মুড়িয়াউক ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুড়িয়াউক
ইউনিয়ন
৩নং মুড়িয়াউক ইউনিয়ন
বাংলাদেশে মুড়িয়াউক ইউনিয়নের অবস্থান
বাংলাদেশে মুড়িয়াউক ইউনিয়নের অবস্থান
মুড়িয়াউক সিলেট বিভাগ-এ অবস্থিত
মুড়িয়াউক
মুড়িয়াউক
মুড়িয়াউক বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
মুড়িয়াউক
মুড়িয়াউক
বাংলাদেশে মুড়িয়াউক ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°১৫′৪৪″ উত্তর ৯১°১৬′৩২″ পূর্ব / ২৪.২৬২২২° উত্তর ৯১.২৭৫৫৬° পূর্ব / 24.26222; 91.27556
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগসিলেট বিভাগ
জেলাহবিগঞ্জ জেলা
উপজেলালাখাই উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানমলাই মিয়া [১]
আয়তন- তথ্যসূত্র [২]
 • মোট১৯.০৩ কিমি (৭.৩৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (তথ্যসূত্র [২])
 • মোট১৭,৭৬২
 • জনঘনত্ব৯৩০/কিমি (২৪০০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটmuriaukup.habiganj.gov.bd
মানচিত্র

মুড়িয়াউক ইউনিয়ন বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার একটি ইউনিয়ন। ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান হচ্ছেন মলাই মিয়া। [১]

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

এ ইউনিয়নটির অবস্থান উপজেলা পরিষদের দৃষ্টি সীমার মধ্যে এবং অত্যন্ত নিকটে। এর আয়তন ৪,৭০৪ একর (১৯.০৩ বর্গ কিলোমিটার প্রায়)। [২]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

গ্রামের সংখ্যাঃ ৯। গ্রামসমূহের নাম সাতাউক, লখনাউক, ধর্মপুর, মশাদিয়া, মুড়িয়াউক, কাসিমপুর, তেঘরিয়া, সুনেশ্বর, মৌবাড়ী। এ ইউনিয়নের সাথে নাসিরনগরের সীমানা আছে।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

জনসংখ্যাঃ ১৭৭৬২ জন।

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

এ ইউনিয়নে দুইটি উচ্চ বিদ্যালয়, ১৩ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি কওমী মাদ্রাসা সহ মোট ২১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। শিক্ষার হার ৩৫%। [৩]

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি[সম্পাদনা]

১৯৭১ সালের ২৯ শে অক্টোবরে কতিপয় রাজাকার বাহিনীর সহায়তায় সুদূর লাখাই ইউনিয়ন থেকে পাক হানাদার বাহিনী মুড়িয়াউক গ্রামে আসে এবং রাতের বেলা কতিপয় দালালের বাড়ীতে আশ্রয় নেয়। খুব ভোর বেলা তারা মুড়িয়াউক গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা জনাব শাহজাহান চিশতির বাড়ীতে চায়। শাহাজান চিশতিকে বাড়ীতে না পেয়ে পাক আর্মিরা তাঁর পিতা জনাব আব্দুল জববারকে(৭০) ধরে নিয়ে যায় এবং তাঁর বাড়ীতে আগুন লাগিয়ে ছারখার করে দেয়। একই সময়ে পাক আর্মিরা মুড়িয়াউক গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইলিয়াছ কামালের পিতা-ইদ্রিছ আলী (৬৫)কেও ধরে নিয়ে যায়। উক্ত দুইজন বর্ষীয়ান লোককে তারা লাখাই ইউনিয়নে নিয়ে যায়। পরদিন সেখান থেকে স্পীড বোট যোগে ভৈরব নেবার পথে গুলি করে হত্যা করে মর্মে জানা যায়। তাঁদের আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।[৪]

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

ইউনিয়নটির অভ্যন্তরে প্রায় ৮৫ কিলোমিটার রাস্তা বিদ্যমান।

ঐতিহাসিক ঐতিহ্য[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

৪ একর জমির উপর তৈরী 'ওয়াহিদুজ্জামানা আগাই মিয়ার' পুকুর। এখানে বিভিন্ন এলাকা থেকে পর্যটকরা আসেন পুকুরের মাছ দেখার জন্য।

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

ইউনিয়নে রয়েছে ৪টি উল্লেখযোগ্য হাট ও বাজার, যেমন- চক বাজার (অবস্থান- ধর্মপুর গ্রাম), মুড়িয়াউক ফুলতৈল বাজার ও মুড়িয়াউক দক্ষিণ বাজার (অবস্থান: মুড়িয়াউক গ্রামে), সাতাউক মাদ্রাসা বাজার (অবস্থান : সাতাউক গ্রামে)। এ বাজারগুলো এলাকার মানুষের দৈনন্দিন প্রয়োজন নিবারণের ভরসা। এ বাজারগুলো ইজারার মাধ্যমে আসে রাজস্ব আয়। [৫]

বিবিধ[সম্পাদনা]

এ অঞ্চলের সাতাউক গ্রামের অনেক মানুষ গ্রিস এবং ইতালিতে অবস্থান করেন। এ ইউনিয়নের অধিকাংশ মানুষ ঢাকায় বিভিন্ন হোটেল ব্যবসায় এবং অন্যান্য কাজে নিয়োজিত। এ ইউনিয়নে ষ্টেডিয়ামের জন্য প্রস্তাবিত একটি বড় মাঠ আছে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. sylhetview24.com (২০১৬-০৬-০৫)। "ছয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে সিলেট বিভাগে চেয়ারম্যান হলেন যারা"www.sylhetview24.net। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৭ 
  2. "লাখাই উপজেলা"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৭ 
  3. "মুড়িয়াউক ইউনিয়ন"http (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৭ 
  4. "লাখাই উপজেলা"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৭ 
  5. "মুড়িয়াউক ইউনিয়নের হাট বাজার"muriaukup.habiganj.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]