জ্যাক হোয়াইট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জ্যাক হোয়াইট
John Cornish White card c1920.jpg
আনুমানিক ১৯২০ সালের গৃহীত স্থিরচিত্রে জ্যাক হোয়াইট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজন কর্নিশ হোয়াইট
জন্ম(১৮৯১-০২-১৯)১৯ ফেব্রুয়ারি ১৮৯১
হলফোর্ড, সমারসেট, ইংল্যান্ড
মৃত্যু২ মে ১৯৬১(1961-05-02) (বয়স ৭০)
কম্ব ফ্লোরি, সমারসেট, ইংল্যান্ড
ডাকনামফার্মার
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট আর্ম অর্থোডক্স
ভূমিকাবোলিং অল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০২)
২ জুলাই ১৯২১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩১ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯০৯–১৯৩৭সমারসেট
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৫ ৪৭২
রানের সংখ্যা ২৩৯ ১২২০২
ব্যাটিং গড় ১৮.৩৮ ১৮.৪০
১০০/৫০ ০/০ ৬/৪১
সর্বোচ্চ রান ২৯ ১৯২
বল করেছে ৪৮০১ ১২৯৪৩৯
উইকেট ৪৯ ২৩৫৫
বোলিং গড় ৩২.২৬ ১৮.৫৮
ইনিংসে ৫ উইকেট ১৯৩
ম্যাচে ১০ উইকেট ৫৮
সেরা বোলিং ৮/১২৬ ১০/৭৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬/০ ৪২৮/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৮ জুলাই ২০১৮

জন কর্নিশ হোয়াইট (ইংরেজি: Jack White; জন্ম: ১৯ ফেব্রুয়ারি, ১৮৯১ - মৃত্যু: ২ মে, ১৯৬১) সমারসেটের হলফোর্ড এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ও দলনায়ক ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সমারসেটের প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি। দলে মূলতঃ স্লো লেফট আর্ম অর্থোডক্স বোলিং করতেন ‘ফার্মার’ বা ‘জ্যাক’ ডাকনামে পরিচিত জ্যাক হোয়াইট। এছাড়াও, ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শীতা দেখিয়েছেন তিনি।

কাউন্টি ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ধীরগতিসম্পন্ন বামহাতি বোলার হিসেবে ক্রিকেট খেলায় অংশ নিতেন জ্যাক হোয়াইট। উইকেট লাভে স্পিনের তুলনায় পেসের ভিন্নতা ও নিখুঁততাই সফলতার চাবিকাঠি ছিল তাঁর। ১৯১৩ থেকে ১৯৩৭ সময়কালে সমারসেটের নিয়মিত খেলোয়াড় ছিলেন। ১৯২৭ থেকে ১৯৩১ সময়কালে সমারসেটের নেতৃত্বে ছিলেন জ্যাক হোয়াইট। ১৪ মৌসুমে শতাধিক উইকেট লাভে পারঙ্গমতা প্রদর্শন করেছেন। তন্মধ্যে, ১৯২৯ ও ১৯৩০ সালে সহস্রাধিক রান তুলে ‘ডাবল’ লাভ করেন।

অন্যান্য কাউন্টি রেকর্ডের মধ্যে ১৯১৯ সালে বাথে অনুষ্ঠিত খেলায় ওরচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে ৮৩ রান দিয়ে ১৬ উইকেট দখল করেন। এছাড়াও, ১৯২১ সালে ওরচেস্টারে অনুষ্ঠিত খেলায় ওরচেস্টারশায়ারের ইনিংসের সবকটি উইকেট লাভ করেন ৭৬ রান দিয়ে।[১] সমারসেটের পক্ষে সর্বমোট ২,১৬৫ উইকেট পেয়েছেন যা অদ্যাবধি কাউন্টি রেকর্ডরূপে বিবেচিত হয়ে আসছে।[২] এছাড়াও, ৩৯৩ ক্যাচ তালুবন্দী করেছেন তিনি।[৩]

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ১৫ টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তাঁর। তন্মধ্যে, চারবার ইংল্যান্ড দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

১৯২১ সালে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাশেজ সিরিজ খেলার জন্য জ্যাক হোয়াইটকে মনোনয়ন দেয়া হয়। ২ জুলাই, ১৯২১ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে জ্যাক হোয়াইটের। কিন্তু, শক্তধর প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলার পর পরবর্তী সাত বছরে তাঁকে আর টেস্ট খেলানো হয়নি।

১৯২৮-২৯ মৌসুমে ইংল্যান্ড দলের সদস্যরূপে অস্ট্রেলিয়া সফরে যান। অধিনায়ক পার্সি চ্যাপম্যানের সহকারী ছিলেন তিনি। ঐ সিরিজে তিনি দলের প্রধান বোলাররূপে আবির্ভূত হন ও যুদ্ধংদেহী মনোভাব নিয়ে বেশ সফলতার পরিচয় দেন। মেলবোর্নে ১১৩.৫ ওভার এবং অ্যাডিলেডে ১২৪.৫ ওভার বোলিং করে ২৫৬ রান দিয়ে খেলায় ১৩ উইকেট দখল করেন। ঐ খেলায় ইংল্যান্ড মাত্র ১২ রানের ব্যবধানে জয় পায়। সিরিজের চূড়ান্ত টেস্টে আঘাতপ্রাপ্ত চ্যাপম্যানের পরিবর্তে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। কিন্তু, ঐ টেস্টে পরাজিত হবার ফলে ধারাবাহিকভাবে সাত টেস্ট জয়ের রেকর্ডের সমকক্ষ হয় ইংরেজ দল।

১৯২৯ সালে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অনুষ্ঠিত সিরিজে আবারো তাঁকে অধিনায়কের দায়িত্বভার অর্পণ করা হয়। ঐ সিরিজে তাঁর দল এক টেস্টে জয় পায় ও দুই টেস্ট ড্র করে। এরপর ১৯৩০ সালে অস্ট্রেলিয়া ও ১৯৩০-৩১ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অনুষ্ঠিত টেস্ট সিরিজে চ্যাপম্যানের সহযোগী মনোনী হন তিনি।

অর্জনসমূহ[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে সংগৃহীত ২,৩৫৫ উইকেট লাভের ফলে সর্বকালের উইকেট লাভকারী ক্রিকেটারদের তালিকায় ১৬শ অবস্থানে রয়েছে।[৪]

১৯২৯ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটার মনোনীত হন তিনি।

১৯২৯ ও ১৯৩০ সালে টেস্ট দল নির্বাচকমণ্ডলীর সদস্য মনোনীত হন। এছাড়াও, মৃত্যুকালীন সমারসেটের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন জ্যাক হোয়াইট। ২ মে, ১৯৬১ তারিখে ৭০ বছর বয়সে সমারসেটের কম্ব ফ্লোরি এলাকায় জীবনাবসান ঘটে জ্যাক হোয়াইটের।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Worcestershire v Somerset in 1921"। Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০০৯ 
  2. "Most Wickets for Somerset"। Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০০৯ 
  3. "Most Catches in a Career for Somerset"। Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০০৯ 
  4. "First-class matches / Bowling records / Most wickets in career"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
পার্সি চ্যাপম্যান
ইংল্যান্ড ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯২৯
উত্তরসূরী
হ্যারল্ড জিলিগ্যান
সম্মানীয় ফ্রেডি কালথর্প
পূর্বসূরী
জন ড্যানিয়েল
সমারসেট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯২৭–১৯৩১
উত্তরসূরী
রেজি ইঙ্গল