লুক রঙ্কি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
লুক রঙ্কি
Luke Ronchi 2010.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামলুক রঙ্কি
জন্ম (১৯৮১-০৪-২৩) ২৩ এপ্রিল ১৯৮১ (বয়স ৩৭)
ড্যানেভার্ক, মানাওয়াতু-ওয়াঙ্গানুই, নিউজিল্যান্ড
ডাকনামরক
উচ্চতা১.৮০ মিটার (৫ ফুট ১১ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৬৬/১৮০)
২৭ জুন ২০০৮ 
অস্ট্রেলিয়া বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ ওডিআই৩১ মে ২০১৩ 
নিউজিল্যান্ড বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০২-২০১২ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া
২০০৮-২০০৯মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স
২০১১-২০১২পার্থ স্কর্চার্স
২০১২-২০১৩ওয়েলিংটন
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১০ ৭৫ ১০৪
রানের সংখ্যা ১২৩ ৪৭ ৪,১৫৩ ২,৫৮৪
ব্যাটিং গড় ১৫.৩৭ ২৩.৫০ ৩৮.৪৫ ২৮.৩৯
১০০/৫০ ০/১ ০/০ ১৩/১৪ ৫/১৭
সর্বোচ্চ রান ৬৪ ৩৬ ১৪৮ ১১৩*
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৩/৩ ০/০ ২৬৯/১২ ১৪১/২০
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ২৫ অক্টোবর ২০১৩

লুক রঙ্কি (/ˈrɒŋki/; RONG-ki; ইংরেজি: Luke Ronchi; জন্ম: ২৩ এপ্রিল, ১৯৮১) মানাওয়াতু-ওয়াঙ্গানুইয়ের ড্যানেভার্ক এলাকায় জন্মগ্রহণকারী নিউজিল্যান্ডীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের হয়ে খেলছেন। খেলায় তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষক হিসেবে অংশগ্রহণ করে থাকেন। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়েলিংটনের সাথে বর্তমানে চুক্তিবদ্ধ তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে খেলার সুযোগ ঘটেছে তার। নিউজিল্যান্ডের মানাওয়াতু-ওয়াঙ্গানুই অঞ্চলের ড্যানিভার্ক এলাকায় জন্মগ্রহণকারী রঙ্কি শৈশবকালে পিতা-মাতার সাথে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার পার্থে অভিবাসিত হয়েছিলেন। জানুয়ারি, ২০০২ সালে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া দলের হয়ে আইএনজি কাপের মাধ্যমে ক্রিকেট খেলায় অভিষেক ঘটে তার। দলের মূল উইকেট-রক্ষক রায়ান ক্যাম্পবেলের সাথে তিনি দ্বিতীয় অবস্থানে ছিলেন। ২০০৬ সালে ক্যাম্পবেলের অবসরের পর তিনি ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার মূল উইকেট-রক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৭ থেকে ২০০৯ সালের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের মূল উইকেট-রক্ষক ব্র্যাড হাড্ডিনের পাশাপাশি অবস্থান করেন ও অস্ট্রেলিয়া এ দলের হয়ে বেশ কয়েকটি খেলায় অংশগ্রহণ করেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

এপ্রিল, ২০০৮ সালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া রঙ্কিকে পাশ কাটিয়ে ও একমাত্র উইকেট-রক্ষক হিসেবে ব্র্যাড হাড্ডিনকে দলে রেখে ২৫জন খেলোয়াড়ের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়।[১] চুক্তিবদ্ধ না হয়েও জুন, ২০০৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে হাড্ডিনের আঙ্গুলে আঘাতজনিত অনুপস্থিতির জন্য তার ডাক পড়ে। সফরে টুয়েন্টি২০ খেলায় ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড় শন মার্শের সাথে তারও অভিষেক ঘটে।[২] মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড (এমসিজি)তে অনুষ্ঠিত টুয়েন্টি২০তে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিনি অভিষিক্ত হন।[৩] কিন্তু প্রথম দুইটি একদিনের আন্তর্জাতিক খেলায় তার ব্যাটিংয়ের প্রয়োজন পড়েনি। সিরিজের চূড়ান্ত খেলায় ব্যাটিংয়ের অবস্থান পরিবর্তন করে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২৮ বলে ৬৪ রান করে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে দ্বিতীয় দ্রুতম অর্ধ-শতক করেন, যাতে ছয়টি বিশাল ছক্কার মার ছিল। পরবর্তীতে একই খেলায় ডেভিড হাসিও দ্রুততম অর্ধ-শতক করায় রঙ্কির রেকর্ড গিয়ে দাঁড়ায় তৃতীয়। ঐ খেলায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার লাভ করেছিলেন।[৪]

নিউজিল্যান্ডে ফেরৎ[সম্পাদনা]

ফেব্রুয়ারি, ২০১২ তারিখে রঙ্কি নিউজিল্যান্ডে ফিরে আসার আগ্রহ ব্যক্ত করেন ও জাতীয় দলে প্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে কৃতকার্য হন।[৫] মার্চ, ২০১২ তারিখে ওয়েলিংটনের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হন। ১৮ মার্চ প্লাঙ্কেট শীল্ড প্রতিযোগিতায় সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টসের বিপক্ষে ১১১ রানের সেঞ্চুরি করেন।[৬][৭] এপ্রিল, ২০১৩ সালে রঙ্কি নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক একদিনের আন্তর্জাতিক দলের সদস্যরূপে মনোনীত হন ও পরের মাসেই দলের সাথে ইংল্যান্ড সফরে যান।[৮] ৩১ মে, ২০১৩ তারিখে লর্ডসে অনুষ্ঠিত একদিনের ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ড দলের হয়ে তার অভিষেক ঘটে। খেলায় তিনি শূন্য রানে ফেরত যান ও তিনটি ক্যাচ ধরেন।[৯] এরফলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে তিনি প্রথম খেলোয়াড়রূপে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড দলের পক্ষে, ৭ম খেলোয়াড়রূপে একদিনের আন্তর্জাতিক এবং ১৯৮০-এর দশকে কেপলার ওয়েসেলসের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল অনুমোদিত দু’টি পূর্ণাঙ্গ সদস্যভূক্ত দলের হয়ে খেলেন।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bollinger and Marsh receive contracts; Cricinfo; 9 April 2008
  2. West Indies vs Australia Scorecard; Cricket Archive; 20 June 2008
  3. AAP/Cooper, Adam; Haddin's back-up ready to excel; 11 January 2009
  4. Brown, Alex; Ronchi and Hussey blast Australia to record win; Sydney Morning Herald; 7 July 2008
  5. Foreman, Glen (2012). WA wicketkeeper Luke Ronchi set to move to New Zealand – PerthNow. Posted 16 February 2012. Retrieved 16 February 2012.
  6. Wellington v Central Districts – ESPNCricinfo. Retrieved 18 March 2012.
  7. Bidwell, Hamish (2012). Luke Ronchi flies in for CD shield clash – stuff.co.nz. Published 17 March 2012. Retrieved 18 March 2012.
  8. http://www.bbc.co.uk/sport/0/cricket/22038288
  9. Former Australia wicket-keeper Luke Ronchi to make debut for New Zealand in ODI against England – Fox Sports. Published 31 May 2013. Retrieved 1 June 2013.
  10. McGlashan, Andrew (2013). Ronchi reappears over the Tasman sea – ESPNCricinfo. Published 31 May 2013. Retrieved 1 June 2013.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]