জায়েদ ইবনে আলী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জ়ায়েদ ʾইবনে ʿআলী
زَيْد ٱبْن عَلِيّ
জ়ায়েদ আশ-শহীদ
হ়লীফ় আল-ক়ুরʾআন
زيد بن علي بن الحسين بن علي بن أبي طالب ، أبو الحسين الهاشمي العلوي المدني أخو أبي جعفر الباقر.png
জ়ায়েদ ʾইবনে ʿআলীর নাম সংবলিত আরবি চারুলিপি
৫ম ইমাম
(জায়েদি শিয়া ইসলাম)
ইমামত৯৫ – ১২২ হিজরি
পূর্বসূরিʿআলী ʾইবনে হ়োসেন
উত্তরসূরিইয়াহিয়া ʾইবনে জ়ায়েদ
জন্মজ়ায়েদ ʾইবনে ʿআলী
আনু. ৬৯৮ খ্রি.
(৮০ হিজরি)
মদীনা, হেজাজ, উমাইয়া খিলাফত
মৃত্যুআনু. ৭৪০ খ্রি. (বয়স ৪২)
(২ সফর ১২২ হিজরি)
কুফা, ইরাক, উমাইয়া খিলাফত
দাম্পত্য সঙ্গীরাইতা বিনতে আব্দুল্লাহ ইবনে মুহম্মদ ইবনে আল-হানাফিয়া
সন্তানহাসান
ইয়াহিয়া
হোসেন
ঈসা মওতামুল ইশবাল
মুহম্মদ
পূর্ণ নাম
জ়ায়েদ ʾইবনে ʿআলী ʾইবনে হ়োসেন ʾইবনে ʿআলী
স্থানীয় নামزَيْد ٱبْن عَلِي ٱلشَّهِيْد
বংশআহল আল-বাইত
বংশবনু হাশিম
রাজবংশকুরাইশ
পিতাʿআলী ʾইবনে হ়োসেন
মাতাজায়েদা আল-সিন্ধী
ধর্মইসলাম
মৃত্যুর কারণহিশাম ইবনে আবদুল মালিক কর্তৃক শিরশ্ছেদ
সমাধিকাফেল, ইরাক
কারাক, জর্ডান
পরিচিতির কারণউমাইয়া বিরোধী বিদ্রোহ
আন্দোলনজায়েদি শিয়া ইসলাম

জ়ায়েদ ʾইবনে ʿআলী (আরবি: زَيْد ٱبْن عَلِيّ‎‎; ৬৯৫ – ৭৪০) ছিলেন ʿআলী ʾইবনে হ়োসেনের পুত্র এবং হ়োসেন ʾইবনে ʿআলীর দৌহিত্র। তিনি উমাইয়া খিলাফতের বিরুদ্ধে একটি বিদ্রোহ পরিচালনা করেন। বিদ্রোহটি ব্যর্থ হয় এবং তাঁকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা করা হয়।[২] এই ঘটনার ফলে শিয়া ইসলামের জায়েদি শাখার উত্থান ঘটে যারা জ়ায়েদকে ʿআলী ʾইবনে হ়োসেনের পরবর্তী ইমাম হিসেবে গ্রহণ করে। এর বিপরীতে ইসনা আশারিয়াইসমাইলি শিয়ারা তাঁর বড় ভাই মুহ়ম্মদ আল-বাক়িরকে পরবর্তী ইমাম হিসেবে গণ্য করে। তথাপি শিয়া ও সুন্নিরা তাঁকে একজন গুরুত্বপূর্ণ বিপ্লবীশহীদ হিসেবে বিবেচনা করে। উমাইয়া শাসক কর্তৃক তাঁর নির্মম হত্যাকাণ্ড ও তাঁর মরদেহের নিষ্ঠুর প্রদর্শন আব্বাসীয় বিপ্লবের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।[৩]

জ়ায়েদ ছিলেন একজন বিজ্ঞ ধর্মীয় পণ্ডিত। তাঁর নামে অসংখ্য গ্রন্থের অস্তিত্ব পাওয়া যায় যার মধ্যে মুসনাদ আল-ইমাম জ়ায়েদ (মজমুʿ আল-ফিক়হ নামেও পরিচিত) বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। এটি শরীয়াহ বিষয়ক প্রাচীনতম গ্রন্থগুলোর একটি। তবে এর নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে; এটি সম্ভবত প্রারম্ভিক কুফি আইনি ঐতিহ্যের প্রতিনিধিত্ব করে।[৪][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Badruddīn, Amir al-Hussein bin (20th Dhul Hijjah 1429 AH)। The Precious Necklace Regarding Gnosis of the Lord of the Worlds। Imam Rassi Society।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. Esposito, John L., সম্পাদক (২০০৩)। "Zayd ibn Ali"The Oxford Dictionary of IslamOxford University Pressআইএসবিএন 978-0-1998-9120-7 
  3. Madelung, Wilferd (২০১২)। "Zayd b. ʿAlī b. al-Ḥusayn"। P. Bearman; Th. Bianquis; C.E. Bosworth; E. van Donzel; W.P. Heinrichs। Encyclopaedia of Islam, Second EditionOxford University Pressআইএসবিএন 978-9-0041-6121-4 
  4. Katz, Stanley N., সম্পাদক (২০০৯)। "Islamic Schools of Sacred Law: Shiʿi Schools: The Zaydi School of Law"The Oxford International Encyclopedia of Legal HistoryOxford University Pressআইএসবিএন 978-0-1953-3651-1