২০১৭-১৮ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের ভারত সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১৭-১৮ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের ভারত সফর
Flag of India.svg
ভারত
Flag of New Zealand.svg
নিউজিল্যান্ড
তারিখ ২২ অক্টোবর – ৭ নভেম্বর ২০১৭
অধিনায়ক বিরাট কোহলি কেন উইলিয়ামসন
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩ ম্যাচের সিরিজে ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান বিরাট কোহলি (২৬৩) টম ল্যাথাম (২০৬)
সর্বাধিক উইকেট জসপ্রীত বুমরাহ (৬) টিম সাউদি (৬)
সিরিজ সেরা বিরাট কোহলি (ভারত)
টোয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩ ম্যাচের সিরিজে ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান বিরাট কোহলি (১০৪) কলিন মানরো (১২৩)
সর্বাধিক উইকেট জসপ্রীত বুমরাহ (৩)
যুজবেন্দ্র চাহাল (৩)
ট্রেন্ট বোল্ট (৬)
সিরিজ সেরা জসপ্রীত বুমরাহ (ভারত)

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং তিনটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলার জন্য ভারত সফর করে, যা অক্টোবর থেকে নভেম্বর ২০১৭-এ অনুষ্ঠিত হয়।

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

ওডিআই টি২০আই
 ভারত  নিউজিল্যান্ড  ভারত  নিউজিল্যান্ড

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

একদিনের ম্যাচ: ভারত বোর্ডের প্রেসিডেন্টের একাদশ বনাম নিউজিল্যান্ড[সম্পাদনা]

১৭ অক্টোবর ২০১৭
 নিউজিল্যান্ড
২৬৫ (৪৭.৪ ওভার)
করুণ নায়ার ৭৮ (৬৪)
ট্রেন্ট বোল্ট ৫/৩৮ (৯ ওভার)
টম ল্যাথাম ৫৯ (৬৩)
শাহবাজ নাদিম ৩/৪১ (১০ ওভার)
ভারত ক্রিকেট প্রেসিডেন্ট একাদশ ৩০ রানে জয়ী
ব্রাবোর্ন স্টেডিয়াম, মুম্বই
আম্পায়ার: রোহান পণ্ডিত (ভারত) ও কৃষ্ণমাচারি শ্রীনিবাসান (ভারত)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • প্রতি পক্ষের ১৩ জন খেলোয়াড় (১১ ব্যাটিং, ১১ ফিল্ডিং)।

দুইদিনের ম্যাচ: ভারত বোর্ডের প্রেসিডেন্টের একাদশ বনাম নিউজিল্যান্ড[সম্পাদনা]

১৯ অক্টোবর ২০১৭
নিউজিল্যান্ড 
৩৪৩343/৮ (৫০ ওভার)
টম ল্যাথাম ১০৮ (৮৭)
জয়দেব উনাদকট ৩/৫৭ (১০ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • প্রতি পক্ষের ১৫ জন খেলোয়াড় (১১ ব্যাটিং, ১১ ফিল্ডিং)।

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

২২ অক্টোবর ২০১৭
১৩:৩০ (দিন/রাত)
ভারত 
২৮০/৮ (৫০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
২৮৪/৪ (৪৯ ওভার)
বিরাট কোহলি ১২১ (১২৫)
ট্রেন্ট বোল্ট ৪/৩৫ (১০ ওভার)
টম ল্যাথাম ১০৩* (১০২)
হার্দিক পাণ্ড্য ১/৪৬ (১০ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৬ উইকেটে জয়ী
ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম, মুম্বই
আম্পায়ার: মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড) ও সি. কে. নন্দন (ভারত)
ম্যাচসেরা: টম ল্যাথাম (নিউজিল্যান্ড)
  • ভারত টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বিরাট কোহলি (ভারত) তার ২০০তম ওডিআই খেলেছে।
  • টম ল্যাথামরস টেলর (নিউজিল্যান্ড) ভারতে ওডিআইতে দ্বিতীয় ব্যাট করতে গিয়ে দর্শনীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপটি গড়ায় (২০০)।

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৫ অক্টোবর ২০১৭
১৩:৩০ (দিন/রাত)
নিউজিল্যান্ড 
২৩০/৯ (৫০ ওভার)
 ভারত
২৩২/৪ (৪৬ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৯ অক্টোবর ২০১৭
১৩:৩০ (দিন/রাত)
ভারত 
৩৩৭/৬ (৫০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
৩৩১/৭ (৫০ ওভার)
রোহিত শর্মা ১৪৭ (১৩৮)
মিচেল স্যান্টনার ২/৫৮ (১০ ওভার)
কলিন মানরো ৭৫ (৬২)
জসপ্রীত বুমরাহ ৩/৪৭ (১০ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বিরাট কোহলি (ভারত) দ্রুততম ব্যাটসম্যান হয়েছেন, ইনিংস খেলে, ওয়ানডেতে ৯,০০০ রান (১৯৯)।
  • রোহিত শর্মাবিরাট কোহলি (ভারত) তার চতুর্থ ডাবল-সেঞ্চুরি রেকর্ড করেছেন অংশীদারিত্ব ওডিআইতে, কোনও জুটির মধ্যে সর্বাধিক।

টি২০আই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টি২০আই[সম্পাদনা]

১ নভেম্বর ২০১৭
১৯:০০ (রাত)
scorecard
ভারত 
২০২/৩ (২০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
১৪৯/৮ (২০ ওভার)
শিখর ধাওয়ান ৮০ (৫২)
ইশ সোধি ২/২৫ (৪ ওভার)
টম ল্যাথাম ৩৯ (৩৬)
অক্ষর প্যাটেল ২/২০ (৪ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • শ্রেয়াস আইয়ার (ভারত) তার টি২০আই অভিষেক হয়।
  • আশীষ নেহরা (ভারত) তার চূড়ান্ত আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে।
  • রোহিত শর্মাশিখর ধাওয়ান টি২০আইতে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ রেকর্ড করা হয়েছে (১৫৪)।
  • টি-টোয়েন্টিতে এটি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের প্রথম জয়।

২য় টি২০আই[সম্পাদনা]

৪ নভেম্বর ২০১৭
১৯:০০ (রাত)
scorecard
নিউজিল্যান্ড 
১৯৬/২ (২০ ওভার)
 ভারত
১৫৬/৭ (২০ ওভার)
কলিন মানরো ১০৯* (৫৮)
যুজবেন্দ্র চাহাল ১/৩৬ (৪ ওভার)
বিরাট কোহলি ৬৫ (৪২)
ট্রেন্ট বোল্ট ৪/৩৪ (৪ ওভার)

৩য় টি২০আই[সম্পাদনা]

৭ নভেম্বর ২০১৭
১৯:০০ (রাত)
scorecard
ভারত 
৬৭/৫ (৮ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
৬১/৬ (৮ ওভার)
মনিশ পাণ্ডে ১৭ (১১)
টিম সাউদি ২/১৩ (২ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বৃষ্টির কারণে খেলাটিকে ৮ ওভারে সীমিত করা হয়।
  • এটি এই ভেন্যুতে প্রথম টি২০আই ছিল এবং ভারতের ৫০তম ভেন্যু একটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ হোস্ট করার জন্য।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]