স্থানাঙ্ক: ১০°৪৯′৪১″ উত্তর ৭২°১০′৪৪″ পূর্ব / ১০.৮২৮০৬° উত্তর ৭২.১৭৮৮৯° পূর্ব / 10.82806; 72.17889

আগাট্টি বিমানবন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আগাট্টি বিমানবন্দর
Agatti Airstrip.jpg
২০০৭ সালে আকাশ থেকে আগাট্টি বিমানবন্দরের দৃশ্য
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনপাবলিক
পরিচালকভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ
সেবা দেয়লাক্ষাদ্বীপ, India
অবস্থানআগাট্টি দ্বীপ
এএমএসএল উচ্চতা৪ মিটার / ১৪ ফুট
স্থানাঙ্ক১০°৪৯′৪১″ উত্তর ৭২°১০′৪৪″ পূর্ব / ১০.৮২৮০৬° উত্তর ৭২.১৭৮৮৯° পূর্ব / 10.82806; 72.17889
মানচিত্র
এজিএক্স ভারত-এ অবস্থিত
এজিএক্স
এজিএক্স
ভারতে বিমানবন্দরটির অবস্থান
রানওয়েসমূহ
দিকনির্দেশনা দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
মি ফুট
০৪/২২ ১,২৯১ ৪,২৩৫ আস্ফাল্ট
পরিসংখ্যান (এপ্রিল ২০১৭ - মার্চ ২০১৮)
যাত্রী সংখ্যা39,088 (বৃদ্ধি 26.5 %)
বিমান সংখ্যা (ছোট)1,897 (বৃদ্ধি 1.4%)
পণ্য (টন)13 (বৃদ্ধি _%)

আগাট্টি বিমানবন্দর (আইএটিএ: এজিএক্স, আইসিএও: ভিওএটি) ভারতের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল লাক্ষাদ্বীপের আগাট্টি দ্বীপের দক্ষিণে অবস্থিত একটি বিমানবন্দর। এটি লাক্ষা দ্বীপপুঞ্জের একমাত্র বিমানবন্দর, যা ভারতের পশ্চিম উপকূলে অবস্থিত। এটি একটি ছোট বিমানবন্দর।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৮৭-৮৮ সালে ডরনিয়ার ২২৮ উড়োজাহাজ পরিচালনা করার জন্য বিমানবন্দরটি নির্মিত হয়েছিল এবং ১৬ই এপ্রিল ১৯৮৮ সালে এটির উদ্বোধন করা হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে, টার্মিনালটি একটি সামান্য অস্থায়ী কাঠামোর ওপর শুরু হয়েছিল। টার্মিনাল ভবন, এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল টাওয়ার এবং সম্পর্কিত কাঠামো নির্মাণ ২০০৬ সালে শুরু হয়। তবে, রানওয়ে ও বেসিক স্ট্রিপের প্রস্তাবিত সম্প্রসারণের কারণে টার্মিনাল ভবন নির্মাণ মাঝপথেই বন্ধ করা হয়। [৪] ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১০ সালে এটিআর ৪২ বিমান চালিয়ে এয়ার ইন্ডিয়া রিজিওনাল নামে একটি বিমানসংস্থা কোচির সাথে আগাট্টির সংযোগ স্থাপন করে। [৫] নভেম্বর ২০১০ সালে বিমানবন্দরের রানওয়ের পুনরুজ্জীবন সম্পূর্ণ হয়। [৪]

গঠন[সম্পাদনা]

আগাট্টি বিমানবন্দরটি ১৮.৫৬ হেক্টর (৪৫.৯ একর) জুড়ে বিস্তৃত। বিমানবন্দরটিতে ০৪/২২ অবস্থানে, ১,২০৪ মিটার লম্বা এবং ৩০ মিটার চওড়া একটি পিচ রানওয়ে রয়েছে এবং এর টার্মিনাল ভবনটি একই সময়ে সর্বোচ্চ ৫০ জন যাত্রীকে পরিচালনা করতে পারে। বিমানচালন সহায়কগুলির মধ্যে রয়েছে একটি ডিএমই এবং এনডিবি। এই বিমানবন্দরটি ভারতের বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ (এএআই) দ্বারা পরিচালিত হয়। [৬]

পরিষেবা[সম্পাদনা]

রানওয়ের সীমাবদ্ধতার কারণে এই এয়ারপোর্ট থেকে এটিআর ৭২ বিমান মাত্র ৫০ জন যাত্রী ও যাত্রীপিছু ১৫ কেজি মাল সামগ্রী সমেত উঠা নাম করতে পারে।

অ্যালায়েন্স এয়ার কোচি থেকে এটিআর ৪২ বিমান পরিষেবা পরিচালনা করে।

সম্প্রসারণ[সম্পাদনা]

৩০০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই রানওয়ে সম্প্রসারণ করা হবে এবং কোনও ভারী মালবাহীর সীমাবদ্ধতা ব্যতীত এটিআর-২৭ এর মত বিমান এখানে চালানো যাবে। এএআই মূলত আগাট্টি এবং প্রতিবেশী বসবাসহীন কালপতি দ্বীপের মধ্যে একটি কংক্রিট স্ল্যাব সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা করেছিল যাতে এয়ারবাস এ-৩২০ বা বোয়িং ৭৩৭ বিমান পরিচালনা করার জন্য যথেষ্ট বড় রানওয়ে তৈরি করা যায়। [৭] পূর্বে এই পরিকল্পনাটি পরিবেশগত কারণে বাতিল করা হয়েছিল কারণ সেতুটি একটি কচ্ছপের বসতির মধ্য দিয়ে নির্মানের কথা বলা হয়েছিল এবং কালপতি দ্বীপকে বর্ধিত রানওয়ে দ্বারা করা সংযোগ করার প্রয়োজনে সমান তলে আনার দরকার ছিল। [৮]

ভারতের বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ (এএআই) সমুদ্রের উপরে সমতল থেকে উঁচুতে ১,৫০০ ফুট দীর্ঘ সেতু নির্মাণের মাধ্যমে রানওয়েটি সম্প্রসারণের জন্য পরিবেশগত অনুমোদন পেয়েছে। [৯]

সংশোধিত মহা পরিকল্পনা অনুযায়ী, ১,৫০০ কোটি টাকা খরচে নিম্নলিখিত কাজগুলি করা হবে:

  1. দুটি দ্বীপে সংযোগ ছাড়াই বিদ্যমান রানওয়েকে দক্ষিণ পশ্চিমে দিকে ল্যাগুন বা আভ্যন্তরিণ নোনাজলের একটি হ্রদের উপর দিয়ে কালপতি দ্বীপের দিকে ৩৩৬ মিটার পর্যন্ত প্রসারিত করা হবে।
  1. নতুন টার্মিনাল ভবন নির্মাণ, এটিসি টাওয়ার, প্রযুক্তি বিভাগ এবং অগ্নিনির্বাপন স্টেশন গুলি ল্যাগুন বা অভ্যান্তরিণ নোনাজলের হ্রদের উপর উত্তর-পশ্চিম দিকে আর.সি.সি. স্তম্ভ দ্বারা আলম্বিত একটি প্ল্যাটফর্ম বা মঞ্চের উপর নির্মাণ করা।

প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে তা হবে ভারতের প্রথম সমুদ্র-রানওয়ে বিশিষ্ট প্রথম বিমানবন্দর।

বিমান এবং গন্তব্য[সম্পাদনা]

বিমান সংস্থাগন্তব্যস্থল
এয়ার ইন্ডিয়া কোচি

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Traffic News for the month of March 2018: Annexure-III" (PDF)Airports Authority of India। ১ মে ২০১৮। পৃষ্ঠা 3। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৮ 
  2. "Traffic News for the month of March 2018: Annexure-II" (PDF)Airports Authority of India। ১ মে ২০১৮। পৃষ্ঠা 3। ১ মে ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৮ 
  3. "Traffic News for the month of March 2018: Annexure-IV" (PDF)Airports Authority of India। ১ মে ২০১৮। পৃষ্ঠা 3। ১ মে ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৮ 
  4. "Environment Impact Assessment Report"। Union Territory of Lakshwadeep Official Website। ১৪ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৩ 
  5. "How to reach Lakshwadeep"। Official Website of Union Territory of Lakshwadeep। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  6. Agatti Aerodrome ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩০ আগস্ট ২০১৭ তারিখে at Airports Authority of India
  7. "Environmental Clearance for extension of runway at Agatti" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৩ 
  8. "Bridge on sea to extend Lakshadweep airport runway"The Times of India। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৩ 
  9. "India to Get First Runway on 'Sea Bridge' Soon; Extension of Lakshadweep's Agatti Airport Approved" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]