী মসজিদ পাবনা শহর হতে প্রায় ৩৪-৩৫ কি:মি: দুরত্বে চাটমোহর উপজেলার বাজারের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে ১.৫০-২.০০ ঘন্টায় উক্ত যায়গায় যাওয়া যায়।
১৪ গজনার বিল সুজানগর উপজেলা থেকে সড়কপথে সিএনজি যোগে প্রায় ৭ কি.মি. খয়রান ব্রিজের পূর্ব দিকে বিল গাজনায় যাওয়া যায়।
১৫ সুজানগর আজিম চৌধুরী জমিদার বাড়ী পাবনা হতে ১৯ কি.মি. দুরে সিএনজি/নিজ পরিবহন যোগে সুজানগর যাওয়া যায়। সুজানগর উপজেলা থেকে সিএনজি যোগে পোড়াডাঙ্গা বাজার হয়ে চিনাখড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে পূর্ব দিকে পাবনা নগরবারী মহাসড়কের পার্শে দুলাই বাজারের ৫০০ মিটার দক্ষিণ দিকে রিক্সা/ভ্যান যোগে জমিদার বাড়ী যাওয়া যায়।
১৬ তাঁতীবন্দ জমিদার বাড়ী পাবনা হতে ১৯ কি.মি. দুরে সিএনজি/নিজ পরিবহন যোগে সুজানগর যাওয়া যায়। সুজানগর উপজেলা থেকে সি.এন.জি/ভ্যান যোগে উত্তর দিকে প্রায় ৫ কি.মি. দুরে তাঁতিবন্দ উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন জমিদার বাড়ী যাওয়া যায়।
১৭ ঈশ্বরদী রেল জংশন বাংলাদেশের যে কোন জায়গা হতে রেল পথে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনে অথবা পাবনা শহর হতে ২৬ কি.মি. দুরত্বে ঈশ্বরদী বাস টার্মিনালে নেমে সিএনজি/নিজস্ব পরিবহন যোগে যাওয়া যায়।
১৮ আটঘরিয়া বংশীপাড়া গ্রামের চন্দ্রাবতীর ঘাট পাবনা হতে ১২ কি.মি. দুরে সিএনজি/নিজ পরিবহন যোগে আটঘরিয়া যাওয়া যায়। সেখান থেকে ১১ কি.মি. দুরত্বে মাঝপাড়া ইউনিয়নের ক্ষিদিরপুর গ্রামে চন্দ্রাবতীর ঘাটে যাওয়া যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]