কমল হাসান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(কামাল হাসান থেকে পুনর্নির্দেশিত)
কমল হাসান
கமல் ஹாசன்
Kamal Haasan FICCI event.jpg
এফআইসিসিআই এর একটি ইভেন্টে কমল হাসান
জন্ম কমল হাসান
(১৯৫৪-১১-০৭) ৭ নভেম্বর ১৯৫৪ (বয়স ৬২)[১]
পরমকুন্ডি, মাদ্রাজ (বর্তমানে তামিলনাড়ু), ভারত
বাসস্থান চেন্নাই, তামিলনাড়ু, ভারত
অন্য নাম পার্থশরতি
পেশা ফিল্ম অভিনেতা, ফিল্ম প্রযোজক, ফিল্ম পরিচালক, কাহিনী লেখক, গান লেখক, গায়ক
কার্যকাল ১৯৫৯ - বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গী বাণী গণপতি
(১৯৭৮–১৯৮৮)
সারিকা ঠাকুর
(১৯৮৮–২০০৪)
সঙ্গী গৌতমী তাদিমাল্লা
(২০০৪ - ২০১৬)
সন্তান শ্রুতি হাসান (জন্ম ১৯৮৬)
অক্ষরা হাসান (জন্ম ১৯৯১)

কমল হাসান (তামিল: கமல் ஹாசன்; জন্ম নভেম্বর ৭, ১৯৫৪), একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা, চিত্রনাট্যকার, পরিচালক যাকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের অন্যতম বাস্তববাদী অভিনেতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।[২][৩] ১৯৮৭ সালে 'পুষ্পক' নামে একটি নির্বাক কমেডি ছবিতে অভিনয় করে তিনি ভূষিত হন বেস্ট এ্যাক্টর ফিল্ম ফেয়ার এ্যাওয়ার্ডে। এই ছবির পাত্র-পাত্রী কারোরই কোন সংলাপ ছিল না! কমল হাসানের মেয়ে অভিনেত্রী শ্রুতি হাসান

জন্ম ও বাল্যকাল[সম্পাদনা]

কমল ১৯৫৪ সালের ৭ নভেম্বর মাদ্রাজ প্রদেশের (বর্তমানে তামিলনাড়ু) পরমকুড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন । তার বাবা ডি. শ্রীনিবাসন একজন আইনজীবী এবং মা রাজলক্ষ্মী গৃহিণী ছিলেন । পরিবারের মধ্যে কমল সবার ছোট । তার ভাই চারু হাসান (জন্মঃ ১৯৩০) এবং চন্দ্র হাসান (জন্মঃ ১৯৩৬) ও আইনজীবী ছিলেন । বোন নলিনী (১৯৪৬) একজন ক্লাসিক্যাল নাচনেওয়ালী । কমল মাদ্রাজের সান্থোম এ পড়াশোনা করেছেন ।

কর্ম জীবন[সম্পাদনা]

শিশুশিল্পী হিসেবে কমল হাসান অভিনয় শুরু করেন। মাত্র পাঁচ বছর বয়সে বিমসিং পরিচালিত তামিল চলচ্চিত্র কালাথুর কান্নাম্মায় (১৯৫৯) প্রথম অভিনয় করেন। শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পীর জাতীয় পুরস্কার জিতে ছিলেন এ ছবিতে অভিনয় করে। এ পর্যন্ত তিনি নায়ক, ভিলেন, জোকারসহ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এমনকি কাজ করেছেন নারী চরিত্রেও। এ পর্যন্ত তিনি তামিল, হিন্দি, বাংলা, তেলেগু, কন্নড়, মালয়লাম প্রভৃতি ভাষায় প্রায় দুই শর মতো ছবিতে অভিনয় করেন। কমল হাসান অভিনীত অধিকাংশ ছবির ভাষা তামিল। অনেকের মতে, কমল হাসানের বেশির ভাগ ছবির ভাষা তামিল হওয়ায় তিনি অমিতাভ বচ্চন বা শাহরুখ খানের মতো জনপ্রিয়তা পাননি।

বিশ্ববিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিন কর্তৃক নির্বাচিত সেরা ১০০ ছবির তালিকায় কমল হাসান অভিনীত নায়াগন (১৯৮৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তামিল ভাষার চলচ্চিত্র) ছবিটি রয়েছে। এ পর্যন্ত তাঁর অভিনীত সাতটি ছবি বিদেশি ভাষার ছবির ক্যাটাগরিতে একাডেমি পুরস্কার (অস্কার) মনোনয়নের জন্য পাঠানো হয়। একজন ভারতীয় অভিনেতার জন্য এটা সর্বোচ্চ। কমল হাসান সাগর (১৯৮৫, হিন্দি) ছবিতে রাজা চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা ও শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব-অভিনেতার ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন। এ ছাড়া কমল হাসান অপূর্ব সাগোধারারগাল (১৯৮৯, তামিল) ছবিতে তিনটি, মাইকেল মাধান কামারাজান (১৯৯১, তামিল) ছবিতে চারটি এবং দসাবতারম (২০০৮, তামিল) ছবিতে ১০টি ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৮০ সালে মুক্তি পায় বেকারত্ব নিয়ে সাড়া জাগানো তামিল চলচ্চিত্র ভারুমায়িন নিরাম ছিভাপ্পু যেখানে কমল রঙ্গন নামের এক শিক্ষিত বেকার তরুনের চরিত্রে অভিনয় করেন , ছবিটি বানিয়েছিলেন খ্যাতনামা পরিচালক কে. বলচন্দ । এছাড়াও তিনি পি. ভারতীরাজার ১৬ ভায়াথিনিলে (১৯৭৭, তামিল) এ প্রতিবন্ধী 'ছাপ্পানি' এর চরিত্র, ছিগাপ্পু রোজাক্কাল (১৯৭৮, তামিল) এ মানসিক রোগী নারী বিদ্বেষী দীলিপের চরিত্র এবং টিক টিক টিক (১৯৮১, তামিল) এ এক ফটোগ্রাফারের চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়ান । কমলের প্রথম হিন্দি ছবি ছিল 'এক দুজে কে লিয়ে' (১৯৮১), যেটি ছিল ব্যাপক ব্যবসাসফল । এছাড়া ১৯৭৫ এর তামিল চলচ্চিত্র অপূর্ব রাগাঙ্গাল যেখানে তিনি তার চেয়ে বয়স্ক এক নারীর প্রেমে পড়েন, ওরু উধাপ্পু কান ছিমিত্তুগিরাধু (১৯৭৬, তামিল), ১৯৭৭ এর আভারগাল (তামিল), ১৯৭৮ এর ইলামাই উঞ্জাল আদুকিরাথু (তামিল) এবং আভাল আপ্পাদিথান (তামিল), ১৯৮০ এর উল্লাসা পারাভাইগাল (তামিল), ১৯৮২ এর মুনড্রাম পিরাই (তামিল), ১৯৯৪ এর নাম্মাভার (তামিল), ১৯৯৬ এর আভভাই শানমুগি (যেখানে তিনি নারী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন, তামিল), ২০০৩ এর আনবে ছিভাম (যেটি নাস্তিকবাদ ও মানবতাবাদ নিয়ে তৈরী, তামিল), ২০০৯ এর উন্নাইপোল ওরুভান (হিন্দি চলচ্চিত্র 'এ ওইনেসডে' এর পুনঃনির্মাণ যেটি ২০০৮ এ মুক্তি পেয়েছিল, তামিল), জঙ্গীবাদ নিয়ে নির্মিত বিশ্বরুপম (২০১৩, তামিল) তার অভিনীত গুরুত্বপূর্ণ চলচ্চিত্র । কমল অভিনীত হিন্দি চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে জনপ্রিয় হয়েছিল ১৯৮৩ এর 'সাদমা' যেটি ছিল '৮২ এর তামিল চলচ্চিত্র মুনড্রাম পিরাই এর পুনঃনির্মাণ, '৮১ এর 'এক দুজে কে লিয়ে', 'সনম তেরি কসম' (১৯৮২), '৮৫ এ মুক্তি পাওয়া 'সাগর' এবং 'গিরাফতার' ।

ব্যাক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৮ সালে সর্বপ্রথম বাণী গণপতিকে বিয়ে করেন কমল । বাণী একজন নাচনেওয়ালী ছিলেন । '৮৬ সালে কমল অভিনেত্রীর সারিকা ঠাকুরের গর্ভে 'শ্রুতি' নামের একটি মেয়ের জন্ম দেন । এর দুই বছরের মাথায় বাণী কমলকে তালাক দেন আর কমল ঐ বছরই সারিকাকে বিয়ে করেন । ২০০৪ সালে এই সারিকার সঙ্গে আবার বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে । ২০০৫ সালে কমল অভিনেত্রী গৌতমী তাদিমাল্লার সঙ্গে বিবাহ ছাড়াই বসবাস করা শুরু করেন এবং ২০১৬ এর নভেম্বরে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে ।

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর ছবি চরিত্র ভাষা নোট
১৯৫৯ কালাথুর কান্নাম্মা সেলভাম তামিল রাষ্ট্রপতি পুরষ্কার
১৯৭৫ অপূর্ব রাগাঙ্গাল প্রসন্ন তামিল সেরা তামিল অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
১৯৭৭ ১৬ ভায়াথিনিলে ছাপ্পানি তামিল সেরা তামিল অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
সেরা অভিনেতার জন্য তামিল নাড়ু প্রদেশ ফিল্ম পুরষ্কার
১৯৭৭ কবিতা বাংলা
১৯৭৮ মারো চারিত্রা বালু তেলুগু
১৯৭৮ ছিগাপ্পু রোজাক্কাল দীলিপ তামিল
১৯৮০ ভারুমায়িন নিরাম ছিভাপ্পু রঙ্গন তামিল
১৯৮১ টিক টিক টিক দীলিপ তামিল
১৯৮২ মুনড্রাম পিরাই শ্রীনিবাস তামিল জাতীয় ফিল্ম পুরষ্কারঃ সেরা অভিনেতা
সেরা অভিনেতার জন্য তামিল নাড়ু প্রদেশ ফিল্ম পুরষ্কার
১৯৮৫ সাগর রাজা হিন্দি সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
নমিনেশনপ্রাপ্ত—ফিল্মফেয়ার পুরষ্কারঃ সেরা সহ অভিনেতা
১৯৮৬ স্বতি মুত্তাম শিবাইয়া তেলুগু সেরা অভিনেতার জন্য নন্দী পুরষ্কার
১৯৮৭ নায়াগন শক্তিবেলু তামিল জাতীয় ফিল্ম পুরষ্কারঃ সেরা অভিনেতা
১৯৮৮ পুষ্পক পুষ্পক নির্বাক সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
১৯৯২ থেভার মাগান শক্তিবেল তামিল সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
সেরা অভিনেতার জন্য তামিল নাড়ু প্রদেশ ফিল্ম পুরষ্কার
প্রযোজক এবং কাহিনী লেখক
১৯৯৫ কুরুথিপুনাল আদি নারায়ণ তামিল সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
প্রযোজক এবং কাহিনী লেখক
১৯৯৬ ইন্ডিয়ান সেনাপতি এবং চন্দ্রবোস তামিল জাতীয় ফিল্ম পুরষ্কারঃ সেরা অভিনেতা
সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
সেরা অভিনেতার জন্য তামিল নাড়ু প্রদেশ ফিল্ম পুরষ্কার
১৯৯৬ আভভাই শানমুগি পান্ডিয়ান এবং আভভাই শানমুগি তামিল
২০০০ হে রাম সাকেত রাম তামিল সেরা অভিনেতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কার
প্রযোজক,পরিচালক এবং কাহিনী লেখক
২০০৪ ভিরুমান্ডি ভিরুমান্ডি তামিল
২০০৪ ভাসুল রাজা এমবিবিএস ভাসুল রাজা তামিল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The legend at 57: Kamal Haasan"NDTV। NDTV Convergence Limited। সংগৃহীত ২৯ নভেম্বর ২০১১ 
  2. "Screening - Nayakan (Hero)"। UCLA International Institute। ২০০৫। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০০৮ 
  3. Brian Hu (২০০৪)। "Going down the Bollywood chute...with David Chute"। UCLA Asian Arts। সংগৃহীত ২০১১-০১-২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

উইকিমিডিয়া কমন্সে কমল হাসান সম্পর্কিত মিডিয়া