দক্ষিণ সুরমা উপজেলা

স্থানাঙ্ক: ২৪°৫০′ উত্তর ৯১°৫৬′ পূর্ব / ২৪.৮৩৩° উত্তর ৯১.৯৩৩° পূর্ব / 24.833; 91.933
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ)
উপজেলা
বাংলাদেশে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার অবস্থান
বাংলাদেশে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার অবস্থান
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ) সিলেট বিভাগ-এ অবস্থিত
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ)
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ)
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ) বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ)
দক্ষিণ সুরমা (ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ)
বাংলাদেশে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°৫০′ উত্তর ৯১°৫৬′ পূর্ব / ২৪.৮৩৩° উত্তর ৯১.৯৩৩° পূর্ব / 24.833; 91.933 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগসিলেট বিভাগ
জেলাসিলেট জেলা
আয়তন
 • মোট১৮৭.৬৭ বর্গকিমি (৭২.৪৬ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট২,৫৩,৩৮৮
 • জনঘনত্ব১,৪০০/বর্গকিমি (৩,৫০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৫৯.১৪%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৬০ ৯১ ৩১
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা (সিলেটি: ꠖꠈꠤꠘ ꠡꠥꠞꠝꠣ) বাংলাদেশের সিলেট জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা। এটি এই জেলার নবীন উপজেলা; যা ২০০৫ সালের ২৯ জানুয়ারি তারিখে অনুষ্ঠিত নিকার-এর ৯১ তম বৈঠকের নতুন প্রশাসনিক উপজেলা গঠনের সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে গঠিত হয়। এখানে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, ডিআইজি সিলেট রেঞ্জ এর কার্যালয়, সিলেট শিক্ষা বোর্ড ভবন, কারিগরি মহিলা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সহ বিভাগীয় পর্যায়ের সরকারি সকল প্রতিষ্ঠানের দপ্তর অবস্থিত।[২]

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

এর উত্তরে সিলেট সদর উপজেলা, দক্ষিণে ফেঞ্চুগঞ্জবালাগঞ্জ উপজেলা, পূর্বে গোলাপগঞ্জ উপজেলা, পশ্চিমে বিশ্বনাথ উপজেলা। এই উপজেলাটি সিলেট জেলা হতে মাত্র ০৯ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় বর্তমানে ১০টি ইউনিয়ন রয়েছে। সম্পূর্ণ উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম মোট ২টি থানার আওতাধীন।[৩]

দক্ষিণ সুরমা থানার আওতাধীন ৬টি ইউনিয়ন:
মোগলাবাজার থানার আওতাধীন ৪টি ইউনিয়ন:

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দক্ষিণ সুরমা থানা গঠিত হয় ১৯৮৩ সালে এবং থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ২০০৫ সালে।[৪]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার : ৫৯.১৪% (পুরুষ - ৬৩.০৯%, মহিলা - ৫৪.৬১%)

কৃষি[সম্পাদনা]

প্রধান কৃষি ফসল ধান, গম, সুগন্ধি চাল। প্রধান ফল-ফলাদি আম, আনারস, লেবু, কতবেল, পেয়ারা।

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স - ০১টি (৩১ শয্যা বিশিষ্ট)

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

★ জামেয়া তাওয়াক্কুলিয়া রেঙা মাদ্রাসা।

  • লতীফা-শফী চৌ:মহিলা ডিগ্রি কলেজ।
  • তালীমুল কোরান হাফিজীয়া মাদরাসা নৈখাই গোয়াশপুর।

★ জিঞ্জির আরকুম শাহের মাযার।[৪] ★ বিরাহিম পুর খান বাহাদুর জমিদার বাড়ি/ সাবেক বিমান বাহিনীর প্রধান মাহবুব আলি খানের বাড়ি। ★ জালালপুর জমিদার বাড়ী ★ শাহ শেখ ফরিদ-এর মাজার ও পাঞ্জেগানা মসজিদ - ফরিদপুর গ্রাম, লালাবাজার ইউনিয়ন। ★ রিজেন্ট রিসোর্ট, সিলাম ঠাকুর বাড়ি। ★ ছাফরা বিল, মোহাম্মদ পুর ও ভরাউট অভ্যন্তরে।

  • কাদিপুর জামে মসজিদ,জালালপুর।
  • কুশিয়ারা কনভেনশন হল,চন্ডিপুল।

★ হাইল্যান্ড এগ্রো ফার্ম মোহাম্মদপুর, সিলাম। ★ দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজ।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • কর্ণেল এম.এ.জি ওসমানী। মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক।
  • ব্রিগেডিয়ার মাহবুবআলী খান ।
  • দেওয়ান আব্দুর রহিম সুলতান।
  • পীর হবিবুর রহমান - রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "এক নজরে দক্ষিণ সুরমা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৬ 
  2. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "দক্ষিণ সুরমা উপজেলার পটভূমি"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২৯ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৪ 
  3. "ইউনিয়নসমূহ - দক্ষিণ সুরমা উপজেলা"dakshinsurma.sylhet.gov.bd। জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ২০ অক্টোবর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  4. বাংলাপিডিয়া (২০১২)। "দক্ষিণ সুরমা উপজেলা"। বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]