খনিয়াদিঘি মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(খঞ্জন দিঘির মসজিদ থেকে পুনর্নির্দেশিত)
Jump to navigation Jump to search
খনিয়াদিঘি মসজিদ
Khania Dighi Mosque -Photo by Porag.jpg
খনিয়াদিঘি মসজিদ
প্রাথমিক তথ্য
অবস্থান বাংলাদেশচাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা, বাংলাদেশ
District চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা
দেশ বাংলাদেশ
অবস্থা সক্রিয়
স্থাপত্যের বিবরণ
স্থাপত্যের ধরন মুঘল
স্থাপত্য শৈলী মুঘল
বিবরণসমূহ
গম্বুজ 4
উপাদানসমূহ ইট, টেরাকোটা ও টাইল

খনিয়াদিঘি মসজিদ বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক স্থাপত্য যার অবস্থান চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ছোট সোনা মসজিদের সন্নিকটে। এটি আনুমানিক ১৫'দশ শতকে নির্মিত হয়েছিলো। এটি স্থানীয়ভাবে চামচিকা মসজিদ এবং রাজবিবি মসজিদ নামেও পরিচিত।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৪৫০ থেকে ১৫৬৫ খ্রিস্টাব্দ অবধি গৌড় ছিল তৎকালীন বাংলার রাজধানী ; এ সময়ই এ মসজিদটি নির্মিত হয়েছিল। এই মসজিদের পাশে বিশাল এক দিঘি রয়েছে যার নাম খনিয়া দিঘী নামে পরিচিত। কাছাকাছি আরেকটি মসজিদের নাম দারাসবাড়ি মসজিদ। মসজিদটি দীর্ঘকাল আগে পরিত্যাক্ত হয়েছে। পরিচর্যার অভাবে এ মসজিদটি বিলীয়মান।[২]

অবস্থান[সম্পাদনা]

এই মসজিদটি রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত।[৩] চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে প্রায় ৩৫ কি.মি.। বাস অথবা সিএনজি-তে যাওয়া যায়। প্রায় ৪৫ মি. থেকে ১ ঘন্টা সময় লাগে।

বিবরণ[সম্পাদনা]

এই মসজিদের আয়তন ৬২ × ৪২ ফুট। মূল গম্বুজটির নিচের ইমারত বর্গাকারে তৈরী, যার প্রত্যিটি ২৮ ফুট দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট। বড় কামরার সামনের দিকে (পূর্ব) একটি বারান্দা ছিল, যার অবশিষ্টাংশ বর্তমানে দেখা যায়। মসজিদটি ইটের তৈরী, বাইরেে দিকে সুন্দর কারুকাজ করা।[৪] বর্তমানে খঞ্জনদীঘির মসজিদটির একটি মাত্র গম্বুজ ও দেয়ালের কিছু অংশ টিকে আছে। কিন্তু এগুলোর অবস্থাও খুব জীর্ণ আকার ধারণ করেছে।

ঐতিহাসিক খনিয়াদিঘি

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. চক্রবর্তী, রজনীকান্ত (জানুয়ারি ১৯৯৯)। গৌড়ের ইতিহাস (PDF) (1 & 2 সংস্করণ)। Bankim Chatterjee Street, Calcutta 700 073: Dev's Publishing। 
  2. সালাউদ্দিন, মোহাম্মদ (২৬ মার্চ ২০১০ইং)। "ছোট সোনা মসজিদ"। গৌড়বঙ্গ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর প্রাচীন নিদর্শন (2 সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: জাতীয় সাহিত্য পরিষদ। পৃষ্ঠা 112।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  3. ইতিহাস-ঐতিহ্য-এর খঞ্জন দিঘির মসজিদ।
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; পুরাকীর্তি নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি