অররিয়া জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অররিয়া জেলা
अररिया जिला,اریا ضلع
বিহারের জেলা
বিহারে অররিয়ার অবস্থান
বিহারে অররিয়ার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যবিহার
প্রশাসনিক বিভাগপূর্ণিয়া
সদরদপ্তরঅররিয়া
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্রঅররিয়া
 • বিধানসভা আসননরপতগঞ্জ, রানিগঞ্জ, ফোর্বসগঞ্জ, অররিয়া, জোকিহাট, সিকতি
আয়তন
 • মোট২৮৩০ কিমি (১০৯০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট২৮,০৬,২০০
 • জনঘনত্ব৯৯০/কিমি (২৬০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৫৩.১%
 • লিঙ্গানুপাত৯২১
প্রধান মহাসড়ক৫৭ নং জাতীয় সড়ক
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

অররিয়া জেলা হল ভারতের বিহার রাজ্যের ৩৯টি জেলার অন্যতম। এই জেলার সদর শহর হল অররিয়া। পূর্ণিয়া জেলা বিহারের পূর্ণিয়া বিভাগের অন্তর্গত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৬৪ সালে অররিয়া পূর্ণিয়া জেলার একটি মহকুমার স্বীকৃতি পায়। ১৯৯০ সালের জানুয়ারি মাসে এই মহকুমাটি পূর্ণিয়া বিভাগের অধীনে একটি পৃথক জেলার স্বীকৃতি অর্জন করে।

ভূগোল[সম্পাদনা]

অররিয়া জেলার আয়তন ২,৮৩০ বর্গকিলোমিটার (১,০৯০ মা)।[১] আয়তনের দিক থেকে এই জেলা রাশিয়ার জেমল্যা জর্গার প্রায় সমান।[২] এই জেলার প্রধান নদনদীগুলি হল কোশি, সুওয়ারা, কালী, পারমার ও কোলি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে ভারত সরকারের পঞ্চায়েত মন্ত্রক দেশের ২৫০টি সর্বাধিক অনগ্রসর জেলার তালিকায় অররিয়া জেলার নাম নথিভুক্ত করে।[৩] বিহারের যে ৩৬টি জেলা অনগ্রসর অঞ্চল অনুদান তহবিল কর্মসূচির অধীনে অনুদান পেয়ে থাকে এই জেলা তার মধ্যে অন্যতম।[৩]

বিভাগ[সম্পাদনা]

অররিয়া জেলা দুটি মহকুমায় বিভক্ত। যথা: অররিয়া ও ফোর্বসগঞ্জ। অররিয়া মহকুমা চারটি ব্লকে বিভক্ত। যথা: অররিয়া, ভারগামা, সিকতি ও রানিগঞ্জ। ফোর্বসগঞ্জ মহকুমা পাঁচটি ব্লকে বিভক্ত। যথা: কুরসাকান্ত, ফোর্বসগঞ্জ, ভারগামা, রানিগঞ্জ ও নরপতগঞ্জ।

জনপরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে, অররিয়া জেলার জনসংখ্যা ২,৮০৬,২০০।[৪] এই জেলার জনসংখ্যা জামাইকা রাষ্ট্র[৫] বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ রাজ্যের জনসংখ্যার প্রায় সমান।[৬] জনসংখ্যার হিসেবে ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে এই জেলার স্থান ১৩৯তম।[৪] অররিয়া জেলার জনঘনত্ব ৯৯২ জন প্রতি বর্গকিলোমিটার (২,৫৭০ জন/বর্গমাইল)।[৪] ২০০১-২০১১ দশকে এই জেলায় জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ৩০%।[৪] জেলার লিঙ্গানুপাতের হার প্রতি ১০০০ পুরুষে ৯২১ জন মহিলা[৪] এবং সাক্ষরতার হার ৫৫.১%।[৪] অররিয়া জেলার মুসলমান জনসংখ্যা অপেক্ষাকৃত বেশি।[৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Srivastava, Dayawanti et al. (ed.) (২০১০)। "States and Union Territories: Bihar: Government"। India 2010: A Reference Annual (54th সংস্করণ)। New Delhi, India: Additional Director General, Publications Division, Ministry of Information and Broadcasting (India), Government of India। পৃষ্ঠা 1118–1119। আইএসবিএন 978-81-230-1617-7 
  2. "Island Directory Tables: Islands by Land Area"United Nations Environment Program। ১৯৯৮-০২-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-১১Zemlya Georga 2,821km2  horizontal tab character in |উক্তি= at position 14 (সাহায্য)
  3. Ministry of Panchayati Raj (সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৯)। "A Note on the Backward Regions Grant Fund Programme" (PDF)। National Institute of Rural Development। ৫ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১১ 
  4. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  5. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-০১Jamaica 2,868,380 July 2011 est  line feed character in |উক্তি= at position 8 (সাহায্য)
  6. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০Utah 2,763,885  line feed character in |উক্তি= at position 5 (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Minority Concentrated Districts in India টেমপ্লেট:Purnia Division

স্থানাঙ্ক: ২৬°০৭′৪৮″ উত্তর ৮৭°২৮′১২″ পূর্ব / ২৬.১৩০০০° উত্তর ৮৭.৪৭০০০° পূর্ব / 26.13000; 87.47000