ইসতিসকার নামাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইসতিসকার নামাজ
আনুষ্ঠানিক নামصلاة الاستسقاء
অন্য নামঅনাবৃষ্টির নামাজ, বৃষ্টির নামাজ
পালনকারীমুসলমান
ধরনইসলামি
তাৎপর্যবৃষ্টির অনুরোধ করে প্রভুর কাছে মুসলিমদের একটি প্রার্থনা
পালনসুন্নত নামাজ
শুরুদুহা
সমাপ্তিসুবিন্দু - দ্বিপ্রহর
সংঘটনমাঝেমধ্যে
সম্পর্কিতনামাজ, নফল নামাজ, ইসলামের পঞ্চস্তম্ভ

ইসতিসকার নামাজ বা বৃষ্টির নামাজ (আরবি: صلاة الاستسقاء; সালাত ṣalāt al-istisqa, "বৃষ্টির অনুরোধ প্রার্থনা") হল একটি সুন্নাহ নামাজ (ইসলামি প্রার্থনা) আল্লাহর কাছে বৃষ্টির পানির জন্য দোয়া ও প্রার্থনার জন্য।[১]

পটভূমি[সম্পাদনা]

মুসলিম ভবিষ্যদ্বাণীমূলক ঐতিহ্য থেকে জানা গেছে যে একটি বিশেষ ব্যতিক্রমী সময়ে, যখন দীর্ঘকাল ধরে অনাবৃষ্টি ছিল; তখন একজন ব্যক্তি মুহাম্মাদ (সা:) এর কাছে আসেন যখন তিনি মসজিদে নববীতে জুম'আর নামাজের খুতবা প্রদান করছিলেন। তিনি তাকে বৃষ্টিপাতের জন্য প্রার্থনা করতে অনুরোধ করেন। কারণ মানুষ, ক্ষেত-খামার, গবাদি পশু এবং বাগান পানির অভাবে ভুগছিল। জবাবে মুহাম্মাদ দোয়ার জন্য তার হাত তুলেছিলেন এবং আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছিলেন যাতে বৃষ্টি হয়।[২]

এরপর তার প্রার্থনার উত্তর দেওয়া হয় এবং মুষলধারে বৃষ্টি পুরো দিন ধরে চলেছিল। তখন মুহাম্মাদ (সা:) আবার আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছিলেন এবং বৃষ্টিপাত বন্ধ করার জন্য দোয়া করেছিলেন। কারণ সেখানে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে ক্ষতি হচ্ছিল।[৩]

অন্য একটি এমনই উপলক্ষ্যে মুহাম্মাদ (সা:) দিনের আলোতে মসজিদ থেকে বের হয়ে পূর্ববর্তীদের সাহাবিদের সাথে একটি সমতল ভূমিতে গিয়েছিলেন এবং বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেছিলেন। তারপর সূরা ফাতিহার সাথে জামায়াতে দুই রাকাত নামাজ আদায় করেছিলেন। নামাজে কেরাত জোরে পাঠ করেছিলেন, যেমন জুম'আর নামাজে করা হয়।[৪]

আচার[সম্পাদনা]

দুআয় হাত তুলেছেন এক মুসলিম

মুসলিম কৃষি সমাজে, অনাবৃষ্টির মতো বিপর্যয়ের সময়ে ইমামকে বৃষ্টিপাতের জন্য ঈশ্বরকে রাজি-খুশি করার আশায় সম্প্রদায়কে আধ্যাত্মিক সাহায্য চাইতে বলা হয়।[৫]

প্রকৃতপক্ষে মুসলিম কৃষকরা বৃষ্টিকে একটি মহান ঐশ্বরিক আশীর্বাদ হিসাবে বিবেচনা করে এবং যতবার বৃষ্টি হয়, লোকেরা আনন্দ করে এবং সর্বশক্তিমান ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানায়।[৬]

এই মুসলিম কৃষকদের প্রধানত কৃষির উপর নির্ভর করে তাদের জীবিকা নির্বাহ করে। সময়মতো বৃষ্টি হলে পর্যাপ্ত ফসল উৎপাদিত হয় না, এবং এটি অনেক উদ্বেগ ও উদ্বেগের কারণ হয়।[৭]

অনুশীলন[সম্পাদনা]

এই প্রার্থনা করার জন্য নির্ধারিত দিনে, মসজিদের ইমাম বিশ্বস্তদেরকে তার সাথে সম্মিলিতভাবে এই আচার পালনের জন্য একত্রিত করেন যাতে ঈশ্বরের কাছে তাদের কৃষি মৌসুম এবং মানুষের পানীয়ের প্রয়োজন এবং ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধির জন্য পর্যাপ্ত বৃষ্টি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়।[৮]

এই প্রার্থনা অনুষ্ঠানটি মসজিদের বাইরে একই খোলা জায়গায় অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে একই নীতি অনুসারে বছরে দুটি ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "صلاة الاستسقاء" 
  2. Ali, Maulana Muhammad (১৪ এপ্রিল ২০১৫)। The Religion of Islamআইএসবিএন 9781934271186 
  3. Nur Mohammed, Bakheit M. (২০১৭)। The Religious Men in Jebel Marra: The Process of Learning and the Performance of Islamic Rituals and Practicesআইএসবিএন 9783643909169 
  4. Frank, Allen J. (জানুয়ারি ২০০১)। Muslim Religious Institutions in Imperial Russia: The Islamic World of Novouzensk District and the Kazakh Inner Horde, 1780-1910আইএসবিএন 9004119752 
  5. Saqib, Muhammad Abdul Karim (১৩ এপ্রিল ২০১৫)। "A Guide to Salat (Prayer) in Islam" 
  6. Shammsuddin, Khawaja (২২ অক্টোবর ২০১৭)। Baran-e-Rahmat - the Rain of Mercy Part 1আইএসবিএন 9781326258085 
  7. Schimmel, Annemarie (১৪ মে ১৯৯২)। Islam: An Introductionআইএসবিএন 9780791413289 
  8. Stilt, Kristen (১২ জানুয়ারি ২০১২)। Islamic Law in Action: Authority, Discretion, and Everyday Experiences in Mamluk Egyptআইএসবিএন 9780191629822 
  9. Diem, Werner; Schöller, Marco (২০০৪)। The Living and the Dead in Islam: Epitaphs as textsআইএসবিএন 9783447050838