২০১৬-১৭ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৬-১৭ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর
Flag of Sri Lanka.svg
শ্রীলঙ্কা
Flag of Bangladesh.svg
বাংলাদেশ
তারিখ ৭ মার্চ – ৬ এপ্রিল ২০১৭
অধিনায়ক রঙ্গনা হেরাথ (টেস্ট)
উপুল থারাঙ্গা (ওডিআই ও টি২০আই)
মুশফিকুর রহিম (টেস্ট)
মাশরাফি বিন মর্তুজা (ওডিআই ও টি২০আই)
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ২-ম্যাচের সিরিজ ১–১ এ ড্র হয়
সর্বাধিক রান কুশল মেন্ডিস (২৫৪) তামিম ইকবাল (২০৭)
সর্বাধিক উইকেট রঙ্গনা হেরাথ (১৬) মেহেদী হাসান (১০)
সিরিজ সেরা সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ ১–১ এ ড্র হয়
সর্বাধিক রান কুশল মেন্ডিস (১৬০) তামিম ইকবাল (১৩১)
সর্বাধিক উইকেট নুয়ান কুলাসেকারা (৪)
সুরঙ্গা লাকমল (৪)
তাসকিন আহমেদ (৬)
মাশরাফি বিন মুর্তজা (৬)
মুস্তাফিজুর রহমান (৬)
সিরিজ সেরা কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা)
টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ২-ম্যাচের সিরিজ ১–১ এ ড্র হয়
সর্বাধিক রান কুশল পেরেরা (৮১) সৌম্য সরকার (৬৩)
সর্বাধিক উইকেট লাসিথ মালিঙ্গা (৫) মুস্তাফিজুর রহমান (৪)
সিরিজ সেরা লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা)

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল তিনটি টেস্ট ক্রিকেট, তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং দুইটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলার জন্য শ্রীলঙ্কা সফর করে, যা মার্চ থেকে এপ্রিল ২০১৭-এ অনুষ্ঠিত হয়। এই সফরের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচটি ছিল বাংলাদেশের ১০০ তম টেস্ট ম্যাচ। এই সফরের শুরুতে টেস্ট ম্যাচকে সামনে রেখে দু'দিনের একটি অনুশীলনমূলক ম্যাচ এবং ওয়ানডেকে সামনে রেখে একদিনের একটি অনুশীলনমূলক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। টেস্ট সিরিজটি ৭ মার্চ শুরু হয়; বাংলাদেশের জন্য ৭ই মার্চ তারিখটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তারিখ হওয়ায় টেস্ট সিরিজের স্বত্ব কেনা প্রতিষ্ঠান সিরিজের নামকরণ করে জয় বাংলা কাপ[১]

সিরিজ শুরুর আগে, শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে টেস্ট দল থেকে বাদ যান। রঙ্গনা হেরাথকে তার জায়গায় অধিনায়ক হিসাবে ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে, ম্যাথিউস ওডিআই এবং টি২০আই সিরিজ খেলার জন্য সুস্থ না হতে পারায় উপুল থারাঙ্গা উভয় ফরম্যাটের জন্য দলের অধিনায়ক হিসাবে ঘোষণা করা হয়।

টেস্ট সিরিজটি ১-১-এ ড্র হয়। প্রথম ম্যাচটি বাংলাদেশ ২৫৯ রানে পরাজিত হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ ৪ উইকেটে জয় লাভ করে। এটি টেস্ট ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম জয়। টেস্টে এটি তাদের নবম জয় এবং বিদেশের মাটিতে চতুর্থ জয়। একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজটিও ১-১-এ ড্র হয়। বৃষ্টির কারণে ওডিআই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে কোন ফলাফল হয়নি। সফরের টি২০আই সিরিজটিও ১-১-এ ড্র হয়।

একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজটি শেষে, বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা তৃতীয় ম্যাচে স্লো ওভার রেট বজায় রাখার জন্য এক ম্যাচের জন্য সাসপেন্ড করা হয়। টি২০আই সিরিজের প্রথম ম্যাচে মুদ্রা নিক্ষেপের সময় মাশরাফি মুর্তজা এই সিরিজ শেষে টি২০আই থেকে অবসর নেয়ার ঘোষণা দেন।

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

টেস্ট ওডিআই টি২০আই
 শ্রীলঙ্কা[২]  বাংলাদেশ[৩]  শ্রীলঙ্কা[৪]  বাংলাদেশ[৫]  শ্রীলঙ্কা[৬]  বাংলাদেশ[৭]

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

দুই দিনের ম্যাচ[সম্পাদনা]

২–৩ মার্চ ২০১৭
স্কোরকার্ড
৩৯১/৭ (৯০ ওভার)
তামিম ইকবাল ১৩৬ (১৮২)
চামিকা করুনারত্নে ৩/৬১ (১৭ ওভার)
৪০৩/৭ (৯০ ওভার)
দিনেশ চান্ডিমাল ১৯০* (২৫৩)
তাসকিন আহমেদ ৩/৪১ (১১ ওভার)
  • শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট প্রেসিডেন্ট একাদশ টসে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • পার্শ্ব প্রতি ১২ জন (১১ জন বল ও ১১ জন ব্যাট)

একদিনের ম্যাচ[সম্পাদনা]

২২ মার্চ ২০১৭
স্কোরকার্ড
 বাংলাদেশ
৩৫২/৮ (৫০ ওভার)
শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট প্রেসিডেন্ট একাদশ ২ রানে জয়ী
কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব মাঠ, কলম্বো
আম্পায়ার: হেমান্থা বোতেজু (শ্রীলঙ্কা) এবং লিন্ডন হানিবল (শ্রীলঙ্কা)
  • বাংলাদেশ টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • প্রতি দলে ১৮ জন (১১ জন ব্যাট, ১১ জন বল)

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

৭–১১ মার্চ ২০১৭
স্কোরকার্ড
৪৯৪ (১২৯.১ ওভার)
কুশল মেন্ডিস ১৯৪ (২৮৫)
মেহেদী হাসান ৪/১১৩ (২২ ওভার)
৩১২ (৯৭.২ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ৮৫ (১৬১)
দিলরুয়ান পেরেরা ৩/৫৩ (১৯ ওভার)
২৭৪/৬ঘো (৬৯ ওভার)
উপুল থারাঙ্গা ১১৫ (১৭১)
মেহেদী হাসান ২/৭৭ (২০ ওভার)
১৯৭ (৬০.২ ওভার)
মেহেদী হাসান ২/৭৭ (২০ ওভার)
রঙ্গনা হেরাথ ৬/৫৯ (২০.২ ওভার)
শ্রীলঙ্কা ২৫৯ রানে জয়ী
গালে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, গালে
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও মারাইজ ইরাসমাস (দক্ষিণ আফ্রিকা)
ম্যাচসেরা: কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বৃষ্টির কারণে ৩য় দিনের ৩য় সেশনে কোন খেলা হয়নি।
  • লিটন দাসের উইকেট পাওয়ার মধ্য দিয়ে রঙ্গনা হেরাথ স্টে বাঁ-হাতি স্পিনার হিসেবে সবচেয়ে বেশী উইকেট নেয়ার রেকর্ড করেন। তিনি নিউজিল্যান্ডের ড্যানিয়েল ভেট্টরির করা ৩৬২ উইকেটের রেকর্ড টপকে যান।[৯]
  • রঙ্গনা হেরাথ হন প্রথম খেলোয়াড় যিনি শ্রীলংকার অধিনায়ক হিসেবে প্রথম তিন টেস্টে বিজয় লাভ করেন।[৯]

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

১৫–১৯ মার্চ ২০১৭
স্কোরকার্ড
৩৩৮ (১১৩.৩ ওভার)
দিনেশ চান্ডিমাল ১৩৮ (৩০০)
মেহেদী হাসান ৩/৯০ (২১ ওভার)
৪৬৭ (১৩৪.১ ওভার)
সাকিব আল হাসান ১১৬ (১৫৯)
রঙ্গনা হেরাথ ৪/৮২ (৩৪.১ ওভার)
৩১৯ (১১৩.২ ওভার)
দিমুথ করুনারত্নে ১২৬ (২৪৪)
সাকিব আল হাসান ৪/৭৪ (৩৬.২ ওভার)
১৯১/৬ (৫৭.৫ ওভার)
তামিম ইকবাল ৮২ (১২৫)
দিলরুয়ান পেরেরা ৩/৫৯ (২২ ওভার)
বাংলাদেশ ৪ উইকেটে জয়ী
পি. সারা ওভাল, কলম্বো
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও সুন্দরাম রবি (ভারত)
ম্যাচসেরা: তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি বাংলাদেশের ১০০ তম টেস্ট ম্যাচ।
  • মোসাদ্দেক হোসেন (বাংলাদেশ) তার টেস্ট অভিষেক হয়।
  • রঙ্গনা হেরাথ তাঁর ১,০০০ তম প্রথম শ্রেণীর উইকেট নেন, দ্বিতীয় শ্রীলঙ্কী হিসেবে তিনি এই কৃতিত্ব গড়েন।
  • মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশ প্রথম উইকেট রক্ষক হিসেবে টেস্টে ১০০টি ক্যাচ নেন।
  • এটি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম জয়।[১০]

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

২৫ মার্চ ২০১৭
১৪:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
 শ্রীলঙ্কা
৩২৪/৫ (৫০ ওভার)
বাংলাদেশ 
২৩৪ (৪৫.১ ওভার)
তামিম ইকবাল ১২৭ (১৪২)
সুরঙ্গা লাকমল ২/৪৫ (৮ ওভার)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • মেহেদী হাসান (বাংলাদেশ) তার ওডিআই অভিষেক হয়।
  • এটি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান।

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৮ মার্চ ২০১৭
১৪:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা 
৩১১ (৪৯.৫ ওভার)
কুশল মেন্ডিস ১০২ (১০৭)
তাসকিন আহমেদ ৪/৪৭ (৮.৫ ওভার)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ইনিংস বিরতির সময় ভারি বৃষ্টির কারণে খেলা বাংলাদেশের ইনিংস শুরু করা যায়নি ও পরে ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।
  • উপুল থারাঙ্গা (শ্রীলঙ্কা) তাঁর ২০০তম একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে খেলেন।
  • কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা) তার প্রথম ওয়ানডে শতক অর্জন করেন।
  • তাসকিন আহমেদ ৫ম বাংলাদেশী খেলোয়াড় হিসেবে ওয়ানডে হ্যাট্রিক লাভ করেন।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১ এপ্রিল ২০১৭
০৯:৩০
[ স্কোরকার্ড]
শ্রীলঙ্কা 
২৮০/৯ (৫০ ওভার)
 বাংলাদেশ
২১০ (৪৪.৩ ওভার)
  • বাংলাদেশ টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

টি২০আই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টি২০আই[সম্পাদনা]

৪ এপ্রিল ২০১৭
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৫৫/৬ (২০ ওভার)
 শ্রীলঙ্কা
১৫৮/৪ (১৮.৫ ওভার)

২য় টি২০আই[সম্পাদনা]

৬ এপ্রিল ২০১৭
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৭৬/৯ (২০ ওভার)
 শ্রীলঙ্কা
১৩১ (১৮ ওভার)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজের নাম কেন ‘জয় বাংলা কাপ’বিবিসি বাংলা। ৬ মার্চ ২০১৭।
  2. "বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫ সদস্যের শ্রীলঙ্কা"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  3. "মোস্তাফিজকে নিয়েই শ্রীলঙ্কা সফরের দল"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  4. "ম্যাথুস নেই ওয়ানেড সিরিজেও"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৭ 
  5. "মাহমুদউল্লাহ আছেন ওয়ানডে দলে"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৭ 
  6. "বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দলে মালিঙ্গা"দৈনিক আমাদের সময়। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৭ 
  7. "বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা | কালের কণ্ঠ"দৈনিক কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৭ 
  8. "প্রথমবারের মতো ওয়ানডে দলে ডাক পেলেন মিরাজ"সময়.টিভি। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৭ 
  9. "Herath: Most wickets by a left-arm spinner"। ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০১৭ 
  10. "অনেক অর্জনের এক জয়!"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মার্চ ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]