পূর্ব তিমুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Democratic Republic of Timor-Leste
Repúblika Demokrátika Timór Lorosa'e
República Democrática de Timor-Leste
পতাকা কোট অফ আর্মস
নীতিবাক্যUnidade, Acção, Progresso
(Portuguese: "Unity, Action, Progress")
জাতীয় সঙ্গীত: Pátria
রাজধানী দিলি
৮°৩৪′ দক্ষিণ ১২৫°৩৪′ পূর্ব / ৮.৫৬৭° দক্ষিণ ১২৫.৫৬৭° পূর্ব / -8.567; 125.567
বৃহত্তম শহর capital
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ Tetum and Portuguese1
জাতীয়তাসূচক বিশেষণ East Timorese
সরকার Parliamentary republic
 •  President José Ramos Horta
 •  Prime Minister Xanana Gusmão
Independence from Portugal²
 •  Declared November 28, 1975 
 •  Recognized May 20, 2002 
 •  মোট ১৫ কিমি (158th)
৫ বর্গ মাইল
 •  পানি (%) negligible
জনসংখ্যা
 •  July 2005 আনুমানিক 947,000 (155th)
 •  ঘনত্ব 64/কিমি (132nd)
১৬৬/বর্গ মাইল
জিডিপি (পিপিপি) 2005 আনুমানিক
 •  মোট $1.68 billion (206)
 •  মাথা পিছু $800 (188)
এইচডিআই (2004) 0.513
নিম্ন · 142nd
মুদ্রা U.S. Dollar³ (USD)
সময় অঞ্চল (ইউটিসি+9)
কলিং কোড 670
ইন্টারনেট টিএলডি .tl4
১. Indonesian and English are recognised by the Constitution as "working languages".
২. Indonesia invaded East Timor on December 7, 1975 and left in 1999.
৩. Centavo coins also used.
৪. .tp is being phased out.

পূর্ব তিমুর (তেতুম ভাষায়: Timór Lorosa'e তিমোর্‌ লোরোসা'এ, পর্তুগিজ ভাষায়: Timor-Leste তিমোর্‌ ল্যেশ্ত্যি আ-ধ্ব-ব: [ti'moɾ 'lɛʃtɨ]) দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি রাষ্ট্র। তিমুর দ্বীপের পূর্ব অর্ধাংশ নিয়ে এটি গঠিত। এর উত্তরে ওয়েটার প্রণালী এবং দক্ষিণে তিমুর সাগর। দ্বীপের পশ্চিম অংশ ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব নুসা তেঙ্গাররা প্রদেশের অন্তর্গত। ১৬শ শতকের শুরু থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত পূর্ব তিমুর একটি পর্তুগিজ উপনিবেশ ছিল। ইন্দোনেশিয়া ১৯৭৬ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত এটিকে একটি প্রদেশ হিসেবে দাবী করে। ১৯৯৯ সালের আগস্ট মাসে পূর্ব তিমুরের জনগণ একটি গণভোটের মাধ্যমে স্বাধীনতার পক্ষে রায় দেয়। পূর্ণ স্বাধীনতা লাভের আগ পর্যন্ত এটিকে জাতিসংঘের অধীনে রাখা হয়। ২০০২ সালের মে মাসে এটি একটি সম্পূর্ণ স্বাধীন প্রজাতন্ত্রে পরিণত হয়। এর নাম রাখা হয় República Democrática de Timor-Leste বা গণপ্রজাতন্ত্রী পূর্ব তিমুর। উত্তর উপকূলে অবস্থিত বন্দর শহর দিলি দেশটির রাজধানী।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৭৫ সাল পর্যন্ত এ দ্বীপটি পর্তুগাল এর একটি উপনিবেশ ছিলো। ১৯৭৫ সালে ইন্দোনেশিয়া এ দ্বীপটি দখল করে নেয়।সেই থেকে দ্বীপটি তে চরম সহিংসতা উত্তেজনা ও অসন্তোষ বিরাজ করছিলো।অবশেষে ১৯৯৯ সালের ৩০ আগস্ট জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে স্বাধীনতা প্রশ্নের গণভোট অনুষ্ঠিত হয় এবং গণভোটে ৭৮.৫% ভোট স্বাধীনতার পক্ষে যায়। ১৪ এপ্রিল ২০০২ রাষ্ট্রপতি নিরবাচনে বিজয়ী আলেকজান্ডার হোসে জানানা গুসামাও রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নেয়। ২০০১ এর ৩০ আগস্ট অনুষ্ঠিত প্রথম সংসদীয় নির্বাচনে স্বাধীনতাকামী দল ফ্রেটিলিন দেশটির আইন সভার ৮৮ আসনের ৫৫ টি আসনে জয়ী হয়। প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন আল কাতিরি।

রাজনীতি[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক অঞ্চলসমূহ[সম্পাদনা]

ভূগোল[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]