গোলাঘাট জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোলাঘাট জেলা
গোলাঘাট জিলা
আসামের জেলা
আসামে গোলাঘাটের অবস্থান
আসামে গোলাঘাটের অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যআসাম
সদরদপ্তরগোলাঘাট
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্রকলিয়াবর
 • বিধানসভা আসনবোকাখাট
সরুপথার
খুমটাই
গোলাঘাট
আয়তন
 • মোট৩৫০২ কিমি (১৩৫২ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (2011)
 • মোট১০,৫৮,৬৭৪
 • জনঘনত্ব৩০০/কিমি (৭৮০/বর্গমাইল)
প্রধান মহাসড়ক৩৭ নং
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

গোলাঘাট জেলা হচ্ছে উত্তর-পূর্ব ভারতের আসাম রাজ্যের মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত একটি জেলা। আসামের ২৭টি জেলার ভিতরে এই জেলা অন্যতম। এই জেলার তিনটা মহকুমা হলো গোলাঘাট, ধনশিরী এবং বোকাখাট। জিলার সদর এলাকা গোলাঘাট নগর। জেলাটির আয়তন ৩৫০২ বৰ্গ কিঃমিঃ। ১৯৮৫ সনে জেলা ঘোষিত হয়। এই জেলার জনসংখ্যা ২০১১ সনের লোকগণনা অনুসারে ১০,৫৮,৬৭৪ জন। এর মধ্যে ৫,৩৯,৯৪৯ জন পুরুষ এবং ৫,১৮,৭২৫ জন মহিলা। [১]

নামকরণ[সম্পাদনা]

গোলাঘাট নামটির উ‍ৎপত্তির এক মনোরম কাহিনী আছে। ১৯ শতকের মাঝামঝিতে মাড়োয়ারি ব্যবসায়ীসকলে ধনশিরী নৌকা ঘাটের নিকটে কিছু গোলা অৰ্থাৎ সরু দোকান পেতেছিল। এই স্থানে পরে নগর গড়লে গোলাঘাট নামে পরিচিত হয়।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৬ শতকে এই দৈয়াং-ধনশিরী উপত্যকা আহোম রাজ্যে শামিল হয়। আহোমসকলে এই স্থান কছারী সকলের পরে দখল করে। আহোমের রাজত্বকালে এই স্থানের শাসনের দায়িত্ব মরঙীখোয়া গোহাঁই-এর ছিল।[২]

গোলাঘাট জিলা গঠন

ইংরাজ শাসনকালে এই দৈয়াং-ধনশিরী উপত্যকা বৃহত্তর শিবসাগর জেলার অন্তৰ্গত ছিল। ১৯৮৭ সনের ১৫ আগষ্ট গোলাঘাটকে একটি জেলা ঘোষণা করা হয়।[২]

প্ৰশাসনিক বিভাজন[সম্পাদনা]

গোলাঘাট জিলাটি চারটা আসাম বিধান সভা সমষ্টির অন্তৰ্গত: বোকাখাট, সরুপথার, গোলাঘাট এবং খুমটাই।[৩] এই চারটা সমষ্টি কলিয়াবর লোকসভা সমষ্টির অন্তৰ্গত।[৪]

বনাঞ্চল[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "census Golaghat"। censusindia.co.in। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৪, ২০১২ 
  2. "গোলাঘাটৰ ইতিসাহ"। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১২ 
  3. "List of Assembly Constituencies showing their Revenue & Election District wise break - up" (PDF)। Chief Electoral Officer, Assam website। ২২ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  4. "List of Assembly Constituencies showing their Parliamentary Constituencies wise break - up" (PDF)। Chief Electoral Officer, Assam website। ২২ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১১