২০১৬-১৭ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের ভারত সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৬-১৭ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের ভারত সফর
Flag of India.svg
ভারত
Flag of New Zealand.svg
নিউজিল্যান্ড
তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর – ২৯ অক্টোবর, ২০১৬
অধিনায়ক বিরাট কোহলি (টেস্ট) কেন উইলিয়ামসন
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ ভারত ৩–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান চেতেশ্বর পুজারা (৩৭৩) লুক রঙ্কি (২০০)
সর্বাধিক উইকেট রবিচন্দ্রন অশ্বিন (২৭) ট্রেন্ট বোল্ট (১০)
মিচেল স্যান্টনার (১০)
সিরিজ সেরা রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৫-ম্যাচের সিরিজ ভারত ৩–২ এ জয়ী হয়
সর্বাধিক রান বিরাট কোহলি (৩৫৮) টম ল্যাথাম (২৪৪)
সর্বাধিক উইকেট অমিত মিশ্র (১৫) টিম সাউদি (৭)
সিরিজ সেরা অমিত মিশ্র (ভারত)
২০১২ (পূর্ববর্তী) (পরবর্তী) - →

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল পূর্ব-নির্ধারিত সময়সূচী মোতাবেক সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর, ২০১৬ সালে ভারত সফর করে। এ সফরে দলটি স্বাগতিক ভারত দলের বিপক্ষে তিনটি টেস্ট ও পাঁচটি একদিনের আন্তর্জাতিকে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়।[১][২][৩] ভারত টেস্টে ৩-০ ও একদিনের আন্তর্জাতিকে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জয় করে।

এপ্রিল, ২০১৫ সালে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই) ঘোষণা করে যে, একটি টেস্ট দিবা/রাত্রিতে অনুষ্ঠিত হবে।[৪] নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট মন্তব্য করে যে, খেলাটির নিশ্চয়তার লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি সমস্যার সমাধান করা আবশ্যক।[৫] জুন, ২০১৬ সালে বিসিসিআই ২০১৬-১৭ মৌসুমের সময়সূচী প্রকাশ করলেও দিবা/রাত্রির টেস্টে কথা উল্লেখ করেনি।[৬] কিন্তু বাংলা ক্রিকেট সংস্থার এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, কলকাতায় দিবা/রাত্রির টেস্ট খেলার আয়োজন করা হবে।[৭][৮] জুনের শেষদিকে খেলার তারিখ ঘোষণা করা হয় ও বিসিসিআই স্থানীয় সময় ৯:৩০ ঘটিকায় টেস্টগুলো শুরুর কথা জানায়।[৯]

সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সালে বিসিসিআই কর্ব চথের জন্য ১৯ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবরে দ্বিতীয় ওডিআইয়ের সময় পরিবর্তন করে।[১০][১১] প্রথম টেস্ট কানপুরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে যা ভারতের ৫০০তম টেস্ট খেলা হিসেবে পরিগণিত।[১২]

কলকাতায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টের মাধ্যমে নিজ দেশে ভারত ২৫০তম টেস্ট ম্যাচ উদযাপন করে। ধর্মশালায় অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ওডিআইয়ের মাধ্যমে ভারতের ৯০০তম একদিনের আন্তর্জাতিক উদযাপন করে।[১৩] দ্বিতীয় টেস্ট শেষে প্রতিবেদন আকারে প্রকাশিত হয় যে, লোধা কমিটি বিসিসিআইয়ের ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।[১৪] এ প্রেক্ষাপটে বিসিসিআই সফরের বাদবাকী খেলা বানচালের হুমকি প্রদান করে।[১৫] নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট মন্তব্য করেন যে, তাদের দল সফর চালিয়ে যাবার পক্ষপাতি ও ইন্দোরে অনুষ্ঠিতব্য তৃতীয় টেস্টে অংশগ্রহণের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।[১৬] পরবর্তীতে অবশ্য লোধা কমিটি তাদের অবস্থান স্পষ্ট করে তুলতে বক্তব্য দেয়। তারা জানায় যে, বিসিসিআইয়ের অ্যাকাউন্ট জব্দ নয়; বরং নির্দিষ্ট দুইটি লেনদেন বন্ধ করার অনুরোধ জানিয়েছে।[১৭]

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

টেস্ট ওডিআই
 ভারত[১৮]  নিউজিল্যান্ড[১৯]  ভারত[২০]  নিউজিল্যান্ড[২১]

আঘাতের কারণে টিম সাউদিকে টেস্ট দলের বাইরে রাখা হয় ও ম্যাট হেনরিকে তার স্থলাভিষিক্ত করা হয়।[২২]

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

তিনদিনের: মুম্বই ব নিউজিল্যান্ড একাদশ[সম্পাদনা]

১৬-১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
৩২৪/৭ডি. (৭৫ ওভার)
টম ল্যাথাম ৫৫ (৯৭)
বলবিন্দর সান্ধু ২/২১ (১১ ওভার)
৪৬৪/৮ডি. (১১৪ ওভার)
সূর্যকুমার যাদব ১০৩ (৮৬)
ইশ সোধি ২/১৩২ (২০ ওভার)
২৩৫ (৬৬.৪ ওভার)
লুক রঙ্কি ১০৭ (১১২)
পরীক্ষিৎ বালসঙ্কর ৩/৪১ (১২.৪ ওভার)
  • মুম্বই টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • প্রতি দলে ১৫ খেলোয়াড় (১১ ব্যাটিং, ১১ ফিল্ডিং)।

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

২২-২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
স্কোরকার্ড
৩১৮ (৯৭ ওভার)
মুরলী বিজয় ৬৫ (১৭০)
ট্রেন্ট বোল্ট ৩/৬৭ (২০ ওভার)
২৬২ (৯৫.৫ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ৭৫ (১৩৭)
রবীন্দ্র জাদেজা ৫/৭ ৩ (৩৪ ওভার)
৩৭৭/৫ডি. (১০৭.২ ওভার)
চেতেশ্বর পুজারা ৭৮ (১৫২)
মিচেল স্যান্টনার ২/৭৯ (৩২.২ ওভার)
২৩৬ (৮৭.৩ ওভার)
লুক রঙ্কি ৮০ (১২০)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৬/১৩২ (৩৫.৩ ওভার)
ভারত ১৯৭ রানে বিজয়ী
গ্রীন পার্ক স্টেডিয়াম, কানপুর
আম্পায়ার: রিচার্ড কেটেলবরা (ইংল্যান্ড) ও রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: রবীন্দ্র জাদেজা (ভারত)
  • ভারত টসে জয়লাভ করে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ২য় দিন চাবিরতির পর বৃষ্টি আঘাত হানে। ফলশ্রুতিতে আর খেলা সম্ভব হয়নি।
  • এ টেস্টটি ভারতের ৫০০তম টেস্ট।[১২]
  • ভারতের পক্ষে রবিচন্দ্রন অশ্বিন দ্বিতীয় দ্রুততম সময়ে ২০০ টেস্ট উইকেট পান।[২৩]

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

৩০ সেপ্টেম্বর-৪ অক্টোবর, ২০১৬
স্কোরকার্ড
৩১৬ (১০৪.৫ ওভার)
চেতেশ্বর পুজারা ৮৭ (২১৯)
ম্যাট হেনরি ৩/৪৬ (১৫ ওভার)
২০৪ (৫৩ ওভার)
জিতেন প্যাটেল ৪৭ (৪৭)
ভুবনেশ্বর কুমার ৫/৪৮ (১৫ ওভার)
২৬৩ (৭৬.৫ ওভার)
রোহিত শর্মা ৮২ (১৩২)
ট্রেন্ট বোল্ট ৩/৩৮ (১৭.৫ ওভার)
১৯৭ (৮১.১ ওভার)
টম ল্যাথাম ৭৪ (১৪৮)
রবীন্দ্র জাদেজা ৩/৪১ (২০ ওভার)
ভারত ১৭৮ রানে বিজয়ী
ইডেন গার্ডেন্স, কলকাতা
আম্পায়ার: রিচার্ড কেটেলবরা (ইংল্যান্ড) ও রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: ঋদ্ধিমান সাহা (ভারত)
  • ভারত টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ২য় দিন বিকেলে বৃষ্টির কারণে দুই ঘন্টা বিলম্বে খেলা শুরু হয়।
  • ভারতের মাটিতে এ টেস্টটি ২৫০তম।[২৪][২৫]
  • কেন উইলিয়ামসন জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় রস টেলর অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন।[২৬]

৩য় টেস্ট[সম্পাদনা]

৮-১২ অক্টোবর, ২০১৬
স্কোরকার্ড
৫৫৭/৫ডি (১৬৯ ওভার)
বিরাট কোহলি ২১১ (৩৬৬)
ট্রেন্ট বোল্ট ২/১১৩ (৩২ ওভার)
২৯৯ (৯০.২ ওভার)
মার্টিন গাপটিল ৭২ (১৪৪)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৬/৮১ (২৭.২ ওভার)
২১৬/৩ডি (৪৯ ওভার)
চেতেশ্বর পুজারা ১০১* (১৪৮)
জিতেন প্যাটেল ২/৫৬ (১৪ ওভার)
১৫৩ (৪৪.৫ ওভার)
রস টেলর ৩২ (২৫)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৭/৫৯ (১৩.৫ ওভার)
ভারত ৩২১ রানে বিজয়ী
হোল্কার স্টেডিয়াম, ইন্দোর
আম্পায়ার: কুমার ধর্মসেনা (শ্রীলঙ্কা) ও ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত)
  • ভারত টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • প্রথমবারের মতো এ মাঠে টেস্ট খেলার আয়োজন করা হয়।

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

১৬ অক্টোবর, ২০১৬
১৩:৩০ আইএসটি (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
১৯০ (৪৩.৫ ওভার)
 ভারত
১৯৪/৪ (৩৩.১ ওভার)
টম ল্যাথাম ৭৯* (৯৮)
হারদিক পাণ্ডা ৩/৩১ (৭ ওভার)
বিরাট কোহলি ৮৫* (৮১)
ইশ সোধি ১.৩৪ (৪.১ ওভার)

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২০ অক্টোবর, ২০১৬
১৩:৩০ আইএসটি (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
২৪২/৯ (৫০ ওভার)
 ভারত
২৩৬ (৪৯.৩ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ১১৮ (১২৮)
যশপ্রীত বুমরাহ ৩/৩৫ (১০ ওভার)
কেদার যাদব ৪১ (৩৭)
টিম সাউদি ৩/৫২ (৯.৩ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৬ রানে বিজয়ী
ফিরোজ শাহ কোটলা মাঠ, দিল্লি
আম্পায়ার: অনিল চৌধুরী (ভারত) ও ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া)
সেরা খেলোয়াড়: কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)
  • ভারত টসে জয়ী হয়ে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ভারত ৪০০তম ওডিআইয়ে পরাজয়বরণের রেকর্ড গড়ে।[২৯]
  • রোহিত শর্মা (ভারত) তার ১৫০তম ওডিআইয়ে অংশ নেন।[২৯]
  • লুক রঙ্কি (নিউজিল্যান্ড) উইকেট-রক্ষক হিসেবে শততম ডিসমিসাল ঘটান।[২৯]
  • ৫ম নিউজিল্যান্ডীয় হিসেবে কেন উইলিয়ামসন আট বা ততোধিক সেঞ্চুরি করেন। নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় অধিনায়ক হিসেবে ভারতের বিপক্ষে সেঞ্চুরি ও ভারতে ভারতেরই বিপক্ষে সর্বোচ্চ রান তোলেন।[২৯]
  • ১৩ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ওডিআইয়ে ভারতে ভারতের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড জয় পায় ও প্রথমবারের মতো ফিরোজ শাহ কোটলায় জয় পায়।[২৯]

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৩ অক্টোবর, ২০১৬
১৩:৩০ আইএসটি (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
২৮৫ (৪৯.৪ ওভার)
 ভারত
২৮৯/৩ (৪৮.২ ওভার)
টম ল্যাথাম ৬১ (৭২)
কেদার যাদব ৩/২৯ (৫ ওভার)
বিরাট কোহলি ১৫৪* (১৩৪)
ম্যাট হেনরি ২/৫৬ (৯.২ ওভার)
  • ভারত টসে জয়ী হয়ে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ওডিআইয়ে ৯ম উইকেট জুটিতে জেমস নিশাম-ম্যাট হেনরি নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ জুটি গড়েন।[৩০]
  • মহেন্দ্র সিং ধোনি ওডিআইয়ে ৯,০০০ রান তোলেন ও ভারতের পক্ষসহ অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক ছক্কা হাঁকান।[৩১]
  • বিরাট কোহলি তার ২৬তম ওডিআই সেঞ্চুরি করেন। এ মাঠে তার করা অপরাজিত ১৫৪ রান যে-কোন খেলোয়াড়ের জন্য সর্বোচ্চ সংগ্রহ।
  • বিরাট কোহলি’র সেঞ্চুরি জয়ের লক্ষ্যমাত্রায় ১৪বার সফল হন যা যৌথভাবে সর্বোচ্চ।[৩২]
  • ওডিআইয়ে বিরাট কোহলি নিজদেশে দ্রুতততম ৬৩ খেলায় ৩,০০০ ওডিআই রান তোলেন।[৩২]
  • প্রথম উইকেট-রক্ষক হিসেবে এমএস ধোনি ওডিআইয়ে ১৫০তম স্ট্যাম্পিং করেন।[৩২]

৪র্থ ওডিআই[সম্পাদনা]

২৬ অক্টোবর, ২০১৬
১৩:৩০ আইএসটি (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
২৬০/৭ (৫০ ওভার)
 ভারত
২৪১ (৪৮.৪ ওভার)
মার্টিন গাপটিল ৭২ (৮৪)
অমিত মিশ্র ২/৪১ (১০ ওভার)
অজিঙ্কা রাহানে ৫৭ (৭০)
টিম সাউদি ৩/৪০ (৯ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

৫ম ওডিআই[সম্পাদনা]

২৯ অক্টোবর, ২০১৬
১৩:৩০ আইএসটি (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ভারত 
২৬৯/৬ (৫০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
৭৯ (২৩.১ ওভার)
রোহিত শর্মা ৭০ (৬৫)
ট্রেন্ট বোল্ট ২/৫২ (১০ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ২৭ (৪০)
অমিত মিশ্র ৫/১৮ (৬ ওভার)
  • ভারত টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ভারতের পক্ষে জয়ন্ত যাদবের ওডিআই অভিষেক ঘটে।
  • ভারতের সি. কে. নন্দন প্রথমবারের মতো ওডিআই আম্পায়ার হিসেবে খেলা পরিচালনা করেন।
  • ভারতের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড তাদের সর্বনিম্ন সংগ্রহসহ ওডিআইয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন ইনিংস গড়ে।[৩৩]
  • ওডিআইয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অমিত মিশ্র তার সেরা বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন।[৩৪]
  • ভারতে অনুষ্ঠিত ভারত-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দ্বি-পক্ষীয় ওডিআই সিরিজে বিরাট কোহলি যে-কোন খেলোয়াড়ের চেয়ে সর্বাধিক ৩৫৮ রান তোলেন।[৩৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Cricket Schedule 2016: Fixtures and dates of all major series and matches of the New Year"International Business Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৬ 
  2. "Cricket: Please save us from groundhog day"New Zealand Herald (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৬ 
  3. "India Cricket Schedule 2016: Fixtures and dates of all matches for Men in Blue in New Year"International Business Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৬ 
  4. "'India to host day-night Test against New Zealand'"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৬ 
  5. "Day-night Test details not finalised yet - NZC"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৬ 
  6. "BCCI ushers in big home season: 13 Tests, six new venues"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০১৬ 
  7. "Eden Gardens to host India's first day-night Test against New Zealand"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৬ 
  8. "Eden to host India's first day-night Test"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৬ 
  9. "No day-night Test in India-NZ series"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৬ 
  10. "India-New Zealand 2nd ODI shift to 20th Oct"Crictotal (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  11. "Delhi ODI to be pushed back to October 20"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  12. "A landmark Test to start a landmark season"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  13. "New Zealand's chance to shrug off Test hangover"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  14. "Indian board's bank accounts frozen and New Zealand tour in doubt - reports"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  15. "Miffed BCCI to cancel ongoing India-New Zealand series"Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  16. "Black Caps tour of India to be cancelled as scandal strikes BCCI"Stuff (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  17. "Lodha Committee clarifies BCCI's NZ series-cancellation claim"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  18. "India at full strength for New Zealand Tests"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  19. "Neesham returns to New Zealand Test squad"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  20. "Ashwin, Jadeja, Shami rested for first three NZ ODIs"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  21. "Anderson returns to NZ ODI squad as specialist batsman"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  22. "Southee ruled out of India Tests, Henry called up"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  23. "Ashwin second-fastest to 200 Test wickets"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  24. "Eden Gardens the perfect stage for India's 250th Test at home" (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  25. "India v NZ, 2nd Test, Kolkata: Rampant India eye series win in 250th home Test - Times of India" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  26. "Henry leads NZ fight in Williamson's absence"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  27. "India end winless spell against New Zealand"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  28. "Pandya's debut three-for sets up India's six-wicket win"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  29. "India vs New Zealand - 2nd ODI: Stats"Sports Keeda (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৬ 
  30. "Cricket Records – Records – New Zealand – One-Day Internationals – Highest partnerships by wickets"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  31. "Dhoni's 9000 runs: 244 innings, 10109 balls"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  32. "India v New Zealand Third ODI stats: Kohli's masterclass in Mohali gives India 2-1 lead"Sports Keeda (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  33. "Mishra five-for rolls New Zealand over for 79"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৬ 
  34. "Mishra second only to Mishra"ইএসপিএন ক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]