স্থানাঙ্ক: ২৬°০৭′৪৮″ উত্তর ৮৭°২৮′১২″ পূর্ব / ২৬.১৩০০০° উত্তর ৮৭.৪৭০০০° পূর্ব / 26.13000; 87.47000

আরারিয়া জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আরারিয়া জেলা
Araria Jila in Mithilakshar.png
اریا ضلع
বিহারের জেলা
বিহারে আরারিয়ার অবস্থান
বিহারে আরারিয়ার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যবিহার
প্রশাসনিক বিভাগপূর্ণিয়া
সদরদপ্তরআরারিয়া
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্রআরারিয়া
 • বিধানসভা আসননরপতগঞ্জ, রানিগঞ্জ, ফোর্বসগঞ্জ, আরারিয়া, জোকিহাট, সিকতি
আয়তন
 • মোট২,৮৩০ বর্গকিমি (১,০৯০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট২৮,০৬,২০০
 • জনঘনত্ব৯৯০/বর্গকিমি (২,৬০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৫৩.১%
 • লিঙ্গানুপাত৯২১
প্রধান মহাসড়ক৫৭ নং জাতীয় সড়ক
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

আরারিয়া জেলা হল ভারতের বিহার রাজ্যের ৩৯টি জেলার অন্যতম। এই জেলার সদর শহর হল আরারিয়া। পূর্ণিয়া জেলা বিহারের পূর্ণিয়া বিভাগের অন্তর্গত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৬৪ সালে অররিয়া পূর্ণিয়া জেলার একটি মহকুমার স্বীকৃতি পায়। ১৯৯০ সালের জানুয়ারি মাসে এই মহকুমাটি পূর্ণিয়া বিভাগের অধীনে একটি পৃথক জেলার স্বীকৃতি অর্জন করে।

ভূগোল[সম্পাদনা]

অররিয়া জেলার আয়তন ২,৮৩০ বর্গকিলোমিটার (১,০৯০ মা)।[১] আয়তনের দিক থেকে এই জেলা রাশিয়ার জেমল্যা জর্গার প্রায় সমান।[২] এই জেলার প্রধান নদনদীগুলি হল কোশি, সুওয়ারা, কালী, পারমার ও কোলি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে ভারত সরকারের পঞ্চায়েত মন্ত্রক দেশের ২৫০টি সর্বাধিক অনগ্রসর জেলার তালিকায় অররিয়া জেলার নাম নথিভুক্ত করে।[৩] বিহারের যে ৩৬টি জেলা অনগ্রসর অঞ্চল অনুদান তহবিল কর্মসূচির অধীনে অনুদান পেয়ে থাকে এই জেলা তার মধ্যে অন্যতম।[৩]

বিভাগ[সম্পাদনা]

আরারিয়া জেলা দুটি মহকুমায় বিভক্ত। যথা: আরারিয়া ও ফরবেসগঞ্জ। অররিয়া মহকুমা ছয়টি ব্লকে বিভক্ত। যথা: আরারিয়া, জকিহাট, কুর্সাকান্টা, সিকটি, পলাসি ও রানিগঞ্জ। ফরবেসগঞ্জ মহকুমা তিনটি ব্লকে বিভক্ত। যথা: ফরবেসগঞ্জ, ভারগামা ও নরপতগঞ্জ।

জনপরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে, অররিয়া জেলার জনসংখ্যা ২,৮০৬,২০০।[৪] এই জেলার জনসংখ্যা জামাইকা রাষ্ট্র[৫] বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ রাজ্যের জনসংখ্যার প্রায় সমান।[৬] জনসংখ্যার হিসেবে ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে এই জেলার স্থান ১৩৯তম।[৪] অররিয়া জেলার জনঘনত্ব ৯৯২ জন প্রতি বর্গকিলোমিটার (২,৫৭০ জন/বর্গমাইল)।[৪] ২০০১-২০১১ দশকে এই জেলায় জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ৩০%।[৪] জেলার লিঙ্গানুপাতের হার প্রতি ১০০০ পুরুষে ৯২১ জন মহিলা[৪] এবং সাক্ষরতার হার ৫৫.১%।[৪] অররিয়া জেলার মুসলমান জনসংখ্যা অপেক্ষাকৃত বেশি।[৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Srivastava, Dayawanti et al. (ed.) (২০১০)। "States and Union Territories: Bihar: Government"। India 2010: A Reference Annual (54th সংস্করণ)। New Delhi, India: Additional Director General, Publications Division, Ministry of Information and Broadcasting (India), Government of India। পৃষ্ঠা 1118–1119। আইএসবিএন 978-81-230-1617-7। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-১১ 
  2. "Island Directory Tables: Islands by Land Area"United Nations Environment Program। ১৯৯৮-০২-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-১১Zemlya Georga 2,821km2  horizontal tab character in |উক্তি= at position 14 (সাহায্য)
  3. Ministry of Panchayati Raj (সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৯)। "A Note on the Backward Regions Grant Fund Programme" (PDF)। National Institute of Rural Development। ৫ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১১ 
  4. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  5. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-০১Jamaica 2,868,380 July 2011 est  line feed character in |উক্তি= at position 8 (সাহায্য)
  6. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০Utah 2,763,885  line feed character in |উক্তি= at position 5 (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Purnia Division