তুতিকোরিন বিমানবন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তুতিকোরিন বিমানবন্দর
தூத்துக்குடி வானூர்தி நிலையம்
Tuticorin Airport.jpg
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনজনসাধারন
মালিক/পরিচালকনাগরিক সরকার
সেবা দেয়তুতিকোরিন, তিরুনেলভেলী
অবস্থানভাগাইকুল্লাম
এএমএসএল উচ্চতা৩৯ মিটার / ১২৯ ফুট
স্থানাঙ্ক০৮°৪৩′২৭″ উত্তর ০৭৮°০১′৩৩″ পূর্ব / ৮.৭২৪১৭° উত্তর ৭৮.০২৫৮৩° পূর্ব / 8.72417; 78.02583স্থানাঙ্ক: ০৮°৪৩′২৭″ উত্তর ০৭৮°০১′৩৩″ পূর্ব / ৮.৭২৪১৭° উত্তর ৭৮.০২৫৮৩° পূর্ব / 8.72417; 78.02583
ওয়েবসাইটতুতিকোরিন বিমানবন্দর
মানচিত্র
TCR ভারত-এ অবস্থিত
TCR
TCR
TCR তামিলনাড়ু-এ অবস্থিত
TCR
TCR
তুতিকোরিনের অবস্থান
রানওয়েসমূহ
দিকনির্দেশনা দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
মি ফুট
১০/২৮ ১,৩৫১ ৪,৪৩৫ আস্ফাল্ট
পরিসংখ্যান (জানুয়ারী ২০১৬ -ডিসেম্বর ২০১৬)
যাত্রী সংখ্যা1,00,844(বৃদ্ধি15.02%)
উড়ান সংখ্যা1,444(বৃদ্ধি8.08%)
পণ্য (টন)69(বৃদ্ধি16.94%)
সূত্র: এএই[১][২][৩]

তুতিকোরিন বিমানবন্দর (আইএটিএ: TCRআইসিএও: VOTK) তামিলনাডুর তুতিকোরিন শহর থেকে ১৬.৯ কিলোমিটার (১০.৫ মাইল) দূরে অবস্থিত একটি অন্তর্দেশীয় বিমানবন্দর। বিমানবন্দরটি দক্ষিণ তামিলনাডুর তুতিকোরিন জেলা এবং তিরুণেলভী জেলায় [৪] বিমান পরিষেবা প্রদান করে। তুতিকোরিন বিমানবন্দরটি তুতিকোরিন-তিরুণেলভেলী শহরের কেন্দ্রের জাতীয় সড়ক ৭এ থেকে ১৫.৬ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত। এটি চেন্নাই, কোয়েম্বাটুর, ত্রিচি এবং মাদুরাই বিমানবন্দরের পরে তামিলনাড়ুর পঞ্চম ব্যস্ততম বিমানবন্দর।

গঠন[সম্পাদনা]

তুতিকোরিন বিমানবন্দরে একটি অ্যাস্ফাল্ট দ্বারা নির্মিত রানওয়ে রয়েছে, যা মূলত ১০/২৮, ১,৩৫১ মিটার লম্বা এবং ৩০ মিটার চওড়া। বিমানবন্দরের ১০০ মিটার লম্বা ও ৬০ মিটার চওড়া অ্যাপ্রন দুটি এটিআর ৭২ বা অনুরূপ উড়োজাহাজের জন্য দাঁড়ানোর স্থান প্রদান করে, যখন তার টার্মিনাল ভবন ব্যস্ত সময়ে সর্বোচ্চ ৭২ জন যাত্রীকে পরিচালনা করতে পারে। তুতিকোরিনের নেভিগেশন ব্যবস্থা পিএপিআই আলো এবং একটি এয়ারড্রোম বীকন দ্বারা গঠিত।[৫]

সম্প্রসারণ[সম্পাদনা]

পর্যায়ক্রমে তুতিকোরিন বিমানবন্দরের উন্নয়নের জন্য একটি সুষ্ট পরিকল্পনা বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রস্তুত করা হয়েছে এবং তামিলনাড়ু সরকার ৫৮৬ একর জমি বিনামূল্যে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কোনও ইনফ্রবর্বসেন্স ছাড়াই দেওয়া হয়েছে। ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ের কাছাকাছি। সম্প্রতি রাত্রিকালীন অবরতণ সুবিধাগুলি বিমানবন্দরে স্থাপন করা হয়েছে, যা সকালে, সন্ধ্যায় এবং রাত্রির উড়ানগুলির পরিচালনায় সহায়তা করে।[৬][৭] ভারতীয় বিমান বাহিনী এবং ভারতীয় উপকূররক্ষী বাহিনীর জন্য অতিরিক্ত ১১০ একর জমি চিহ্নিত করা হয়েছে।[৮]

২১ জুলাই ২০১৭ সালে, মোট সাতটি ব্লক থেকে মোট ৩৬৬.২৪ একর পরিমান জমি অধিগ্রহণ করা হয় এবং অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর জমি তুতিকোরিন বিমানবন্দর পরিচালকের কাছে হস্তান্তর করা হয়। বিভিন্ন পর্যায়ে বাকি জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে এবং জেলা প্রশাসন শীঘ্রই সেই জমি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করবে বলে জানান ডিআরও এম ভিরপ্পান। [৯]

৪ এপ্রিল ২০১৮ সালে, আটটি ব্লকের থেকে ৪৪.৬১ একর জমি জেলা কালেক্টর ভেঙ্কটেশ কর্তৃক বিমানবন্দর পরিচালক সুব্রামনীর হাতে হস্তান্তর করা হয়। ৬০১.৯০ একর জমি থেকে বাকি ১৯০ একর জমি হস্তান্তর করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ২ মাসের মধ্যে এ পর্যন্ত ৬৮% জমি অধিগ্রহণের ফলে ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বর্তমান রানওয়েটির সম্প্রসারনের জন্য রানওয়ের উভয় পাশে রানওয়ের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি করে ২,৫০০ মিটার লম্বা এবং ৪৫ মিটারের চওড়া রানওয়ে নির্মান করছে। অধিগৃহীত এলাকা বরাবর সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য দরপত্র জারি করা হয়েছে। একবার সমগ্র ভূমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন এবং ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ হস্তান্তরিত হলে, নতুন টার্মিনাল ভবন, এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল টাওয়ার নির্মান করা হবে এবং তা ২০২০ সালের মধ্যে জনসাধারণের ব্যবহারে জন্য চালু করার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিমানসংস্থা এবং গন্তব্য[সম্পাদনা]

বিমান সংস্থাগন্তব্যস্থল
স্পাইসজেট চেন্নাই

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Traffic Statistics-2016" (PDF)। AAI। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Aircraft Movements-2016" (PDF)। AAI। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. "Cargo Statistics-2016" (PDF)। AAI। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. "Demand to modernise Tuticorin airport"The Hindu। Chennai, India। ২৪ মে ২০১৩। 
  5. "Airport website"। ১৪ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১১ 
  6. Our Correspondent (২০১৩-১২-১৩)। "Night landing at Tuticorin | Business Line"। Thehindubusinessline.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-০৩ 
  7. Mehdudia, Sujay (১৭ মার্চ ২০১০)। "Chennai airport expansion on schedule"। Chennai, India: The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  8. "Tuticorin airport to be expanded"। Chennai, India: The Hindu। ১২ জানু ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১১ 
  9. "Airport expansion: Collector hands over 366 acres of land"। The Hindu। ২০১৭-০৭-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-০৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]