বাংলাদেশী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

বাংলাদেশী বা বাংলাদেশি বলতে মূলত দক্ষিণ এশিয়ার দেশ বাংলাদেশের ভূখন্ডে বসবাসকারী বাঙালি ও অবাঙালিদেরকে বোঝানো হয়। অর্থাৎ বাংলাদেশী বলতে মূলত বাংলাদেশে বসবাসকারী জাতিকে, কিংবা জন্মসূত্রে বাংলাদেশের বাসিন্দাকে নির্দেশ করা হয়। তবে বাংলাদেশে জন্মগ্রহণকারী বাঙালি, অবাঙালি, এমনকি জন্মের পর বহির্দেশে গমনকারীও বাংলাদেশী হিসেবে পরিচিত হতে পারেন। বাংলাদেশী হবার জন্য বাংলাভাষী হওয়া শর্ত না হলেও, অধিকাংশ বাংলাদেশী মূলত বাংলাভাষী।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দক্ষিণ এশিয়ায় ব্রিটিশ শাসনের শেষাংশে দ্বিজাতিতত্ত্বের ভিত্তিতে ভারতীয় উপমহাদেশের যে বিভাজন করে, তার আগে বাংলাদেশ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গ একই ভূখন্ড ছিল, এবং এদের উভয়ের মুখের ভাষা ছিল বাংলা। তাই এই জাতিকে বাঙালি হিসেবেই চিনতো বিশ্ব। কিন্তু পরবর্তিতে দ্বিজাতিতত্ত্বের ভিত্তিতে বিভাজনের মাধ্যমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে পৃথক করে বাংলাদেশ ভূখন্ডটিকে দেয়া হয় পাকিস্তানের অধীন করে। সেখান থেকে ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ। আর তখন থেকেই বিশ্বব্যাপী নিজস্ব আলাদা জাতিসত্তার পরিচায়ক হিসেবে এই দেশের বাসিন্দা কিংবা জন্মসূত্রে এই দেশের সাথে সম্পর্কিত কাউকে "বাংলাদেশী" আখ্যা দেয়া হয়। এমর্মে সকল বাংলাদেশী একেকজন বাঙালি হলেও সকল বাঙালি বাংলাদেশী নন, এবং বাঙালি শব্দটি যেখানে একাধিক দেশের সাথে সম্পৃক্ত, বাংলাদেশী শব্দটি সেখানে কেবল একটি দেশের (বাংলাদেশ) সাথেই সম্পৃক্ত এবং ঐ একটি দেশেরই আলাদা জাতিসত্তার পরিচায়ক।

অন্যান্য ব্যবহার[সম্পাদনা]

"বাংলাদেশী" শব্দটি দিয়ে "বাংলাদেশের" বা "বাংলাদেশজাত" কথাটিকেও বোঝানো হয়ে থাকে। যেমন: বাংলাদেশী টাকা দ্বারা বোঝানো হয়, বাংলাদেশের টাকা বা বাংলাদেশজাত টাকাকে। এভাবে 'বাংলাদেশী পণ্য', 'বাংলাদেশী চলচ্চিত্র' ইত্যাদি হতে পারে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]