জোড় বাংলা মন্দির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জোড় বাংলা মন্দির
Jor Bangla Temple (1).jpg
ধরনপ্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন
অবস্থানরাধানগর,পাবনা সদর উপজেলা
অঞ্চলপাবনা জেলা
পরিচালকবর্গবাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর
মালিকবাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর
সূত্র নংBD-E-49-63

জোড় বাংলা মন্দির পাবনা জেলার পাবনা সদর উপজেলার দক্ষিন রাঘবপুরের জোড়বাংলা পাড়ায় অবস্থিত বাংলাদেশের অন্যতম একটি প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন।[১] ইহা পাবনা সদর পৌরসভার অন্তর্গত ৪ নং ওয়ার্ড এলাকায় অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

স্থানীয় জনশ্রুতি অনুসারে, জোড় বাংলা মন্দিরটি ১৮ শতকের মাঝামাঝি সময়ে নির্মাণ করা হয়েছিল। এছাড়াও এটাও প্রচলিত যে, মন্দিরটি নির্মাণ করেছিলেন, ব্রজমোহন ক্রোড়ী নামক একজন যিনি মুর্শিদাবাদ নবাবের তহশীলদার ছিলেন। তবে মন্দিরটি আবিষ্কারের সময় কোন শিলালিপি পাওয়া না যাওয়ায় এর সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানা যায় না।

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

জোড় বাংলা মন্দিরটি ইন নির্মিত একটি মঞ্চের উপর স্থাপন করা হয়েছে। উপরের পাকা ছাদটি দোচালা প্রকৃতির। মন্দিরটির সামনে তিনটি প্রবেশ পথ রয়েছে যেগুলো ২টি স্তম্ভের সাহায্য নির্মাণ করা হয়েছে। দেয়ালের নকশা ও কারুকার্যের ভিত্তিতে এটি কান্তনগর মন্দির-এর অনুরূপ স্থাপনা। ১৮৯৭ সালে ভূমিকম্পে মন্দিরটির বেশ কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।[২] বর্তমান বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর এটিকে প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান হিসেবে তালিকাভুক্ত করে সংস্কারের সংস্কারের কাজ করেছে।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]