কায়স্থ

এই পাতাটি অর্ধ-সুরক্ষিত। শুধুমাত্র নিবন্ধিত ব্যবহারকারীরাই সম্পাদনা করতে পারবেন।
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কায়স্থ
Calcuttakayasth.jpg
"কলিকাতার কায়স্থ", ১৯ শতকে প্রকাশিত একটি বই থেকে
ভাষা
বাংলা, হিন্দি, পাঞ্জাবি, মারাঠি, ওড়িয়া, অসমীয়া, মৈথিলিউর্দু
ধর্ম
Om symbol.svg হিন্দুধর্ম

কায়স্থ হল সনাতন ধর্মালম্বীদের একটি উচ্চজাতি বিশেষ। বাংলায় জাতের নিরিখে ব্রাহ্মণ এবং বৈদ্যদের ঠিক অব্যবহিত পরেই কায়স্থদের স্থান নির্ধারণ হয়ে থাকে।[১]গ্রাম বাংলায় উচ্চ জাতি বলতে "বামুন-কায়েত" শব্দ টি ব্যবহৃত হয়ে আসছে । বাংলায় ব্রাহ্মণ, বৈদ্য ও কায়স্থদের তিন উচ্চজাতি হিসেবে গণ্য করা হয়।

কায়স্থ বলতে লেখক, উচ্চপদস্থ রাজকর্মচারীদের বোঝাতো, কালক্রমে সেই পেশা বংশানুক্রমিক হয়ে একটি স্বতন্ত্র জাতিতে পরিণত হয়।

ইতিহাস

কায়স্থ হিন্দু সনাতন ধর্মের একটি উপবর্ণ বিশেষ। নব থেকে একাদশ শতকে কায়স্থরা বঙ্গদেশে একটি উপবর্ণ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। প্রাচীন লিপিতে কায়স্থ নামে পরিচিত এক শ্রেণির উচ্চপদস্থ রাজকর্মচারীর উল্লেখ পাওয়া যায়। প্রাচীনকালে মহাকায়স্থ, সিন্ধুরকায়স্থ ইত্যাদি শব্দ বলতে বিভিন্ন পদাধিকারিকদের বোঝাতো। একাদশ শতকের কোষকার বৈজয়ন্তী তাদের লেখক বলে উল্লেখ করেছেন। কায়স্থ শব্দটি কোথাও লেখক, কোথাও হিসাবরক্ষক আবার কোথাও ভিন্ন অর্থেও ব্যবহৃত হয়েছে।

কায়স্থরা গুণ ও কর্মের হিসাবে রক্ষক। তারা চিত্রগুপ্তকে তাদের আদিপুরুষ মনে করে। হিন্দু সমাজে কায়স্থদের স্থান ব্রাহ্মনের ঠিক পরেই। ইংরেজ আমলে কায়স্থদের বাংলার উচ্চজাতি হিসেবে গণ্য করা হয়। বাংলার রাজা, জমিদার দের মধ্যে কায়স্থ ছিল। পাল, সেন, মুসলিম ও ইংরেজ আমলে কায়স্থরা শিক্ষার সুবাদে উচ্চপদে আসীন থেকে শিক্ষা, সাহিত্য, শিল্প, অর্থনীতি ও সমাজ উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব

আধ্যাত্মিক

অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব

  • গোপীনাথ বসু
  • গুনাকর বসু
  • অরবিন্দ ঘোষ
  • নবকৃষ্ণ দেব
  • রাধাকান্ত দেব
  • কালীপ্রসন্ন সিংহ
  • রাধাগোবিন্দ কর
  • নীলরতন সরকার
  • উল্লাসকর দত্ত
  • বারীন ঘোষ
  • দীনবন্ধু মিত্র
  • প্রমুখ

লেখক, কবি ও সাহিত্যিক

বিজ্ঞানী ও উদ্ভাবক

রাজনীতিবিদ, সংগ্রামী ও বিপ্লবী

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব

তথ্যসূত্র