গৌড়ীয় নৃত্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বঙ্গীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য
গৌড়ীয় নৃত্য পরিবেশনরত মহুয়া মুখোপাধ্যায়
গৌড়ীয় নৃত্য

গৌড়ীয় নৃত্য অথবা গৌড় নাচ, একধরনের ভারতীয় বাঙালি ঐতিহ্যগত শাস্ত্রীয় নৃত্যকলা।[১][২][৩] এই নৃত্যকলাটি প্রাচীন বঙ্গের রাজধানী গৌড়ে উৎপন্ন।[৪]

বাঙালি নৃত্যশিল্পী মহুয়া মুখোপাধ্যায় এই গৌড়ীয় নৃত্যের পুনঃনির্মাণ করেছেন।[৩][৫] তবে এই নৃত্যকলাটি সঙ্গীত নাটক আকাদেমি কর্তৃক ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য হিসেবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত নয়।[৫] কিন্তু এর অধ্যয়নে ভারতের সংস্কৃতি মন্ত্রক থেকে বৃত্তি দেয়া হয়।[৬]ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য নিয়ে গবেষণা করলে ভারতের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় কর্তৃক বৃত্তি প্রদান করা হয়।[৭] পুনর্গঠনের ভণ্ডামি বিষয় সন্দেহ দূর করার জন্য যা করা হয় । [৮][৯][১০][১১] এ নৃত্য নাটক,  কবিতা, রং ও ছন্দ নিয়ে তৈরি।[১২]

নামকরণ[সম্পাদনা]

১৯৯৪ সালের ২১ সেপ্টেম্বর মহুয়া মুখোপাধ্যায় ও ব্রতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় এ নৃত্যকলার নাম গৌড়ীয় নৃত্য রাখেন।[১৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এ নৃত্যের বয়স দুহাজার বছরের চেয়ে ও বেশি।৪র্থ হতে ১৮ শতকে বাংলায় গৌড়ীয় নৃত্যের কথা জানা যায়।[১৪] ভরতনাট্যশাস্ত্র নামক গ্রন্থে এ সম্পর্কে বিস্তারিত বলা হয়েছে।

তুর্কি ,বর্গী ও অন্য বিদেশী আক্রমণ ও শাসনের ফলে এ নৃত্যধারা বিলুপ্ত হয়ে যায়।চন্দ্রকেতুগড়ে পাওয়া প্রত্নসামগ্রীতে ,বর্ধমানের দেওলিয়ার মন্দির ও বেগুনিয়া মন্দির, বিষ্ণুপুরের জোড় বাংলা মন্দির,টেরাকোটা মন্দির ও শ্য়া‌ম মন্দিরের গায়ের ভাস্কর্যে এই নৃত্যের দেখা পাওয়া গেছে।পাল যুগের চিত্রে, চর্যাপদ ,গীতগোবিন্দ , মঙ্গলকাব্যে ও একে দেখা যায়। পণ্ডিত শুভঙ্কর লাহিড়ী সংগীতদামোদর ও শ্রীহস্তমুক্তাবলীতে এর উল্লেখ করেছেন। বাংলার গ্রামীণ গুরুপরম্পরা ধারা দ্বারা এ নৃত্য অনুপ্রাণিত হয়েছে। শাশ্বত তার এই পথ পরিক্রমা। গৌড়ীয় নৃত্যের সাথে ভাব-রস সাহিত্যের সম্পর্ক আছে।[১৫]

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

গৌড়ীয় নৃত্যের মূল নটরাজ শিব। নৃত্যরত গণেশ, বিষ্ণুকে ও এতে দেখা যায়।[১৬] বাংলার নটরাজকে নর্ত্যেশ্বর বলা হয়।এই নটরাজের চার হাত, দশহাত বা বারো হাত হয়।শিবকে নন্দীর উপরে ললিত আনন্দ তান্ডব ভঙ্গিতে নাচতে দেখা যায়।[১৭]

ধরণ[সম্পাদনা]

বন্দনা[সম্পাদনা]

গৌড়ীয় নৃত্যে অনেক বন্দনা নৃত্য আছে।[১৮] চণ্ডীবন্দনা,কৃষ্ণবন্দনা যার মধ্যে অন্যতম।[১৯]

আলাপচারী[সম্পাদনা]

এর মানে রাগ সারগাম এর সাথে পরিচিত হওয়া ও চলন। এটি তাল সম্পর্কিত। এটি এক ধরনের রাসনৃত্য।

মহাজনপদ নৃত্য[সম্পাদনা]

মিশ্র রাগ ও তাল নিবদ্ধ গানে এ ধরনের নৃত্য হয়।

অষ্টপদী নৃত্য বা নামাবলী[সম্পাদনা]

এতে শুদ্ধবঙ্গাল রাগ ও দাশপাহাড়ী তালে শিবের ভিন্ন ভিন্ন নাম নিয়ে নৃত্য করা হয়।

পালানৃত্য[সম্পাদনা]

এতে একক বা একাহার্য নৃত্য করা হয়।এতে ঠাকুর দেবতার লীলা শ্রীকৃষ্ণের পুতনাবধের লীলাকীর্ত্তন করে এ নৃত্য করা হয়।[২০]

বিখ্যাত নৃত্যশিল্পী[সম্পাদনা]

আরও[সম্পাদনা]

তথ্য়সূত্র[সম্পাদনা]

  1. Roma Chatterji (2005). Folklore and the Construction of National Tradition ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে. Indian Folklife 19 (Folklore Abroad: On the Diffusion and Revision of Sociocultural Categories): 9. Accessed January 2014. "a classical dance tradition that has vanished from the urban areas".
  2. "West Bengal Tourism: Dance"। Department of Tourism, Government of West Bengal। ২০১১। ২১ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০১৪ 
  3. Bharatram, Kumudha (এপ্রিল ৯, ২০১১)। "Dance of the ancients"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৫, ২০১৩ 
  4. মুখোপাধ্যায়, মহুয়া (২০০০)। গৌড়ীয় নৃত্য। পার্ক স্ট্রিট, কলকাতা: দি এশিয়াটিক সোসাইটি। 
  5. Rajan, Anjana (ডিসেম্বর ২৬, ২০০৬)। "The wheel has come full circle"The Hindu। নভেম্বর ৮, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৬, ২০১৬ 
  6. "Scholarship to Young Artistes"web.archive.org। ২০১৩-১০-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৮ 
  7. "Scholarship to Young Artistes, 2005"Ministry of Culture. Government of India। ২১ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০১৬ 
  8. Utpal Kumar Banerjee (2006). Indian performing arts: a mosaic. New Delhi: Harman Publishing House. আইএসবিএন ৯৭৮৮১৮৬৬২২৭৫৯. p. 79: "re-creating Gaudiya Nritya as one of the acceptable classical styles will need a formal framework".
  9. Leela Venkataraman (2006). Negotiating the Extremes: dance. India International Centre Quarterly, 33 (1): 93-102. (সদস্যতা প্রয়োজনীয়) "one may have reservations about the classical dance repertoire visualised by [Mukherjee]".
  10. Roma Chatterji (2005). p. 9: "Mukherjee tries to reconstitute a Bengali aesthetic within the perspective of pan-Indian civilisation".
  11. Susan Leigh Foster (2009). Worlding dance: Studies in international performance. Basingstoke; New York: Palgrave Macmillan. আইএসবিএন ৯৭৮০২৩০২০৫৯৪৯. p. 125: "I urgently distance my project from that of Kolkata-based scholar, Mahua Mukherjee".
  12. "মধ্যযুগের বাংলার রাজধানী গৌড় থেকে গৌড়ীয় নৃত্য"archive1.ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  13. "নৃত্যে নন্দিতা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  14. "বাংলার বুকে গৌড়ীয় নৃত্য তার প্রবল অস্তিত্বের জানান দিয়ে গেল"Exclusive Adhirath (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৯-১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  15. http://www.eswastika.com/PUJA2010/27.pdf
  16. Mitrayan Institute of Dance & Research :: Garfa Mitrayan (২০০৯-১১-০৭)। "Ganesh Vandana : Gaudiya Nritya (Classical Dance Of Bengal), Performed by Mitrayan" 
  17. "গৌড়ীয় নৃত্যের শিল্পমুগ্ধতা"print.thesangbad.net (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  18. দাশগুপ্ত, শর্মিষ্ঠা। "গৌড়ীয় নৃত্যের আঙ্গিকে"anandabazar.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  19. "গৌড়ীয় নৃত্য"bartamanpatrika.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  20. "শিল্পকলায় চর্যানৃত্য এবং বাংলার শাস্ত্রীয়-গৌড়ীয় নৃত্য পরিবেশনা"bangla.jagoroniya.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-০৮ 
  21. Dec 1, TNN; 2018; Ist, 18:47। "Confluence of Indian dance forms"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-২২ 
  22. "গৌড়ীয় নাচে র‌্যাচেল প্রিয়াঙ্কা"প্রিয়.কম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-২২ 
  23. "শারদীয় দুর্গোৎসবের নাচ–গান–নাটকে তারকারা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-২২ 
  24. "'I want to popularise Gaudiya Nritya'"New Age Bangladesh (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-২২ 
  25. Indiablooms। "Gaudiya Nritya dancer Satabdi Acharyya talks about her experiences and the future"Indiablooms.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]