বিবি পাক দামান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বিবি পাক দামান মাজারের সামনের দৃশ্য

বিবি পাক দামান (উর্দু): হযরত রোকেয়া বিনতে আলীর পবিত্র সমাধিস্থল যা পাকিস্তানের লাহোর পাঞ্জাবে অবস্থিত।[১]

ঐতিহাসিকদের মতে এখানে হযরত মুহাম্মদ(দঃ) এর পরিবারেরর (আহলে বায়াত) ছয়জন মহিলার সমাধি রয়েছ। রোকেয়া বিনতে আলী হযরত মুহাম্মদ(দঃ) এর চাচাত ভাই এবং জামাতা আলী ইবনে আাবি তালিব এর কন্যা ছিলেন। রোকেয়া বিনতে আলী হযরত আল-আব্বাসস ইবনে আলীর আপন বোন এবং হযরত মুসলিম ইবনে আকীলের স্ত্রী ছিলেন।[২] মুসলিম ইবনে আকীল ইসলামের বার ইমামের তৃতীয় ইমাম হযরত হোসাইন ইবনে আলীর গুপ্তচর ছিলেন যাকে তিনি কুফায় নিযুকৃত করেছিলেন।

বিবি পাক দামান, যার অর্থ “ পবিত্র মহিলা”, হল ছয়জন মহিলা যাদের এই সমাধিতে সমাধিত করা হয়েছে বলে বিশ্বাসস করা হয় তাদের সম্মিলিত নাম, যদিও এটি জনমুখে রোকেয়া বিনতে আলীর সমাধি বলে অধিক প্রচারিত হয়েছে (ভুলক্রমে)।[৩] ইসলাম ধর্ম প্রচার করার জন্য যে সকল মহিলা দক্ষিণ এশিয়ায় এসেছিলেন এই ছয়জন মহিলা তাদের অন্যতম ছিলেন। তারা পাকিস্তানের লাহোরের নিকটস্থ শহরতলীতে ইসলাম ধর্ম প্রচার প্রসার সংক্রান্ত কাজে নিয়োজিত ছিলেন। কথিত আছে যে দাতা গঞ্জ বখশ, দক্ষিণ এশিয়ার বিশিষ্ট সুফি সাধক হিসেবে বিবেচিত, নিজেই বিবি পাক দামান মাজারের অনুরাগী ছিলেন। [৩] এবং এই মহিমান্বিত মাজার শরীফ থেকে প্রচুর আধ্যাত্বিক জ্ঞান অর্জন করেছেন। কতিপয় ঐতিহাসিক রোকেয়াকে ছৈয়দ আহমেদ তখতার (দ্বাদশ শতাব্দী) কন্যা বলে মনে করেন। বিবি পাক দামান মাজারটি গর্হি শাহু এবং রেলওয়ে স্টেশনের মাঝে অবস্থিত। ইমপ্রেস ররোড থেকে খুব সহজেই বিবি পাক দামান মাজারে যাওয়া যায় এবং সেখান থেকে পুলিশ লাইনের বিপরীতে ছোট রাস্তা ধরে রাাস্তার বাম পাশের প্রথম মোড়েই মাজারটি অবস্থিতত। বর্তমানে পাকিস্তান সরকার বিবি পাক দামান মাজারটির সম্প্রসারণের বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ঐতিহাসিকদের দেয়া তত্ত্ব থেকে সাতজন মহিলা ও চারজন পুরুষের নাম পাওয়া যায়,[৪]। এটিও পাওয়া যায় যে রোকেয়া ননিজের পরিচয় দিয়েছেন এভাবে, “আমি একজন শহীদের বিধবা, আলীর কন্যা এবং হোসাইনী সেনাবাহিনীরর সেনাপতি আাব্বাসের বোন এএবং অন্য পঁাচজন মহিলা আমার আত্মীয় ছিলেন, আরেকজন যার নাম ছিল “হালিমা” তিনি আমাদের দাসী ছিলেন কিন্তু পদমর্যাদায় আমাদের মতই ছিলেন। তিনি অপরাপর চারজন পুরুষের পরিচিতিও দিয়েছেন যারা তাদের দেহরক্ষী এবং নিজ সম্প্রদায়ভুক্ত ছিলেন, তাদের ননাম হল (১) আব্ব-উল-ফাতাহ (২) আব্ব-উল-ফজল (৩) আব্ব-উল-মুকারম, এবং (৪) আব্দুল্লাহ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Syad Muhammad Latif, Lahore: its history, architectural remains and antiquities: with an account of its modern institutions, inhabitants, their trade customs, Syed Muhammad Minhaj-ud-Din, 1957, ... Beyond the Government House, at a distance of three hundred yards from the main road, is the tomb of Bibi Pak Daman, or the chaste lady, the most venerated old monument in Lahore and its vicinity. The name of this lady was Rukia ... 
  2. Zaidi, Noor (জুলাই ২৪, ২০১৪)। "A Blessing on Our People": Bibi Pak Daman, Sacred Geography, and the Construction of the Nationalized Sacred"। Publication History, University of Pennsylvaniadoi:10.1111/muwo.12057 
  3. Shemeem Burney Abbas, The female voice in Sufi ritual: devotional practices of Pakistan and India, University of Texas Press, 2002, আইএসবিএন 978-0-292-70515-9, ... Among the women who brought Islam to the subcontinent are the Bibi Pak Daman, or the Pur Women ... Upon arrival in Lahore, they engaged in missionary activity ... Data Ganj Bakhsh Hujwiri ... was a devotee of the shrines of the Bibi Pak Daman ... 
  4. Ali Hussain Rizvi (২০০৬)। History of Shiyan-e-Ali (PDF) (Urdu ভাষায়) (2nd সংস্করণ)। Karachi(Pakistan): Imamia Academy। পৃষ্ঠা 734–737।