কালেমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(কলেমা থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

কালেমা ইসলামের মৌলিক বিশ্বাস সংবলিত কয়েকটি আরবি পংক্তির নাম। এর মাধ্যমেই ইসলামের প্রথম স্তম্ভ শাহাদাহ্‌ পূর্ণতা পায়। ইসলামে মোট ছয়টি কালেমা রয়েছে ।

প্রথম কালেমা[সম্পাদনা]

প্রথম কালেমা হচ্ছে কালেমায়ে তাইয়্যেবা এর অর্থ হল পবিত্র বাক্য। এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন 

আরবি[সম্পাদনা]

[১]لآ اِلَهَ اِلّا اللّهُ مُحَمَّدٌ رَسُوُل اللّهِ

প্রতিবর্ণীকরণ / বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ্‌।(সাঃ)


বাংলা অনুবাদ[সম্পাদনা]

আল্লাহ ছাড়া কোন উপাস্য নাই, হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) তাঁহার প্রেরিত রাসুল।

দ্বিতীয় কালেমা[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় কালেমা হচ্ছে কালেমায়ে শাহাদাত এর অর্থ হল সাহ্ম্য বাক্য। এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন 

আরবি[সম্পাদনা]

[১]اشْهَدُ انْ لّآ اِلهَ اِلَّا اللّهُ وَحْدَه لَا شَرِيْكَ لَه، وَ اَشْهَدُ اَنَّ مُحَمَّدً اعَبْدُه وَرَسُولُه

প্রতিবর্ণীকরণ বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

আশ্‌হাদু আল-লা-ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্‌দাহু-লা-শারীকালাহু ওয়া আশ্‌হাদু আন্না মুহাম্মাদান আ'বদুহু ওয়া রাসূলুহু।(সাঃ)

অনুবাদ[সম্পাদনা]

আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ্‌ ছাড়া কোন উপাস্য নাই। তিনি এক, অদ্বিতীয় এবং আরও সাক্ষ্য দিতেছি যে, মুহাম্মাদ (সাঃ) তাঁহার বান্দা ও প্রেরিত রাসুল।

তৃতীয় কালেমা[সম্পাদনা]

তৃতীয় কালেমা হচ্ছে কালেমায়ে তামজীদ এর অর্থ হল শ্রেষ্ঠত্ববাদ বাক্য। এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন 

আরবি[সম্পাদনা]

[২] ﺳُﺒْﺤَﺎﻥ ﺍﻟِﻠّﻪ ﻭَ ﺍﻟْﺤَﻤْﺪُ ﻟِﻠّﻪِ ﻭَ ﻵ ﺍِﻟﻪَ ﺍِﻟّﺎ ﺍﻟﻠّﻪُ، ﻭَ ﺍﻟﻠّﻪُ ﺍَﻛْﺒَﺮُ ﻭَﻻ ﺣَﻮْﻝَ ﻭَﻻَ ﻗُﻮَّﺓَ ﺍِﻟَّﺎ ﺑِﺎﻟﻠّﻪِ ﺍﻟْﻌَﻠِﻰّ ﺍﻟْﻌَﻈِﻴْﻢ

প্রতিবর্ণীকরণ / বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

সুবহানআল্লাহী ওয়ালহামদু লিল্লাহী ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার, ওয়ালা হাওলা ওয়ালা কুয়াতা ইল্লা বিল্লাহিল আলিইল আযীম।

বাংলা অনুবাদ[সম্পাদনা]

মহিমান্বিত আল্লাহ্‌র, সমস্ত প্রশংসা আল্লাহ্‌র। আল্লাহ্‌ ছাড়া কোন মাবুদ নাই। আল্লাহ্‌ মহান। সমস্ত পবিত্রতা আল্লাহ্‌র, সকল প্রশংসা আল্লাহ্‌র। আল্লাহ্‌ ছাড়া কোন শক্তি নাই, কোন ক্ষমতা নাই, তিনি সম্মানিত, তিনি মহান।

চতুর্থ কালেমা[সম্পাদনা]

চতুর্থ কালেমা হচ্ছে কালেমায়ে তাওহীদ এর অর্থ হল একত্ববাদ বাক্য। এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন 

আরবি[সম্পাদনা]

[২]لا الهَ اِلَّا اللّهُ وَحْدَهُ لا شَرِيْكَ لَهْ، لَهُ الْمُلْكُ وَ لَهُ الْحَمْدُ يُحْى وَ يُمِيْتُ وَ هُوَحَىُّ لَّا يَمُوْتُ اَبَدًا اَبَدًا ط ذُو الْجَلَالِ وَ الْاِكْرَامِ ط بِيَدِهِ الْخَيْرُ ط وَهُوَ عَلى كُلِّ شَئ ٍ قَدِيْرٌ

প্রতিবর্ণীকরণ / বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শারিকা লাহু, লাহুল মুলকু ওলাহুল হামদু উহয়ী ওয়া ইয়োমিতু ওয়া হুয়া হাইয়ুল লা ইয়ামুতু আবাদান আবাদা জুল জালালি ওয়াল ইকরাম বি ইয়াদিহিল খাইর ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন কাদির

বাংলা অনুবাদ[সম্পাদনা]

আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই, তিনি এক ও অদ্বিতীয়। তাঁর কোন অংশীদার নেই। সকল ক্ষমতা এবং প্রশংসা তাঁরই জন্য। তিনিই জীবন ও মৃত্যুর মালিক। তিনি চিরঞ্জীব, তিনি সকল সম্মানের মালিক। তাঁর হাতেই সকল মঙ্গল এবং তিনি সবকিছুর উপর ক্ষমতা রাখেন।

পঞ্চম কালেমা[সম্পাদনা]

ইহা অনুশোচনামূলক বাক্য হিসেবেও পরিচিত।কালেমা-ই-আস্তাগফের এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন 

আরবি[সম্পাদনা]

[২]اسْتَغْفِرُ اللّهَ رَبِّىْ مِنْ كُلِّ ذَنْبٍ اَذْنَبْتُه عَمَدًا اَوْ خَطَاً سِرًّا اَوْ عَلَانِيَةً وَاَتُوْبُ اِلَيْهِ مِنْ الذَّنْبِ الَّذِىْ اَعْلَمُ وَ مِنْ الذَّنْبِ الَّذِىْ لا اَعْلَمُ اِنَّكَ اَنْتَ عَلَّامُ الغُيُبِ وَ سَتَّارُ الْعُيُوْبِ و َغَفَّارُ الذُّنُوْبِ وَ لا حَوْلَ وَلا قُوَّةَ اِلَّا بِاللّهِ الْعَلِىِّ العَظِيْم'

প্রতিবর্ণীকরণ / বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

আস্তাগফিরুল্লাহা রাব্বি মিন কুল্লি জামবি আয নাবতুহু আমাদান আওখাতাআন সিররান আওয়ালা নিয়াতান ওয়াতুবু ইলাইহি মিনাযযামবিল্লাজি ওয়ামিনাযযামবিল্লাজি লা আলামু ইন্নাকা আনতা আল্লামুল গুয়ুবী ওয়া সাত্তারুল উইয়ুবী ওয়া গাফফারুজজুনুবি ওয়ালা হাওলা ওয়ালা কুয়াতা ইল্লা বিল্লাহিল আলিউল আযীম।

বাংলা অনুবাদ[সম্পাদনা]

আমি আল্লাহ্‌র কাছে ক্ষমা চাই সকল পাপ থেকে, যা আমি সংঘটিত করেছি আমার জ্ঞাতসারে অথবা অজ্ঞাতসারে, গোপনে বা প্রকাশ্যে এবং আমি আমার পালনকর্তার আশ্রয় চাই সেই পাপ থেকে, যে পাপ আমি জানি এবং যে পাপ আমি জানিনা। অবশ্যই আপনি লুকানো এবং গোপন (ভুল) পাপ সম্পর্কে জানেন এবং ক্ষমাশীল। আল্লাহ্‌ ছাড়া কোন শক্তি নেই, কোন ক্ষমতা নেই, তিনি সম্মানিত, তিনি মহান।

ষষ্ঠ কালেমা[সম্পাদনা]

ইহা ইসলামে অবিশ্বাসীদের প্রত্যাখ্যানমূলক বাক্য হিসেবেও পরিচিত। কালেমা-ই-রুদ-ই-কুফর'

আরবি[সম্পাদনা]

اَللّهُمََّ اِنّىْ اَعُوْدُ بِكَ مِنْ انْ اُشْرِكَ بِكَ شَيئًا وََّ اَنَا اَعْلَمُ بِه وَ اسْتَغْفِرُكَ لِمَا لا اَعْلَمُ بِه تُبْتُ عَنْهُ وَ تَبَرَّاْتُ مِنَ الْكُفْرِ وَ الشّرْكِ وَ الْكِذْبِ وَ الْغِيْبَةِ وَ الْبِدْعَةِ وَ النَّمِيْمَةِ وَ الْفَوَاحِشِ وَ الْبُهْتَانِ وَ الْمَعَاصِىْ كُلِّهَا وَ اَسْلَمْتُ وَ اَقُوْلُ لآ اِلهَ اِلَّا اللّهُ مُحَمَّدُ رَّسُوْلُ اللّهِ

প্রতিবর্ণীকরণ / বাংলা উচ্চারণ[সম্পাদনা]

আউযুবিল্লাহিমি নাশশাইতোয়ানির রাযিম বিসমিল্লাহি রহমানির রাহিম

আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযুবিকা মিন উশরিকা বিকা শাইআও ওয়ানা আলামু বিহি ওয়াস্তাগফিরুকা লিমালা আলামু বিহি তুবতু আনহু ওয়া তাবাররাতু মিনাল-কুফরি ওয়াশ-শিরকী ওয়াল-কিজবি ওয়ালা-গিবাতি ওয়াল-বিদাতি ওয়ান্না-মিমাতি ওয়াল-ফাওয়া হিমি ওয়াল-রুহতানী ওয়াল-মাআসি কুল্লিহা ওয়াসলামতু ওয়াকুলু লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ)

বাংলা অনুবাদ[সম্পাদনা]

হে আল্লাহ্‌ নিশ্চয়, ক্ষমা চাই শিরক করা থেকে (আল্লাহ্‌র সাথে কাউকে শরিক করা), আমি ক্ষমা চাই সকল পাপ থেকে যা সম্পর্কে আমি সচেতন নই বা জানি না, আমি পুনরায় ঘোষণা করছি, আমি সকল প্রকার কুফর থেকে, শিরক থেকে, মিথ্যা (কথা বলা), গীবত, বিদাত, পরনিন্দা, অশ্লীলতা এবং অন্যান্য সকল পাপ থেকে মুক্ত। আমি ইসলাম স্বীকার এবং বিশ্বাস করি এবং ঘোষণা দিচ্ছি যে, আল্লাহ্‌ ছাড়া কোন প্রভু নেই এবং মুহাম্মদ (সাঃ) আল্লাহ্‌র প্রেরিত রাসুল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]