কাপ্তাই উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Kaptai
কাপ্তাই
উপজেলা
কাপ্তাই উপজেলা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
Kaptai
Location in Bangladesh
স্থানাঙ্ক: ২২°৩০′ উত্তর ৯২°১৩′ পূর্ব / ২২.৫০০° উত্তর ৯২.২১৭° পূর্ব / 22.500; 92.217স্থানাঙ্ক: ২২°৩০′ উত্তর ৯২°১৩′ পূর্ব / ২২.৫০০° উত্তর ৯২.২১৭° পূর্ব / 22.500; 92.217
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ চট্টগ্রাম বিভাগ
জেলা রাঙামাটি জেলা
আয়তন
 • মোট ২৫৯
জনসংখ্যা (2001)
 • মোট ৬৬,১৩৫
 • ঘনত্ব ২৫৫
সময় অঞ্চল BST (ইউটিসি+6)

কাপ্তাই বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের রাঙামাটি জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

আয়তন ও অবস্থান[সম্পাদনা]

দেশের সর্ববৃহৎ পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্নফুলী পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র কাপ্তাই উপজেলায় অবস্থিত

কাপ্তাই উপজেলার আয়তন ২৫৯ বর্গ কিমি। চট্টগ্রাম বিভাগের রাঙামাটি পার্বত্য জেলার অন্তর্গত কাপ্তাই উপজেলার ভৌগোলিক অবস্থান ২২°২১' হতে ২২°৩৫' উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯২°৫' হতে ৯২°১৮' পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যে। উপজেলার উত্তরে কাউখালী ও রাঙামাটি, পূর্বে বিলাইছড়িরাজস্থলী উপজেলা, পশ্চিমে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া ও দক্ষিণে রাজস্থলী উপজেলা।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

কাপ্তাই থানা সৃষ্টি হয় ১৯৭৬ সালে এবং থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ১৯৮৫ সালে। ৫ টি ইউনিয়ন, ১০ টি মৌজা, ১৪৮ টি গ্রাম নিয়ে এই উপজেলা'টি গঠিত।[১] ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- কাপ্তাই, চিতমরম, ওয়াগ্গা, রাইখালীচন্দ্রঘোনা[২] থানা রয়েছে ২ টি (কাপ্তাই ও চন্দ্রঘোনা)। উপজেলা শহর ২টি মৌজা নিয়ে গঠিত। উপজেলা শহরের আয়তন ১২৬.৯১ বর্গ কিমি এবং জনসংখ্যা ৩৭৭২০ জন। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিমি ২৯৭ জন।

উপজেলা পরিষদের গঠন[সম্পাদনা]

বর্তমানে উপজেলার প্রাপ্তবয়স্ক ভোটারদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত একজন চেয়ারম্যান, দুইজন ভাইস-চেয়ারম্যান (যার মধ্যে একজন মহিলা)এবং উপজেলার আওতাধীন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের (চেয়ারম্যান) নিয়ে কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ গঠিত। উল্লেখ্য ইউনিয়ন/পৌরসভার মোট সদস্যসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশ মহিলা আসনের জন্য বরাদ্দ থাকে এবং ইউনিয়ন/পৌরসভার মহিলা সদস্যগণ নিজেদের মধ্য থেকে এই সদস্য নির্বাচন করেন। সরকার কর্তৃক মনোনীত একজন সরকারী কর্মকর্তা বা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউ এন ও) এই পরিষদের সচিব হিসেবে সমস্ত নির্বাহী দায়িত্ব পালন করেন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কাপ্তাই উপজেলার নামকরণে 'কত্থয়' ও 'কিয়ং' শব্দ দু'টির প্রভাব রয়েছে বলে অনেকের ধারণা। কত্থয় অর্থ কোমর আর কিয়ং অর্থ খাল। ১৮৬০ খ্রিস্টাব্দে 'পার্বত্য চট্টগ্রাম'-কে চট্টগ্রাম জেলা থেকে আলাদা করে নতুন জেলা সৃষ্টি করার পর কাপ্তাই এর চন্দ্রঘোনায় এর সদর দপ্তর স্থাপন করা হয়। । কাপ্তাই থানা সৃষ্টি হয় ১৯৭৬ সালে এবং থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ১৯৮৫ সালে। কাপ্তাইকে উপজেলায় রূপান্তরের পূর্ব পর্যন্ত এটি রাঙামাটি পার্বত্য জেলার একটি মহকুমা ছিল। এ উপজেলায় বাঙালিসহ চাকমা,মারমা,ত্রিপুরা,মুরং,খিয়াং,তঞ্চঙ্গ্যা,পাংখোয়া জাতিসত্বার বসবাস রয়েছে।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা ৬৬১৩৫ জন; পুরূষ ৩৬৬৭৭ জন, মহিলা ২৯৪৫৮ জন।[৩] জনসংখ্যার হার প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২৫৫ জন। মুসলমান ৬২.৭৮%, হিন্দু ৫.৯৫%, বৌদ্ধ ৩০.৪৯%, খ্রিষ্টান ০.৬৯% এবং অন্যান্য ০.০৯%।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

কাপ্তাই উপজেলার গড় শিক্ষার হার ৬০%। পুরূষ ৫১.৪৮% এবং নারী ৬৭%। [৪] কাপ্তাই উপজেলাতে ২টি জুনিয়র উচ্চ বিদ্যালয়, ৫৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১টি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ২টি কিন্ডারগার্ডেন, ২টি কলেজ, ২টি দাখিল মাদ্রাসা, ২টি ইবতেদায়ী মাদ্রাসা, ৬৮টি ফোরকানিয়া মাদ্রাসা রয়েছে।[৫] এছাড়াও কারিগরি শিক্ষার জন্য আছে বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট যেখান থেকে প্রকৌশলের বিভিন্ন শাখায় ডিপ্লোমা ডিগ্রি দেওয়া হয়। প্রকৌশলের যেসব শাখায় ডিপ্লোমা ডিগ্রি দেয়া হয় সেগুলো হলো - কম্পিউটার, ইলেক্ট্রিক্যাল, মেকানিক্যাল, অটোমোবাইল, সিভিল (উড) এবং কনস্ট্রাকশন

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

কাপ্তাই এর কৃষি, মত্স্যসম্পদ, বনজ সম্পদ, রেয়নশিল্প ও শিল্পকারখানাগুলি এর অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। প্রধান কৃষি ফসলাদি ধান, পাহাড়ি আলু, তুলা, আদা, শাকসবজি। প্রধান ফল-ফলাদি কাঁঠাল, আম, কলা, লেবু, নারিকেল, আখ, আনারস। প্রধান রপ্তানি দ্রব্য কলা, কাঁঠাল, আদা, মাছ, বিদ্যুৎ, তুলা, বাঁশ, বেঁতশিল্প। দেশের প্রধান জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র, উপমহাদেশের সর্ববৃহত্ কাগজের কল কর্ণফুলী পেপার মিলস, ওয়াগ্গা টি ষ্টেট, কাঠ প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানা, ও বাংলাদেশ টিম্বার এ উপজেলায় অবস্থিত। ১৯৬২ খ্রিষ্টাব্দে নির্মিত কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ উত্পাদন কেন্দ্রের ৫টি ইউনিটের সাহায্যে উত্পাদিত ২৩০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে। মূলত জলবিদ্যুৎ উত্পন্ন করার জন্য কর্ণফুলী নদী'তে বাঁধ দিয়ে কাপ্তাই হ্রদ সৃষ্টি করা হলেও, এই জলাধারে প্রচুর পরিমাণে মিঠাপানির মাছ চাষ হয়। নৌবিহার, বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও কৃষি আবাদ ইত্যাদিতেও এর অবদান উল্লেখযোগ্য।

দর্শনীয় স্থানসমূহ[সম্পাদনা]

বিবিধ[সম্পাদনা]

আয়তন : ২৫৯ বর্গকিলোমিটার

জনসংখ্যা : ৬৬১৩৫ জন

জনসংখ্যার ঘনত্ব : ২৫৫ জন

শিক্ষার হার : ৬০%

থানা : ০২ টি (কাপ্তাই ও চন্দ্রঘোনা)

ইউনিয়ন : ০৫ টি

মৌজা : ১০ টি

হেডম্যান : ০৮ জন

গ্রামের সংখ্যা : ১৪৮

সরকারী হাসপাতাল : ০২ টি

স্বাস্থ্য কেন্দ্র : ০৪ টি

ডাকঘর : ০৬ টি

নদ-নদী : ০১ টি

হাটবাজার : ০৭ টি

ব্যাংক : ০৮ টি

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

বাংলাপিডিয়া

কুইকি ওয়েবসাইটে কাপ্তাই

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

কাপ্তাই প্রোফাইল: জেলা তথ্য বাতায়ন রাঙামাটি

কাপ্তাই প্রোফাইল: বাংলাপিডিয়া

  1. http://www.bbs.gov.bd/RptZillaProfile.aspx Bangladesh Bureau of Statistics, geographic unit, 2001 census
  2. http://www.lged.gov.bd/DistrictArea2.aspx?Area=UnionParishad&DistrictID=17 স্থানীয় সরকার বিভাগের ওয়েবসাইট
  3. http://www.bbs.gov.bd/RptZillaProfile.aspx Bangladesh Bureau of Statistics, population, 2001 census
  4. http://www.bbs.gov.bd/RptPopCen.aspx?page=/PageReportLists.aspx?PARENTKEY=41 Bangladesh Bureau of Statistics, literacy rate
  5. http://www.bbs.gov.bd/RptZillaProfile.aspx Bangladesh Bureau of Statistics, educational institution