ইয়াহইয়া আলমপুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

মুহাম্মদ ইয়াহইয়া আলমপুরী
মহাপরিচালক, আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
পূর্বসূরীআব্দুস সালাম চাটগামী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯৪৭ (বয়স ৭৪–৭৫)
আলমপুর, হাটহাজারী পৌরসভা, চট্টগ্রাম
জাতীয়তাবাংলাদেশি
প্রাক্তন শিক্ষার্থীআল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম
ব্যক্তিগত
জাতিসত্তাবাঙালি
যুগআধুনিক
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
আন্দোলনদেওবন্দি
শিক্ষকমুফতি ফয়জুল্লাহ
ঊর্ধ্বতন পদ
এর শিষ্যশাহ আহমদ শফী

মুহাম্মদ ইয়াহইয়া আলমপুরী (জন্ম: ১৯৪৭) একজন বাংলাদেশি ইসলামি পণ্ডিত ও শিক্ষাবিদ। যিনি আব্দুস সালাম চাটগামীর মৃত্যুর পর দারুল উলুম হাটহাজারীর মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত বাংলাদেশের আমীর।

জীবনী[সম্পাদনা]

ইয়াহইয়া আলমপুরী ১৯৪৭ সালে চট্টগ্রামের হাটহাজারী পৌরসভার অন্তর্গত আলমপুর গ্রামের কাজী সালেহ আহমদ বাড়ির এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১০ বছর বয়সে তিনি হাটহাজারী মাদ্রাসায় ভর্তি হন। ১৯৭৩ সালে হাটহাজারী মাদ্রাসা থেকে দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স) সমাপ্ত করেন। তার উল্লেখযোগ্য শিক্ষকদের মধ্যে রয়েছেন: মুফতি ফয়জুল্লাহ, আব্দুল কাইয়ুম, মুফতি আহমদুল্লাহ, মাওলানা হামেদ, ইব্রাহিম আলমপুরী, শাহ আহমদ শফী প্রমুখ। আধ্যাত্মিক ধারায় তিনি শাহ আহমদ শফীর শিষ্য।[১]

শিক্ষাজীবন সমাপ্তির পর হাটহাজারীর গড়দুয়ারা মাদ্রাসায় শিক্ষকতার মাধ্যমে তার কর্মজীবনের সূচনা হয়। এই মাদ্রাসায় ১০ বছর শিক্ষকতা করে তিনি ৩ বছর মাদার্শা মাদ্রাসা ও হাজী মুহাম্মদ ইউনুস প্রতিষ্ঠিত ইছাপুর ফয়জিয়া তাজবিদুল কুরআন মাদ্রাসায় ৬ বছর শিক্ষকতা করেন। অতঃপর ১৯৯১ সালে হাটহাজারী মাদ্রাসায় যোগদান করেন।[১]

২০২০ সালের ২১ সেপ্টেম্বর তিনি হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনা বোর্ডের সদস্য নির্বাচিত হন। ২০২১ সালের ৮ সেপ্টেম্বর আব্দুস সালাম চাটগামীর মৃত্যুর পর তিনি হাটহাজারী মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।[২][৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

উদ্ধৃতি[সম্পাদনা]

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • শ্বেতপত্র: বাংলাদেশে মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের ২০০০ দিন। মহাখালী, ঢাকা-১২১২: মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস তদন্তে গণকমিশন। ফেব্রুয়ারি ২০২২। পৃষ্ঠা ১৬১–১৬২।