সিংদহা আউলিয়া মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সিংদহা আউলিয়া মসজিদ
স্থানীয় নাম খানায়ে খোদা মসজিদ
ধরনপ্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন
অবস্থানকালিগঞ্জ উপজেলা
অঞ্চলঝিনাইদহ জেলা
পরিচালকবর্গবাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর

সিংদহা আউলিয়া মসজিদ বা খানায়ে খোদা মসজিদ ঝিনাইদহ জেলার কালিগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত একটি প্রাচীন মসজিদ ও বাংলাদেশের অন্যতম একটি পুরাকীর্তি।[১] এটি উপজেলার সিংহগা নামক স্থানে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মসজিদটির নির্মাণকাল সম্পর্কে সঠিক তথ্য পাওয়া যায় না। তবে বাংলার শাসক খানজাহান আলী ১২ জন মুসলিম সাধক নিয়ে এ অঞ্চলে আসার পর বেশ কিছু মসজিদ ও স্থাপনা নির্মাণ করেন। সিংদহা আউলিয়া মসজিদ এগুলোর মধ্যে একটি বলে ধারণা করা হয়। গাজী কালু চম্পাবতী নামে কেউ একজন খান জাহানের সময় মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন বলে ধারণা করা হয়। মসজিদটির গঠন দেখে এটি সুলতানী আমলে তৈরি অন্য মসজিদগুলোর সাথে অনেকটাই মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

আউলিয়া মসজিদে মোট ৫টি প্রবেশপথ রয়েছে যার মধ্যে পূর্ব দেয়ালে ৩টি এবং উত্তর ও দক্ষিণ দেয়ালে ১টি করে প্রবেশ পথ রয়েছে। বর্গাকারে তৈরি আউলিয়া মসজিদের পশ্চিম দেয়ালে ২টি মেহরাব রয়েছে। মেহরাবের গয়েও তিন পাশে মোট ৬টি প্লাষ্টার বসানো। অন্যান্য মসজিদগুলোতে তিনটি মেহরাব থাকলেও এখানে একটি মেহরাবের পরিবর্তে সেখানে ফুল ও লতাপাতার নকশাযুক্ত আয়তক্ষেত্রের ন্যায় একটি কাঠামো তৈরি করা হয়েছে।

মসজিদের বহির্ভাগটি পূর্ব থেকে পশ্চিমে ১১ মিটার এবং অপর দুদিকে ৭.৬০ মিটার। এছাড়াও ভেতরের দিকে একইভাবে ৭.৭০ মিটার এবং অপরদিকে ৬.৩৫ মিটার। এর পশ্চিমের দেয়াল ভুমি থেকে প্রায় ২.৩০ মিটার উচ্চতায় স্থাপিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]