মুসা খান মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুসা খাঁর মসজিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

একটি সিরিজের অংশ
মসজিদ

স্থাপত্য
স্থাপত্য স্টাইল
মসজিদের তালিকা
অন্যান্য

মুসা খানের মসজিদ বা মুসা খাঁর মসজিদ বাংলাদেশের ঢাকা শহরে অবস্থিত ছায়া সুনিবিড়, মোগল স্থাপত্যের অনুকরণে নির্মিত মসজিদ। এটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর শহীদুল্লাহ হল ছাত্রাবাসের নিকটে ও কার্জন হলের পিছনে অবস্থিত।[১] ধারণা করা হয় যে, এই মসজিদটি ঈসা খাঁর পুত্র মুসা খান নির্মাণ করেন। ঢাকা শহরে বিনত বিবির মসজিদ এর পাশাপাশি এটি প্রাক-মুঘল স্থাপত্যের একটি নিদর্শন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল প্রাঙ্গণে শহীদুল্লাহ হলের উত্তর-পশ্চিম কোণে মুসা খাঁর মসজিদ নির্মিত হয় আনুমানিক ১৬৭৯ সালে।[২] ভৌগলিক স্থানাঙ্কে মুসা খান মসজিদের অবস্থান ২৩°৪৩′৩৬″ উত্তর ৯০°২৪′০৩″ পূর্ব / ২৩.৭২৬৬৪৭৪° উত্তর ৯০.৪০০৮০৫২° পূর্ব / 23.7266474; 90.4008052

মসজিদের পিছনে লেখা এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

নির্মাণ কৌশল[সম্পাদনা]

দৃষ্টিনন্দন এ মসজিদে রয়েছে তিনটি গম্বুজ। মসজিদটি নির্মাণ করা হয় তিন মিটার উঁচু একটি ভল্ট প্লাটফর্মের ওপর। ভল্ট প্লাটফর্মটি ১৭ মিটার দীর্ঘ ও ১৪ মিটার চওড়া।[৩] প্লাটফর্মের উপর নির্মিত মসজিদটির নিচতলায় কয়েকটি কক্ষ রয়েছে। এগুলোতে আগে মসজিদ সংশ্লিষ্টরা বাস করলেও এর সবগুলোই এখন পরিত্যক্ত। তিন গম্বুজ বিশিষ্ট মসজিদটির একটি গম্বুজে বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। ঐ ফাটল দিয়ে গত বর্ষায় বৃষ্টির পানি মসজিদের ভিতরে পড়েছে বলে জানিয়েছেন মুসল্লিরা। মসজিদের পশ্চিম ও পূর্ব প্রাচীর প্রায় ৬ ফুট পুরু। উত্তর ও দক্ষিণ প্রাচীর ৪ ফুট পুরু। চার দেয়াল, ছাদ এবং গম্বুজ— সবকিছুতেই দীর্ঘদিন ধরে শেওলা জমে কালচে হয়ে গেছে। মসজিদের দুই মূল স্তম্ভে বড় ধরনের ভাঙন সৃষ্টি হয়েছে। ইতিহাসবিদ আহমদ হাসান দানীর ‘ঢাকা:অ্যা রেকর্ড অব ইটস চেঞ্জিং ফরচুনস’ গ্রন্থে উল্লেখিত বর্ণনামতে, মসজিদটি মুসা খাঁর নামে হলেও স্থাপত্যশৈলী অনুযায়ী এটি শায়েস্তা খাঁর আমলে বা তারপরে নির্মিত হয়েছিল।[৪]

হুমকি[সম্পাদনা]

মেট্রো-রেল প্রকল্পের কারণে দেশের অন্যতম অন্যতম বিরল এই মুঘল কাঠামো হুমকির মধ্যে রয়েছে। মসজিদ সহ প্রায় ৭৫ ঐতিহাসিক গুরুত্ব স্থাপত্য মেট্রো-রেল প্রকল্পের কারণে হুমকির মুখে পড়েছে।[৫][৬]


আরও দেখুন[সম্পাদনা]

মসজিদের ভেতরের অংশ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বারোভূঁইয়াদের শেষ স্মৃতিচিহ্ন মুসা খান মসজিদ"যায়যায় দিন। ২০১৬-১০-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৭ 
  2. "মুসা খাঁর মসজিদ"NTV Online (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৬-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৭ 
  3. "ঢাবিতে বিরল স্থাপত্য মুসা খাঁ মসজিদ"Daily Nayadiganta। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৭ 
  4. Dani,, Ahmad Hasan। Dhaka : a record of its changing fortunes (৩য় সংস্করণ)। Dhaka। আইএসবিএন 978-984-33-0444-5ওসিএলসি 671240479 
  5. "Musa Khan Mosque"। Dhaka District। National Portal of the Government। ৪ জুলাই ২০১৫। ১৯ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  6. Alamgir, Mohiuddin (৪ জুলাই ২০১৫)। "Disfiguring history in the name of renovation"New Age। ১৬ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]