লাখাই ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লাখাই
ইউনিয়ন
১নং লাখাই ইউনিয়ন
বাংলাদেশে লাখাই ইউনিয়নের অবস্থান
বাংলাদেশে লাখাই ইউনিয়নের অবস্থান
লাখাই সিলেট বিভাগ-এ অবস্থিত
লাখাই
লাখাই
লাখাই বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
লাখাই
লাখাই
বাংলাদেশে লাখাই ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°১৬′৫৮.০০১″ উত্তর ৯১°১২′১১.৯৯৯″ পূর্ব / ২৪.২৮২৭৭৮০৬° উত্তর ৯১.২০৩৩৩৩০৬° পূর্ব / 24.28277806; 91.20333306স্থানাঙ্ক: ২৪°১৬′৫৮.০০১″ উত্তর ৯১°১২′১১.৯৯৯″ পূর্ব / ২৪.২৮২৭৭৮০৬° উত্তর ৯১.২০৩৩৩৩০৬° পূর্ব / 24.28277806; 91.20333306 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগসিলেট বিভাগ
জেলাহবিগঞ্জ জেলা
উপজেলালাখাই উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানআরিফ আহমেদ রুপন
আয়তন
 • মোট৪৭.৫৮ কিমি (১৮.৩৭ বর্গমাইল)
 (২০১১ এর জরিপ অনুযায়ী) [১]
জনসংখ্যা (২০১১ এর জরিপ অনুযায়ী [১])
 • মোট২৬,৪২৯[১]
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৬০ ৩৬ ৬৮ ৫৪
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata
মানচিত্র

লাখাই ইউনিয়নটি হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার একটি ইউনিয়ন।

একনজরে লাখাই ইউনিয়ন[সম্পাদনা]

হাওড় ও বিল পরিবেষ্টিত এ ইউনিয়নটির কতগুলো পাড়া (স্থানীয় ভাষায় হাটি) নিয়ে গড়ে উঠেছে। বর্ষাকালে নৌকাযোগে এক পাড়া থেকে আরেক পাড়ায় যাতায়াত করতে হয়। ১৫টি গ্রাম নিয়ে এ ইউনিয়নটি গঠিত হয়। এখানে একটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ও এলএসডি আছে। ব্রাক্ষ্মনবাড়ীয়া এবং কিশোরগঞ্জ জেলার সাথে এ ইউনিয়নের সীমানা আছে। ইউনিয়নের পাশ দিয়ে ধলেশ্বরী, কলকলিয়া ইত্যাদি নদী বহমান। লাখাই উপজেলা যখন সিও ডেভেলপমেন্ট এর অধীনে ছিল অর্থাৎ লাখাই মানোন্নীত থানা হিসেবে প্রতিষ্ঠার পূর্বে লাখাই হেড কোয়াটার হিসেবে ব্যবহৃত হত। লাখাই ইউনিয়নে এখনো টাউনশীপ আছে। সিও ডেভেলপমেন্টের বাড়ী সহ অন্যান্য ভবন সমূহ বর্তমানে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে উপজেলা পরিষদ থেকে ভাড়া প্রদান করা হয়েছে। এ ইউনিয়নের অধিবাসীদের প্রধান জীবিকা কৃষি। পানির ভিতরে খাঁচা বসিয়ে চিংড়ি মাছ ধরে কেউ কেউ জীবিকা নির্বাহ করেন। মৎস্যজীবি ছাড়াও বিভিন্ন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, বেল্ট বানানোর কারিগর সহ বিভিন্ন চাকুরীজীবি ও পেশাজীবিও আছেন।

ভৌগলিক উপাত্ত[সম্পাদনা]

অক্ষাংশ দ্রাঘিমাংশ বিচারে লাখাই উপজেলা ২৪ ডিগ্রি ১৭ মিনিট ৫ সেকেন্ড উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯১ ডিগ্রি ১৬ মিনিট ২৪ সেকেন্ড পূর্ব দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত। তিনটি বিভাগের সীমান্তে অবস্থিত এ উপজেলার উত্তরে আছে সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলা, দক্ষিণে চট্রগ্রাম বিভাগের ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার নাসির নগর উপজেলা এবং হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা, পূর্বে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা, পশ্চিমে ঢাকা বিভাগের কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম উপজেলা। বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুরে আছে ফসলের মাঠ, হালট, বিল, বর্ষাকালে যা বিল বা হাওড়ে পরিণত হয়। ফসলের মাঠের মাঝে মাঝে আছে হালট, গোচারণ ভূমি। আয়তনঃ ১১,৭৫৭ একর[২]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ইউনিয়নটিতে সর্বমোট জনসংখ্যা ২৬,৪২৯ জন। এর মধ্যে ২০৪২০ জন মুসিলম ও ৬০০৯ জন হিন্দু। ১২৮৩৯ জন পুরুষ ও ১৩৫৯০ জন নারী বসবাস করছেন।

গ্রাম ও মৌজা[সম্পাদনা]

এ ইউনিয়নে ১৫টি গ্রাম রয়েছে, গ্রাম সমূহের নাম যথাক্রমে শিবপুর, সুজনপুর, স্বজনগ্রাম, রুহিতনসী, আমানুল্লাপুর, মামুদপুর, চিকনপুর, মহরমপুর, রাধানগর, সন্তোষপুর, কৃষ্ণপুর, গদাইনগর, কামালপুর, লালচানপুর ও সিতারামপুর।

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

২০১১ এর জনসংখ্যা তথ্য অনুযায়ী লাখাই ইউনিয়নের গড় শিক্ষার হার ২৮.৮%, যা লাখাই উপজেলার মধ্যে সর্বনিম্ন। এ ইউনিয়নে ২টি হাইস্কুল এবং ১২টি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে। ১টি কিন্ডারগার্টেন আছে, একটি বেসরকারী এতিমখানাও আছে।

শিল্প ও সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

এ অঞ্চলের বেশিরভাগ ব্যবসায়ী পুরাতন ঢাকায় বিভিন্ন শিল্পখানার মালিক। বিশেষ করে বেল্ট, ওয়ালেট তৈরীর কারখানা।

প্রশাসনিক অবকাঠামো[সম্পাদনা]

জনগণের ভোটে নির্বাচিত ইউনিয়ন চেয়ারম্যানই হচ্ছেন ইউনিয়নের কর্তা ব্যক্তি। এছাড়াও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৩জন কাউন্সিলর সহ ৯টি ওয়ার্ডে ৯ জন জনপ্রতিনিধি কাউন্সিলর হিসাবে নির্বাচিত হন।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

শামাবাবুর জমিদার বাড়ী, আনন্দ বাজার পত্রিকার মালিকের বাড়ী এ ইউনিয়নের দর্শনীয় স্থান।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো" (PDF)www.bbs.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-২৭ 
  2. "লাখাই উপজেলা"। ২০১৯-০৪-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-২৯