ভাড়ারা শাহী মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভাড়ারা শাহী মসজিদ পাবনা জেলার সদর উপজেলার ভাড়ারা ইউনিয়নের ভাড়ারা গ্রামে অবস্থিত একটি সুপ্রাচীন ঐতিহাসিক মসজিদ।[১][২][৩] মসজিদটি ১৭৫৭ সালে বাদশাহ শাহ আলমের রাজত্বকালে দৌলত খা-এর পুত্র আসালত খা এই মসজিদটি নির্মাণ করেন।[৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ভাড়ারা শাহী মসজিদ অনেক পুরাতন মসজিদ হিসাবে অনেক লোকশ্রুতি রয়েছে, স্থানীয় লোকদের শ্রুতি অনুসারে, মসজিদটি রাতে নির্মাণ করা হয়েছে। এবং তারা বলে থাকে, এই মসজিদে সৃষ্টিকর্তার বিশেষ রহমত রয়েছে। আশে পাশের গ্রাম থেকে এখানে মানুষ আকিকা, বা মানত করতে আসে।

অবস্থান[সম্পাদনা]

ভাড়ারা মসজিদ পাবনা-সুজানগর সড়কের পাশে সদর উপজেলার ভাড়ারা ইউনিয়নের ভাড়ারা গ্রামের প্রধান বাজারের সাথেই অবস্থিত। পাবনা জেলা শহর থেকে প্রায় ১২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মসজিদটি। মসজিদের পাশে প্রায় ৩ কিলোমিটার দূরে পদ্মা নদী রয়েছে।

আকার[সম্পাদনা]

মসজিদটি তিন গম্বুজ বিশিষ্ট, মসজিদের আকার খুব বেশি বড় নয়, স্বাভাবিক গঠনেই রয়েছে। তবে মসজিদ গঠনগত দিক থেকে খুব শক্তিশালী।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ভাড়ারা ইউনিয়ন, পাবনা সদর উপজেলা। "ভাড়ারা ইউনিয়ন, পাবনা সদর উপজেলা"সরকারি ওয়েবসাইট 
  2. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "অযত্নে প্রত্ন নিদর্শনের বারোটা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২ 
  3. "'পাবনা'র নেপথ্যে যত জনশ্রুতি"বাংলা ট্রিবিউন। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২ 
  4. "ভাড়ারা শাহী মসিজদ | বিডিএলএসটি"blog.bdlst.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২