প্রজাতন্ত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

একটি প্রজাতন্ত্র হল এমন একটি সরকার ব্যবস্থা যেখানে সর্বোচ্চ ক্ষমতা ভোগ করে জনগণ বা জনগণের একাংশ।[১][২] কোনো রাজা বা রানি এই জাতীয় সরকার ব্যবস্থায় সরকার প্রধানের পদটি পেতে পারেন না।[৩][৪] ইংরেজি ভাষায় "প্রজাতন্ত্র" শব্দের প্রতিশব্দ "republic" এসেছে লাতিন শব্দবন্ধ res publica শব্দবন্ধটি থেকে, যার আক্ষরিক অর্থ "জনগণ-সংক্রান্ত একটি বিষয়"।

প্রাচীন ও আধুনিক প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্রগুলি নিজস্ব আদর্শ ও গঠন অনুযায়ী ভিন্ন ভিন্ন প্রকৃতির হয়ে থাকে। সাধারণত রাজশক্তি-বিহীন রাষ্ট্রকেই প্রজাতন্ত্র বলা হয়।[৩][৪] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রফ্রান্সে শাসনবিভাগ সংবিধান ও সাধারণ ভোটাধিকার, উভয়ের দ্বারাই বিধিবদ্ধ হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জেমস ম্যাডিসন প্রজাতন্ত্র-কে গণতন্ত্রের সঙ্গে তুলনা করে[৫] দেখিয়েছেন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রগুলির রাষ্ট্রপ্রকৃতির জন্য গণতন্ত্রের চাহিদাই বেশি। মন্তেস্কুর মতে, গণতান্ত্রিক দেশে সকল নাগরিক শাসনকার্যে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু অভিজাততন্ত্রে কেবলমাত্র মুষ্টিমেয় কিছু মানুষ শাসনকার্যে অংশ নেওয়ার সুযোগ পান।[৬] আধুনিক রাষ্ট্রবিজ্ঞানে প্রজাতন্ত্রবাদকে গণ গুণাগুণ-ভিত্তিক এবং উদারনীতিবাদ প্রভৃতি আদর্শগুলি থেকে পৃথক একটি নির্দিষ্ট আদর্শ মনে করা হয়।[৭]

প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্রগুলি সাধারণত সার্বভৌম রাষ্ট্র হয়ে থাকে। তবে অনেক উপ-রাষ্ট্রীয় অঞ্চলও (যেখানে "প্রজাতান্ত্রিক" ধাঁচের সরকার ব্যবস্থার প্রবর্তিত) প্রজাতন্ত্র নামে চিহ্নিত হয়ে থাকে। উদাহরণস্বরূপ, মার্কিন সংবিধানের চার নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, "যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যেক অঙ্গরাজ্যে প্রজাতান্ত্রিক ধাঁচের সরকার গঠন নিশ্চিত" করা হয়েছে।[৮] অতীতে সোভিয়েত ইউনিয়ন ছিল একাধিক বিচ্ছিন্ন ও নামসর্বস্ব সার্বভৌমত্ব-প্রাপ্ত সোভিয়েত সোশ্যাল রিপাবলিক নিয়ে গঠিত একটি অখণ্ড দেশ।

নিকোলো মেকিয়াভেলি তাঁর ডিসকোর্সেস অন লিভি গ্রন্থে প্রজাতান্ত্রিক আদর্শের শাসনব্যবস্থা ও মূল গঠনশৈলীটি ব্যাখ্যা করেছিলেন। এই ব্যাখ্যা এবং তাঁর সমসাময়িক লিওনার্দো ব্রুনি প্রমুখের রচনা থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের প্রজাতন্ত্রবাদ নামক শাখাটির উৎপত্তি ঘটে।[৯][১০]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Montesquieu, The Spirit of the Laws (1748), Bk. II, ch. 1.
  2. "Republic"। Encyclopedia Britannica 
  3. ৩.০ ৩.১ {{{author}}}, republic, Dictionary.com, {{{date}}}.
  4. ৪.০ ৪.১ "Republic"Merriam-Webster। সংগৃহীত August 14, 2010 
  5. Hamilton, Alexander; Madison, James; Jay, John (1999)। "Fed. 10"। in Clinton Rossiter। The Federalist Papers। New York: Mentor Books। 
  6. Montesquieu, Spirit of the Laws, Bk. II, ch. 2–3.
  7. John W. Maynor. Republicanism in the modern world. Wiley-Blackwell, 2003.
  8. Constitution of the United States.
  9. Pocock, J.G.A. The Machiavellian Moment: Florentine Political Thought and the Atlantic Republican Tradition (1975; new ed. 2003)
  10. Haakonssen, Knud. "Republicanism." A Companion to Contemporary Political Philosophy. Robert E. Goodin and Philip Pettit. eds. Cambridge: Blackwell, 1995.

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Martin van Gelderen & Quentin Skinner, eds., Republicanism: A Shared European Heritage, v1, Republicanism and Constitutionalism in Early Modern Europe, Cambridge: Cambridge University Press., 2002
  • Martin van Gelderen & Quentin Skinner, eds., Republicanism: A Shared European Heritage, v2, The Values of Republicanism in Early Modern Europe, Cambridge: Cambridge U.P., 2002
  • Frédéric Monera, L'idée de République et la jurisprudence du Conseil constitutionnel — Paris: L.G.D.J., 2004 FNAC.com, LGDJ.fr
  • James Hankins, "Exclusivist Republicanism and the Non-Monarchical Republic," Political Theory 38.4 (August 2010), 452-482.