জলগাঁও বিমানবন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জলগাঁও বিমানবন্দর
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনজনসাধারন
মালিকভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ
পরিচালকভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ
সেবা দেয়জলগাঁও
অবস্থানজলগাঁও, মহারাষ্ট্র
এএমএসএল উচ্চতা৮৪০ ফুট / ২৫৬ মিটার
স্থানাঙ্ক২০°৫৭′৪৩″ উত্তর ০৭৫°৩৭′৩৬″ পূর্ব / ২০.৯৬১৯৪° উত্তর ৭৫.৬২৬৬৭° পূর্ব / 20.96194; 75.62667স্থানাঙ্ক: ২০°৫৭′৪৩″ উত্তর ০৭৫°৩৭′৩৬″ পূর্ব / ২০.৯৬১৯৪° উত্তর ৭৫.৬২৬৬৭° পূর্ব / 20.96194; 75.62667
ওয়েবসাইটজলগাঁ বিমানবন্দর
মানচিত্র
ভিএজেএল মহারাষ্ট্র-এ অবস্থিত
ভিএজেএল
ভিএজেএল
ভিএজেএল ভারত-এ অবস্থিত
ভিএজেএল
ভিএজেএল
রানওয়েসমূহ
দিকনির্দেশনা দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
ফুট মি
০৯/২৭ ৫,৫৭৪ ১,৭০০ আস্ফাল্ট

জলগাঁও বিমানবন্দর (আইএটিএ: জেএলএইচ, আইসিএও: ভিএজেএল) ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের নাসিক বিভাগের জলগাঁও শহরের ৬ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব রাজ্য সড়ক ১৮৬- এর পাশে অবস্থিত একটি অন্তর্দেশীয় বিমানবন্দর। বিমানবন্দরটি ২৫৬ মিটার বা ৮৪০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত। বিমান বন্দরটি ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক পরিচালিত হয়। বর্তমানে বিমানবন্দরটি থেকে এয়ার ডেকান মুম্বাই রুটে উড়ান পরিচালনা করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

জলগাঁও বিমানবন্দরটি ১৯৭৩ সালে জনসম্পদ বিভাগ কর্তৃক নির্মিত হয়েছিল।[২] এপ্রিল ১৯৯৭ সালে জলগাঁও পৌর পরিষদ বিমানবন্দরটির কার্যভার গ্রহণ করে এবং এপ্রিল ২০০৭ সালে বিমানবন্দরের কার্যভার " মহারাষ্ট্র বিমানবন্দর উন্নয়ন কোম্পানী"কে হস্তান্তর করে।[৩] ২০০৯ সালের জুলাই মাসে বিদ্যমান বিমনবন্দরে বিমান পরিচালনা করার জন্য বিমানবন্দরের উন্নয়ন ঘটাতে মহারাষ্ট্র সরকার ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ (এএআই) -এর সাথে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করেছে।[৪] ভারতের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল জুন ২০১০ সালে জলগাঁও বিমানবন্দরের উন্নয়নে এবং সম্প্রসারণের জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।[৫] ফেব্রুয়ারী ২০১২ সালে ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ]] (এএআই) প্রথম দফার কাজে ৬১ কোটি টাকা ব্যয় করে[৬] এই প্রথম দফার উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে ছিল একটি অ্যাপ্রন ও ট্যাক্সিওয়ে নির্মান। ২৩ মার্চ ২০১২ সালে ততকালীন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল বিমানবন্দরের উদ্বোধন করেন। [৩] কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা দেয় যে, জলগাঁওসহ দশটি বিমানবন্দর আঞ্চলিক যোগাযোগের স্কিম (আরসিএস) এর অধীনে গড়ে উঠবে এবং উড়ান চালু করা হবে বিমানবন্দরগুলি থেকে। এয়ার ডেকন জালগাঁও থেকে মুম্বাই পর্যন্ত উড়ান শুরু করার চুক্ত বদ্ধ হয়।

এয়ার ডেকান ২২ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে ১৮ আসন বিশিষ্ট বিচক্র্যাফ্ট ১৯০০ বিমানের দ্বারা মুম্বাই রুটে উড়ান পরিচালনা শুরু করে জলগাঁও থেকে।

গঠন[সম্পাদনা]

জলগাঁও বিমানবন্দর ৬৩০ একর এলাকায় গড়ে উঠেছে এবং বিমানবন্দরটিতে একটি ০৯/২৭, ভিত্তিক ১,৭০০ মিটার দীর্ঘ রানওয়ে রয়েছে। ৬৮ মিটার দৈর্ঘ্যের একটি নতুন অ্যাপ্রন ৬৭ মিটার পরিমাপের এটিআর বিমান জন্য একই সময়ে ২ টি দাঁড়ানোর স্থান প্রদান করতে পাড়ে। রানওয়েতে মৌলিক অভিগমন এবং রানওয়ে প্রান্ত আলোর ব্যবস্থা রয়েছ। এই বিমানবন্দরে ন্যাভিগেশন এবং অবতরণ ব্যবস্থার জন্য একটি ডিভিওআর / ডিএমই এবং একটি পিএপিআই (মাত্র ২৭ রানওয়ে) রয়েছে। ৭০০ বর্গ মিটারের টার্মিনাল ভবন ৫০ জন যাত্রী পরিচালনা করতে পারে একই সময়ে।

বিমানসংস্থা এবং গন্তব্য[সম্পাদনা]

সপ্তাহে ৬ দিন এয়ার ডেকান উড়ান পরিচালনা করে জলগাঁও-মুম্বই রুটে।

বিমান সংস্থাগন্তব্যস্থল
এয়ার ডেকান মুম্বাই[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.aai.aero/misc/AIPS_2012_14.pdf[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ] AAI Aerodrome data
  2. "Airstrips in Maharashtra"। Maharashtra Public Works Department। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  3. "President inaugurates Jalgaon airport"। Newstrackindia.com। ২৩ মার্চ ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১২ 
  4. "MADC - Projects"Maharashtra Airport Development Company। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "President lays foundation stone for Jalgaon airport"। Zeenews.com। ১৩ জুন ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  6. "Jalgaon Airport works"Indian Express। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১২। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  7. http://www.livemint.com/Companies/ezMrKNo0kgucmzqjlW3TtK/Air-Deccan-set-to-relaunch-operations-with-Re1-flight-ticket.html

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]