বৈশ্য কপালী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বৈশ্য কপালী
ধর্মীয় বিশ্বাস হিন্দু
ভাষা বাংলা
জনবহুল অঞ্চল পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশ

বৈশ্য কপালী (ইংরেজি: Baishya Kapali) সাধারণত কপালী নামে পরিচিত, যারা বাঙ্গালি হিন্দু কৃষিজীবী শ্রেণীর অর্ন্তভূক্ত। এই গোষ্ঠীর বিস্তার মূলত বাংলাদেশ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। ১৯৬০ সাল থেকে তারা "বৈশ্য কাপালী" নামটি নিজেদের জাতির নাম হিসেবে ব্যবহার করা শুরু করে, যা নিয়ে এখন পর্যন্ত একটি দ্বন্দ্ব রয়েছে। কপালীরা সাধারণত পাট উৎপাদনে পারদর্শী যার দ্বারা চটের ব্যাগ উৎপাদন করা হয়। ভারতের পশ্চিমবঙ্গে কাপালীদের অন্যান্য অনগ্রসর জাতি শ্রেণীর তালিকাভুক্ত করা হয়।[১][২]

উৎপত্তি[সম্পাদনা]

রিসলে কাপালিদের "পূর্ব বাংলার একটি চাষী ও বয়নকারী জাতি হিসাবে উল্লেখ করেছেন, যারা নিজেকে একজন কর্মকার পিতা এবং একজন তেলি মায়ের সন্তান বলে দাবি করেন"।[৩] পাল সাম্রাজ্যের আমলে কাপালী, ডোম, চন্ডালদের সাথে একটি গোষ্ঠী হিসেবে উল্লেখ করা হয়। জ্যোতির্ময় শর্মা মনে করেন, কাপালীদের সামাজিক সম্মান ডোম এবং চন্ডালদের থেকে উপরে।[৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কাপালীরা দাবি করে যে তারা চন্ডাল এবং সাহা জাতির থেকে উচ্চ মর্যাদার অধিকারী। সৎশুদ্রের বংশধর হওয়ায় ফলে খাঁটি ধোপা ও নাপিতরা তাদের জন্য কাজ করে। বৈশ্য মর্যাদা দাবির জন্য তারা "বৈশ্য কাপালী" নামটি ব্যাবহার করতে শুরু করেন। মাঝি, মন্ডল, সিকদার, মালা, হালদার এই পদবী গুলি কাপালীদের মধ্যে পাওয়া যায়। সরকার মনে করেন জাতিটি অনুভূমিক ভাবে সুস্পট এবং সংগঠনিক শ্রেণীতে বিভক্ত। কুলিন প্রথাও এই জাটিতির মধ্যে দেখা যায়।[৫][৬]

পাটের আঁশ ছাড়ানোর দৃশ্য

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

  • পাট

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Sarkar, Prasenjit (২০১৭)। "Multiple Identities of the Kapalis of Bengal: An Ethnohistorical Perspective"Anthropos112 (1): 282–289। আইএসএসএন 0257-9774 
  2. "List of Other Backward Classes (O.B.C.) Recognized by Govt. of West Bengal" (PDF)। ১৩ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  3. Rao, K. S. Krishna (২০০৮)। Global Encyclopaedia of the Brahmana Ethnography (ইংরেজি ভাষায়)। Global Vision Publishing House। আইএসবিএন 978-81-8220-208-5 
  4. Sarma, Jyotirmoyee (১৯৮০)। Caste Dynamics Among the Bengali Hindus (ইংরেজি ভাষায়)। Firma KLM। আইএসবিএন 978-0-8364-0633-7 
  5. Saha, Sanghamitra (১৯৯৮)। A Handbook of West Bengal (ইংরেজি ভাষায়)। International School of Dravidian Linguistics। আইএসবিএন 978-81-85692-24-1 
  6. Sarkar, Prasenjit; Mukherjee, D. P. (২০১০)। "Patterns of Marriage among a Hindu Caste Population of the Southern Part of West Bengal, Bordering Bangladesh"Anthropos105 (2): 583–587। আইএসএসএন 0257-9774