রাঙ্গুনিয়া উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

রাঙ্গুনিয়া বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

অবস্থান[সম্পাদনা]

রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দক্ষিণে বান্দরবান সদরচন্দনাঈশ উপজেলা, পশ্চিমে বোয়ালখালীরাউজান উপজেলা, উত্তরে রাঙ্গামাটি জেলার কাউখালী উপজেলা ও পূর্বে রাঙ্গামাটির কাপ্তাইরাজস্থলী উপজেলা অবস্থিত।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় ১টি পৌরসভা ও ১৫টি ইউনিয়ন রয়েছে। রাঙ্গুনিয়ায় ১টি থানাও আছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মোহাম্মদ তানভীরুল আলম সিদ্দীকী বর্তমানে আছেন।

ইউনিয়ন গুলো হচ্ছে:

বেতাগী, চন্দ্রঘোনা, হোসনাবাদ, কোদালা, মরিয়মনগর, পদুয়া, পারুয়া, পোমরা, রাজানগর, দঃ রাজানগর, রাঙ্গুনিয়া, শরফভাটা, শিলক, লালানগর, ইসলামপুর

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রাঙ্গুনিয়ার অতীত ইতিহাস অত্যন্ত সমৃদ্ধ। চাকমা রাজা ও রোসাং রাজাদের আদিবাস ছিলো এইখানে। মুসলমান শাসকগণও রাঙ্গুনিয়া শাসন করেছেন।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২০০১ সালের আদম শুমারী অনুযায়ী মোট পুরুষ ১৫০৩৪২ জন ও মহিলা ১৫০৯৩০ জন। ২০০৮ সালের ভোটার তালিকা অনু্যায়ী ভোটারের সংখ্যা ১৮৭২৯০ জন।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

রাঙ্গুনিয়ায় ৯টি কলেজ, ৩৮টি উচ্চ বিদ্যালয়, ১টি কামিল মাদ্রাসা, ১৮টি আলিম ও ফাজিল মাদ্রাসা, ১৮টি কঔমি মাদ্রাসা, ৭৮টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১৯টি বেসরকারী রেজিস্টার্ড প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। রাঙ্গুনিয়া কলেজ,রাঙ্গুনিয়া মডেল হাই স্কুল(১৯১৫) ও আলমশাহ্‌পাড়া কামিল মাদ্রাসা এর মধ্যে বিখ্যাত।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

উপজেলার বেশিরভাগ লোক কৃষিনির্ভর। এছাড়া বনজ দ্রব্য যেমনঃ কাঠ, বাঁশ এবং মত্স্য সম্পদ রয়েছে। এছাড়া ২৫ থেকে ৩০ হাজার লোক মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী। বেশ কিছু লোক চট্টগ্রাম শহরে ব্যবসা-বাণিজ্য করে।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • গুণালঙ্কার মহাস্থবির (১৮৭৪ - ১৯১৬) - জন্ম. শীলক গ্রাম, বৌদ্ধ ভিক্ষু ও লেখক।

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]