খুরশিদ খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ওস্তাদ

খুরশিদ খান
জন্ম১ জানুয়ারি, ১৯৩৫
মৃত্যু২০ জানুয়ারি, ২০১২
নাগরিকত্ব ব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
 পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
 বাংলাদেশ
পেশাশিল্পী
পরিচিতির কারণস্বাধীনতা পুরস্কার (২০০০)
পিতা-মাতা
  • আম্বিয়া খানম (মাতা)
আত্মীয়আয়েত আলী খাঁ (নানা)
আবেদ হোসেন খান (মামা)
বাহাদুর হোসেন খান (মামা)
পুরস্কারস্বাধীনতা পুরস্কার (২০০০)
রবীন্দ্র পুরস্কার (২০০৫)[১]

ওস্তাদ খুরশিদ খান হলেন বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ। সঙ্গীত সাধনায় অনন্য সাধারণ অবদানের জন্য ২০০০ সালে তাকে “সংস্কৃতিতে স্বাধীনতা পুরস্কার” প্রদান করা হয়।[২]

জন্ম ও পারিবারিক পরিচিতি[সম্পাদনা]

খুরশিদ খান ১৯৩৫ সালের ১ জানুয়ারি ব্রিটিশ ভারতের পূর্ব বাংলার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পরিবার ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার সঙ্গীতশিল্পীদের কাছে একটি সুপরিচিত পরিবার। তার মা আম্বিয়া খানম ছিলেন আয়েত আলী খাঁয়ের মেয়ে এবং তার মায়ের চাচা ছিলেন আলাউদ্দিন খাঁ। তিনি তার মামা আবেদ হোসেন খান এবং বাহাদুর হোসেন খানের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নেন।[১][৩]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

খুরশিদ খান ১৯৬১ থেকে ১৯৬৪ সাল পর্যন্ত সেতার বাদক হিসেবে স্টেট রেডিওতে কাজ করেন। এরপর জাতীয় টেলিভিশন (বর্তমান বাংলাদেশ টেলিভিশন) যোগদান করেন। ১৯৯৩ সালে সঙ্গীত প্রযোজক থেকে অবসর গ্রহণ করেন।[১]

পুরস্কার ও সম্মননা[সম্পাদনা]

সঙ্গীত চর্চায় অসাধারণ অবদানের জন্য ২০০০ সালে দেশের “সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার”[৪][৫][৬] হিসাবে পরিচিত “স্বাধীনতা পুরস্কার” প্রদান করা হয় তাকে।[২]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০১২ সালে ২০ জানুয়ারি খুরশিদ খান মারা যান। ৭৬ বছর বয়সে কিডনি জটিলতায় তিনি মারা যান।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Ustad Khurshid Khan Passes Away"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১২-০১-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  2. "স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের তালিকা"মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ০৯ অক্টোবর ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. "The Daily Star Web Edition Vol. 5 Num 862"archive.thedailystar.net। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  4. সানজিদা খান (জানুয়ারি ২০০৩)। "জাতীয় পুরস্কার: স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার"। সিরাজুল ইসলাম[[বাংলাপিডিয়া]]ঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ০৯ অক্টোবর ২০১৭স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য); ইউআরএল–উইকিসংযোগ দ্বন্দ্ব (সাহায্য)
  5. "স্বাধীনতা পদকের অর্থমূল্য বাড়ছে"কালেরকন্ঠ অনলাইন। ২ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৭ 
  6. "এবার স্বাধীনতা পদক পেলেন ১৬ ব্যক্তি ও সংস্থা"এনটিভি অনলাইন। ২৪ মার্চ ২০১৬। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]