জেমস লিলিহোয়াইট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
জেমস লিলিহোয়াইট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম জেমস লিলিহোয়াইট জুনিয়র
জন্ম (১৮৪২-০২-২৩)২৩ ফেব্রুয়ারি ১৮৪২
ওয়েস্টহ্যাম্পনেট, সাসেক্স, ইংল্যান্ড
মৃত্যু ২৫ অক্টোবর ১৯২৯(১৯২৯-১০-২৫) (৮৭ বছর)
চিচেস্টার, সাসেক্স, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরন বামহাতি
বোলিংয়ের ধরন বামহাতি স্লো-মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ )
১৫ মার্চ ১৮৭৭ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট ৪ এপ্রিল ১৮৭৭ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
১৮৬২-১৮৮৩ সাসেক্স
আম্পায়ারিং তথ্য
টেস্ট আম্পায়ার ৬ (১৮৮১–১৮৮৯)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৫৬
রানের সংখ্যা ১৬ ৫৫২৩
ব্যাটিং গড় ৮.০০ ১৪.৩০
১০০/৫০ ০/০ ২/১২
সর্বোচ্চ রান ১০ ১২৬ *
বল করেছে ৩৪০ ৫৭,২৫৭
উইকেট ১,২১০
বোলিং গড় ১৫.৭৫ ১৫.২৩
ইনিংসে ৫ উইকেট ৯৬
ম্যাচে ১০ উইকেট ২২
সেরা বোলিং ৪/৭০ ১০/১২৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/– ১০৯/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৬

জেমস লিলিহোয়াইট (ইংরেজি: James Lillywhite; জন্ম: ২৩ ফেব্রুয়ারি, ১৮৪২ - মৃত্যু: ২৫ অক্টোবর, ১৯২৯) সাসেক্সের চিচেস্টার এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ইংরেজ ক্রিকেটার ও আম্পায়ার ছিলেন।[১] ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি স্লো-মিডিয়াম বোলার ছিলেন। এছাড়াও, বামহাতে ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত ছিলেন। ইংল্যান্ডের ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম টেস্টে অধিনায়কত্ব করার বিরল গৌরব অর্জন করেন তিনি। ১৮৭৬-৭৭ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টে দলকে নেতৃত্ব দেন। প্রথম টেস্টে ইংল্যান্ড দল পরাজিত হলেও দ্বিতীয়টিতে জিতে নেয় তাঁর দল।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সাসেক্সের ওয়েস্টহ্যাম্পনেট এলাকায় লিলিহোয়াইটের বাবা জন লিলিহোয়াইট। পেশাদারী ক্রিকেটার হিসেবে ১৮৬২ থেকে ১৮৮৩ সময়কালে সাসেক্সের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। ১৮৮৫ সালের সর্বশেষ একটি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় যোগদান করেন। ১৮৭৬-৭৭ মৌসুমে প্রাক-অ্যাশেজ সফরে টেস্ট খেলার পূর্বে ১৮৬৮ সালে লিলিহোয়াইট এডগার উইলশারের নেতৃত্বাধীন দলের সদস্যরূপে উত্তর আমেরিকা সফরে যান। ১৮৭৩-৭৪ মৌসুমে ডব্লিউ. জি. গ্রেসের নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ার সফরে যান। এছাড়াও ১৮৮১-৮২, ১৮৮৪-৮৫১৮৮৬-৮৭ মৌসুমে আলফ্রেড শয়ের নেতৃত্বে আরও তিনবার অস্ট্রেলিয়ায় যান।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

জেমস লিলিহোয়াইট ও ডেভ গ্রিগরি প্রথমবারের মতো টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। তবে, তাঁদের কেউই ব্যাট হাতে সফল ছিলেন না। ১৭ মার্চ ২ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১ম ইনিংসে ১০ রান ও ১৯ মার্চ ২য় ইনিংসে ৪ রান তোলেন। টসে পরাজিত হবার পর তাঁর দল ব্যাটিংয়ে নামতে বাধ্য হয়। ৩৫ বছর ২০ দিন বয়সে ইংরেজ দলকে নেতৃত্ব দেন। এ সময় তিনি হ্যারি জাপটম এমেটের ৩৫ বছরের তুলনায় জ্যেষ্ঠ ছিলেন।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম শূন্য রানে আউটের ঘটনার সাথে নিজের নামকে জড়িয়ে রেখেছেন লিলিহোয়াইট। ইতিহাসের প্রথম টেস্টে তাঁর বোলিংয়ে নেড গ্রিগরি, অ্যান্ড্রু গ্রীনউডের কটে পরিণত হন।[২]

আম্পায়ারিত্ব[সম্পাদনা]

১৮৮৩ থেকে ১৯০১ সালের মধ্যে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে আম্পায়ারিত্ব করেন তিনি। তন্মধ্যে ছয়টি টেস্ট খেলাও পরিচালনার করেন তিনি। ১৯৮১-৮২ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের মধ্যকার চারটি টেস্টে আম্পায়ার ছিলেন তিনি। পীচের অন্যপ্রান্তে তাঁকে সঙ্গ দেন তিন টেস্টে জন সুইফট ও এক টেস্টে জর্জ কোল্টহার্ড। ১৮৮৪-৮৫ মৌসুমে আর্থার শ্রিউসবারি’র নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ায় দল প্রেরণের অন্যতম সংগঠকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। কিন্তু অভিজ্ঞতা থাকা স্বত্ত্বেও অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক বিলি মারডক অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত সর্বপ্রথম টেস্টে তাঁকে আম্পায়ারিত্ব করা থেকে অস্বীকৃতিজ্ঞাপন করেন। অবশ্য সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে টেড এলিয়টের সাথে খেলা পরিচালনার করেছেন তিনি। মাঠে তিনি প্রবেশ করলে অস্ট্রেলীয় দল খেলতে অস্বীকৃতি জানালে পঞ্চাশ শতাংশ গেট মানি থেকে বঞ্চিত হবার ঘোষণায় খেলা শুরু হয়। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে নয়জনের টেস্ট অভিষেক ঘটে ও তাঁরা আবেদনের মাধ্যমে প্যাভিলিয়নে প্রত্যাবর্তন করেন। ১৮৯৯ সালের ওল্ড ট্রাফোর্ডে ড্র হওয়া ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার খেলায় সর্বশেষ খেলায় পরিচালনায় অগ্রসর হন।

২৫ অক্টোবর ১৯২৯ তারিখে ৮৭ বছর বয়সে সাসেক্সের চিচেস্টারে তাঁর দেহাবসান ঘটে। তিনিই প্রথম টেস্টের সর্বশেষ জীবিত ক্রিকেটার ছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "James Lillywhite's CricketArchive Profile"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ 2016-9-21  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "Australia v England in 1876/77"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৫-২২ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
নেই
ইংল্যান্ড ক্রিকেট অধিনায়ক
১৮৭৬-৭৭
উত্তরসূরী
লর্ড হ্যারিস
পূর্বসূরী
ই. এম. গ্রেস
সর্বাপেক্ষা বয়ষ্ক টেস্ট ক্রিকেটার
২০ মে, ১৯১১ - ২৫ অক্টোবর, ১৯২৯
উত্তরসূরী
ফ্রান্সিস ম্যাকিনন