শ্রুতি হাসান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শ্রুতি হাসান
Shruti Haasan graces red carpet of Femina Stylista West (04) (cropped).jpg
২০১৭ সালে শ্রুতি হাসান
জন্ম
শ্রুতি রাজলক্ষ্মী হাসান

(1986-01-28) ২৮ জানুয়ারি ১৯৮৬ (বয়স ৩৩)
জাতিসত্তাপূর্ব ভারতীয়
পেশাঅভিনেত্রী, গায়িকা, মডেল, সুরকার এবং নৃত্যশিল্পী
কার্যকাল২০০০-বর্তমান
পিতা-মাতাকামাল হাসান
সারিকা ঠাকুর
আত্মীয়চারু হাসান (চাচা)
চন্দ্র হাসান (চাচা)
অনু হাসান (চাচাতো বোন)
সুহাসিনী মানিরাতন্ম (চাচাতো বোন)
অক্ষরা হাসান (আপন বোন)

শ্রুতি রাজলক্ষী হাসান (জন্ম: ২৮শে জানুয়ারি, ১৯৮৬) একজন ভারতীয় অভিনেত্রী, গায়িকা এবং সুরকার যিনি দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্প এবং বলিউডে কাজ করেন। তার মা-বাবা বিখ্যাত অভিনেতা কামাল হাসান এবং সারিকা ঠাকুর।[১]

২০০৯ সালে অ্যাকশনধর্মী সিনেমা “লাক” (২০০৯) সিনেমায় প্রাপ্তবয়স্ক অভিনেত্রী হিসেবে অভিষেকের পূর্বে শিশু শিল্পী হিসেবে, তিনি সিনেমার গান গাইতেন এবং এবং অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করতেন। পরবর্তীতে তার ওয়াট ডিজনী চলচ্চিত্রে তার অভিনীত “আনাগঙ্গা ও ধীরুদু”, “ওহ্‌ মাই ফ্রেন্ড” এবং “৭ আম আরিভু” সিনেমায় অভিনয়ের জন্য তিনি সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করেন। ২০১২ সালে, তিনি “গব্বার সিং”, হিন্দি “দাবাং” সিনেমার তেলেগু পুনঃনির্মিত সিনেমায় অভিনয় করেন, যা তার একটি ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র। তিনি দক্ষিণ ভারতীয় ভাষার সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে তার সঙ্গীত চর্চাও পাশাপাশি অব্যাহতভাবে করে যান। তার সঙ্গীত পরিচালকের জীবন শুরু হয় তার বাবা চলচ্চিত্র নির্মাণ সংস্থা কর্তৃক নির্মিত “উন্নাইপল অরুভান” সিনেমার মাধ্যমে এবং তা নিজের ব্যান্ড এবং এ্যলবামের মাধ্যেম।

শৈশব[সম্পাদনা]

হায়দ্রাবাদের অন্নপূর্ণা স্টুডিওতে টেকএইড্‌স এনিমেশনে দেওয়া ইংরেজী, হিন্দি এবং তামিল ভাষায় দেওয়া আভ্যন্তরীন সাক্ষাতকারে শ্রুতি হাসান

শ্রুতি হাসান ২৮ জানুয়ারি ১৯৮৬ সালে ভারতের চেন্নাইতে কামাল হাসান এবং সারিকা ঠাকুরের পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার ছোট বোন আক্‌সারা বলরুম নৃত্যের ভারতের জাতীয় প্রতিনিধিত্ব করে।[৩] শ্রুতি চেন্নাইয়ের অ্যাবাকাস মন্টেসরী বিদ্যালয়ে এবং মুম্বাইয়ে চলে আসে সেন্ট অ্যান্ড্রু’স কলেজে মনোবিজ্ঞানে পড়াশোনার জন্য।[৪]

চেন্নাইয়ে ফিরার পূর্বে শ্রুতি তার নিজের চলচ্চিত্রে অভিনয় এবং গানের উপর গুরুত্বারোপ করেন এবং এজন্য তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যান ক্যালিফোর্নিয়ার মিউজিশিয়ান ইনিস্টিটিউটে গানের উপর পড়াশোনার জন্য।[৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

সঙ্গীত ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

শ্রুতি হাসান মাত্র ছয় বছর বয়সে তার বাবা’র অভিনীত সিনেমা “থেভার মাগান” সিনেমায় গান করেন। যখন তিনি বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত, তিনি হিন্দি ভাষার সিনেমায় তার গানের অভিষেক ঘটান, সিনেমার নাম ছিল “চাচী ৪২০”, এই সিনেমায় তিনি তার বাবার সাথে দ্বৈত গান করেন এবং এই সিনেমাটির পরিচালকও ছিল তার বাবা।[৬] শ্রুতি “হে রাম” সিনেমার জন্য হিন্দি এবং তামিল ভাষায় শিরোনাম সঙ্গীত “রামা রামা”, তার পিতার সাথে দ্বৈত ভাষায় গান করেন, যা সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করে। এই গানে শ্রুতির পরিবেশনা দেখে, “স্ক্রিন ইন্ডিয়া” বলেন, "has the makings of a good singer, and with some training she should go great guns".[৭]

২০০৭ সালের শুরুতে একটি সঙ্গীত কনসার্টে শ্রুতি হাসান

শ্রুতি হাসান বর্ষীয়ান সঙ্গীতশিল্পী কে.জে.যীশুদাসের সাথে “এন মানা ভানীল” (২০০২) সিনেমার জন্যেও দ্বৈত গান করেন। তিনি গৌতম মেননের “ভারানাম আরিয়াম” সিনেমার জন্য হরিশ জয়রাজের কম্পোজিশনে গান করেন। ২০০৮ সালের নভেম্বরে, তার প্রথম নামবিহীন এলবামের কাজ অর্ধেক সম্পন্ন করেন, যা ২০০৯ সালের মর্ধ্যবর্তী সময়ে বের হয়। এই এলবামের গানের গীতিকার, সুরকার এবং কন্ঠশিল্পী তিনি নিজে।[৮] “লাক” ছবির জন্যে তা কন্ঠে গাওয়া একটি গানও রেকর্ড করা হয়।

২০১০ সালের সেপ্টেম্বরে, শ্রুতি ডেভ কুষারের সাথে “হিস্‌স” সিনেমার জন্য গান করেন।[৯][১০] যতক্ষণ কুষার গানের কাজ সুরু করেছিলেন, ততক্ষণ শ্রুতি গানের কথা লিখেন, গানে কন্ঠ দেন এবং সিনেমার প্রচারমূলক ভিডিওতে উপস্থিত থাকেন।[১১]

অভিনয় ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

শ্রুতি তার অভিনয়ের অভিষেক করেন, তামিল-হিন্দি দ্বৈত ভাষার “হে রাম” সিনেমায় বল্লভভাই প্যাটেলের কন্যা হিসেবে বিশেষ শিল্পী হিসেবে অভিনয়ের মাধ্যমে। এই সিনেমাটি নির্মিত হয় মহাত্মা গান্ধীর উপর হত্যার চেষ্টার কাহিনীর উপর ভিত্তি করে, এই সিনেমার পরিচালক ছিলেন তার বাবা কামাল হাসান। বিখ্যাত সিনেমার চুক্তি বাতিলের পর, (বিশেষত ভেঙ্কট প্রভুর “সারোজা” সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয়) ২০০৭ সালের শেষের দিকে শ্রুতি তার পূর্ণ অভিষেক ঘটান নিশিকান্ত কামাত পরিচালিত মাধভানের বিপরীতে ২০০৮ সালের একটি সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে।[১২][১৩] এরপর তিনি “এন্ড্রেন্ড্রাম পুন্নাগাই” নামের একটী সিনেমায় অভিনয়ে জন্যে চুক্তিবদ্ধ হন,[১৪] only to be stalled prior to production.[১৫]

তারপর শ্রুতি ২০০৮ সালের জুলাই মাসে, ইমরান খানের বিপরীতে সোহাম শাহ্‌’র হিন্দি চলচ্চিত্র “লাক” (২০০৯) এ অভিনয়ে জন্যে চুক্তিবদ্ধ হন এবং এর কাজ প্রায় এক বছর ধরে করেন।[১৬] ইমরান খান, তার বাল্যবন্ধু, এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্যে পরিচালকের নিকট তার নাম প্রস্তাব করেন এবং শ্রুতি পুরো সংলাপ পড়ার পর চুক্তিবদ্ধ হন এবং অ্যাকশন সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয়ের জন্য সম্মত হন।[১৭] শ্রুতি এই সিনেমার শুটিং চলাকালীন সময়ে একটি মারামারি দৃশ্যে অংশ নেন, যেখানে তিনি বিকিনি পরিহিত একটি দৃশ্যেও কাজ করেন।[১৮] এই সিনেমাটি প্রেক্ষগৃহে আসে ২০০৯ সালের জুলাই মাসে, এই সিনেমাটি সমালোচকদের খুবই নেতিবাচক মতামত এবং ভারতীয় বক্স অফিসে নিম্নস্তরে অবস্থান করে। সমালোচকদের মতে, " she deserved a better launch vehicle"।[১৯] আইবিএনের (IBN) এর রাজীব মসনদ বলেন, "dialogues with deadpan expressions", যেখানে অন্য সমালোচকের মতে, "she is synthetic and fails to impress".[২০][২১] শ্রুতিকে এরপর “উন্নাইপল অরুভান” সিনেমার পচামূলক ভিডিওতে দেখা যায় এবং দ্বৈত ভাষায় তার বাবা অভিনীত সিনেমা “এনাদু” সিনেমার জন্য তিনি গানের সুর তৈরী করেন। পরবর্তীতে তিনি মল্লিকা সারাওয়াত অভিনীত ভৌতিক সিনেমা “হিস্‌স” সিনেমার প্রচারনামূলক ভিডিওতে অংশ নেন, এই সিনেমায় তিনি “দেব কুষারের” লেখা একটি গানে তিনি কন্ঠ দেন।[২২]

২০১০ সালে টেকএইড্‌স রেকর্ডিং এ শ্রুতি হাসানা

তেলেগু সিনেমায় তার অভিষেক ঘটে ২০১১ সালের জানুয়ারীতে, পরিচালক কে.রাগাভেন্দ রাওয়ের পুত্র প্রকাশ কভেলামুদির পরিচালনায় সিদ্ধার্থের বিপরীতে তিনি অভিনয় করেন। ওয়াট ডিজনীর সহ-প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্রে শ্রুতি একজন বেদুইন নারীর চরিত্রে অভিনয় করেন, যে কিনা তারা সারা জীবন একজন অন্ধ যোদ্ধার সেবার কাজে অতিবাহিত করেন, এই অন্ধ যোদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করেন সিদ্ধার্থ।[২৩] এই সিনেমাটি ইতিবাচক মতামত অর্জন করে, তার অভিনয় প্রসংশিত হয়, সমালোচকের মতে, "Shruti looks quite attractive and makes a wonderful screen presence", এর সাথে রেডিফমেইল.কম এর একজন সদস্য লেখেন, "she looks beautiful and has a mystical aura about her"।<[২৪][২৫]

যাহোক এই সিনেমাটি বক্স অফিসে বাণিজ্যিকভাবে সফল হতে পারে নি, এই সিনেমার প্রচারনামূলক অনুষ্ঠান না করার ফলে এই সিনেমাটি তেমন আয় করতে পারে নি। তার দ্বিতীয় হিন্দি সিনেমা হল্ম মাধুর ভান্দারকারের হাস্যরসাত্মক রোমান্টিক “দিল তো বাচ্চা হে জি” সিনেমা, তাকে এই সিনেমায় ইমরান হাশমি”, “অজয় দেবগন” এবং “শাযান পাদামসি”র সাথে বিশেষ অতিথি হিসেবে অভিনয় করতে দেখা যায়। তিনি এই সিনেমায় নিখি নারাং, প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া মডেলের সৎ-কন্যা হিসেবে অভিনয় করেন। এই সিনেমায় হাশমি মা এবং কন্যা উভয়ের প্রেমে পড়েন।[২৬] শ্রুতির অভিনয় সম্পর্কে সমালোচকরা নিম্নমানের মতামত দেয়। তাদের মতামত, "so fake that she offers only disappointment";[২৭] যাহোক এই সিনেমাটি বক্স অফিসে বাণিজ্যিকভাবে সফল হয়।[২৮] ২০১০ সালের মাঝামাঝি সময়ে শ্রুতি এ.আর. মুরুগাদোসের পরবর্তী “৭ আউম আরিভু” (7aum Arivu) সিনেমায় সূর্যের বিপরীতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন এবং এর নির্মাণের কাজ শুরু হয় পরবর্তী বছরের জুনের দিকে।[২৯] পরিচালক তাকে বিজ্ঞানীর অংশ হিসেবে, “বুদ্ধিমতী ও সুন্দরী” হিসেবে অভিনয় করতে পারবে বলে নিশ্চিত হওয়ার পর তার সাথে চুক্তিবদ্ধ হন।[৩০] শ্রুতি শুভা শ্রীনিভাশন নামের একটি চরিত্র অভিনয় করেন, সিনেমায় একজন তরুণ বিজ্ঞানী, যে কিনা পঞ্চম শতকের একটি বৌদ্ধ মন্দির “বোধিমারা” পুনরুদ্ধারের জন্য কাজ করে, এই সিনেমায় তার অভিনয় সমালোকদের প্রশংসা অর্জন করে। এই সিনেমাটি মোটামুটি মিশ্র মতামত গ্রহণ করে, কিন্তু ব্যবসাসফল ছবি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।[৩১][৩২] “দ্য হিন্দু” পত্রিকার মতামত হল, "rarely is a heroine given near-equal footing in Tamil films", describing her as "ravishing but that she ought to work harder on spontaneity, and fine-tune her Tamil accent", কিন্তু এর উপসংহারে বলে, "the point is the actor shows promise।"[৩৩]

তার পরবর্তী মুক্তিপ্রাপ্ত তেলেগু চলচ্চিত্র হল “ওহ্‌ মাই ফ্রেন্ড”, একটি হাস্যরসাত্মক রোমান্টিক সিনেমা, যাতে শ্রুতি আবার সিদ্ধার্থের বিপরীতে অভিনয় করেন। এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেন “হামসিকা মাতোয়ানী” এবং “নাভদ্বীপ”। এই সিনেমায় যৌবন পর্যন্ত চলা শৈশবের বাল্যবন্ধুদের অটুট বন্ধুত্বের কাহিনী প্রকাশ পায় এবং এই চরিত্র অভিনয়ে জন্য শ্রুতিকে “কুচিপদি” যেতে হয়েছিল নাচ শিখার জন্য।[৩৪] এই সিনেমাটি সমালোচকদের মিশ্র মতামত অর্জন করে।[৩৫] শ্রুতইকে পরবর্তীতে দেখা যায় “ঐশ্বর্য ধানুশ” পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র “3” সিনেমায়, ধানুশের সহ-অভিনীয় একটি নাটকীয় রোমান্টিক সিনেমা। এতে একটু সমস্যা দেখা দেওয়ার ফলে তাদের চুক্তি বাতিল হয়। যাহোক পরবর্তীকালে শ্রুতি এই সিনেমায় জননী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য পুনরায় চুক্তিবদ্ধ হয়, এবং দুইজন সমকালীন তামিল অভিনেতা কামাল হাসান এবং রজনীকান্ত এর কন্যা হওয়ায় এই সিনেমার “Why This Kolaveri Di?” গানটি সফলতা লাভ করে। এই সিনেমাটি ২০১২ সালে মুক্তির পর সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করে এবং শ্রুতির অভিনয় সম্পর্কে তাদের অভিমত হল, "Shruti Hassan has come a long way",[৩৩][৩৬] যদিও সিনেমাটি বক্স অফিসে গড় সফলতা লাভ করে। ২০১২ সালে তার অভিনীত দ্বিতীয় সিনেমা মুক্তি পায়, হরিশ শঙ্করের তেলেগু চলচ্চিত্র “গব্বার সিং”। এই সিনেমাটি হিন্দি চলচ্চিত্র “দাবাং” (২০১০) এর পুনঃনির্মিত তেলেগু সিনেমা। এই সিনেমাতেও পাওয়ান কল্যাণ অভিনয় করেন। ২০১১ সালের নভেম্বরে শ্রুতি এই সিনেমার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন, ইলেনা ডি’ক্রুজের পরিবর্তে, যিনি এই সিনেমার অভিনয় থেকে বাদ পরেন। এই সিনেমায় তিনি বাগ্যলক্ষ্মী, একজন গ্রামের বালিকার চরিত্রে অভিনয় করেন। এই সিনেমার আসল ভার্সনে চরিত্রটিতে অভিনয় করেন “সোনাক্ষি সিংহা”। এই সিনেমাটি বক্স অফিসে বিশালভাবে বাণিজ্যিক সফলতা লাভ করে এবং তাকে অনেক চলচ্চিত্রের প্রস্তাব আনয়নে সহায়তা করে।[৩৪] সমালোচকরা তার অনূকুলে তাদের মতামত প্রদান করে। সমালোচকদের মতে, " she justifies her character" এবং "though she didn't have much of a character, she has left her mark"।[৩৫] তার পরবর্তী মুক্তিপ্রাপ্ত তেলেগু সিনেমা হল রবি তেজা’র বিপরীতে “বালুপু”,[৩৭] তার অভিনয়ের সাতেহ সিনেমাটিও সমালোচক এবং দর্শকেদের নিকট জনপ্রিয় হয়।[৩৭][৩৮][৩৯] the movie, along with her performance was well received from critics and audience.

শ্রুতি “রাম চরন তেজা”র বিপরীতে ভবিষ্যতে মুক্তিপ্রাপ্ত তেলেগু সিনেমায় অভিনয় করবেন। তার সাম্প্রতিক মুক্তিপ্রাপ্ত হিন্দি সিনেমাগুলো হল “প্রভু দেবের” “রামাইয়্যা ভাস্তাভাইয়্যা” (২০১৩) এবং “নিখিল আদ্ভানী”র “ডি-ডে” (২০১৩), যার উভয়ই ১৯ জুলাই মুক্তি পায়।[৪০] তিনি মে ২০১৩ ম্যাক্সিম(ভারত) ছেলেদের ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ মডেল ছিলেন। সিদ্ধার্থের সাথে তার বিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকে তিনি তার স্ট্যাটাস এখনো একক রেখেছেন।[৪১] শ্রুতি হাসান আশা করে তিনি তার পরবর্তী সিনেমা বিশালের বিপরীতে করবেন, যার পরিচালক হবেন হরি।[৪২]

সঙ্গীত ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

অনেক জল্পনা কল্পনার পর, শ্রুতি হাসানকে তামিল সিনেমা “উন্নাইপল অরুভান” এর সুরকার হিসেবে চূড়ান্ত করা হয়। যা মুক্তি পায় ২০০৯ সালে।[৪৩] এই দ্বৈত ভাষার সিনেমাটি হিন্দি ভাষার সফল চলচ্চিত্র “এ ওয়েডনেসড!” সিনেমার পুনঃনির্মাণ”। এই দ্বৈত ভাষার সিনেমাটির গানের প্রকল্প আলাদা ছিল। এর পাশাপাশি, শ্রুতি অলটারনেটিভ রক ব্যান্ড “দ্য এক্সটার্নালস” এর কন্ঠশিল্পী।

ডিস্কোগ্রাফি[সম্পাদনা]

নাম বছর চলচ্চিত্র সুরকার টীকা
"পত্রি পদ্দবী পন্না" ১৯৯২ থেভার মাগান আইলাইয়্যারাজা
"জাগো গৌরী" ১৯৯৭ চাচী ৪২০ বিশাল ভরদ্বাজ
"রাম রাম" ২০০০ হে রাম আইলাইয়্যারাজা
"রাওট্টোরাপ পাট্টুচ চাথ্‌থাম " ২০০২ এন মানা ভানিল আইলাইয়্যারাজা
"আদিয়ে কল্লুথে " ২০০৮ ভারানাম আইয়িরাম হরিশ জয়রাজ
"আজমা (Luck Is The Key)" ২০০৯ লাক সেলিম সুলাইমান
"আল্লহ্‌ জানে" উন্নাইপল অরুভান শ্রুতি হাসান এডিসন সেরা নবাগত গান পরিচালক পুরস্কার
"উন্নাইপল অরুভান"
"ভান্নাম এল্লাই "
"আল্লহ্‌ জানে" এনাদু শ্রুতি হাসান
"এনাদু"
"নিঙ্গি হাদ্দু "
"সেম্মোযিয়্যানা থামিজ মযিইয়্যাম" ২০১০ এ আর রহমান
"নেনাপিদু নেনাপিদু " পৃথ্বী মানিকান্ত কাদরী
"বেয়ন্ড দ্য স্নেক " হিস্‌স দেব কুষার
"ইভান আইভান " ২০১১ উধয়ন মানিকান্ত কাদরী
"ইয়েল্লে লামা " 7aam Arivu হরিশ জয়রাজ
"শ্রী চৈতন্য জুনিয়র কলেজ " ওহ্‌ মাই ফ্রেন্ড আর.অনীল
"সুক্ষপোদি" মুপ্পযুধুম আন কারাপানিগাল জি.ভি. প্রকাশ কুমার
"কান্নাযাগা কালাযাগা " ২০১২ 3 অনিরুদ্ধ রবিচান্দের মনোনিত- ফিল্মফেয়ার সেরা নারী প্লেব্যাক শিল্পী পুরস্কার-তামিল
মনোনিত-সিমা (SIIMA) সেরা নারী প্লেব্যাক শিল্পী
"তান ইয়ে মেরা " 3 (হিন্দি)
"কান্নুলাধা কালুলাধা " 3 (তেলেগু)
"আলভিদা" ২০১৩ ডি-ডে শঙ্কর এহসান লয়
"শাট আপ ইউর মাউথ " ২০১৪ যেন্নামো যিধু [৪৪] ডি.ইম্মান
"Down Down" Race Gurram S. Thaman
"Junction Lo" Aagadu S. Thaman Nominated—Filmfare Award for Best Female Playback Singer - Telugu
"Un Vizhigalil" Maan Karate Anirudh Ravichander
"Joganiyan" ২০১৫ Tevar Sajid-Wajid
"Stereophonic Sannata" Shamitabh Ilaiyaraaja
"Yaendi Yaendi" Puli Devi Sri Prasad
''Don't You Mess With Me" Vedalam Anirudh Ravichander

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র চরিত্র ভাষা টীকা
২০০০ হে রাম শ্রুতি রাজেশ প্যাটেল তামিল
হিন্দি
বিশেষ উপস্থিতি
২০০৯ লাক আয়েশা
লাতাশা
হিন্দি
২০১১ আনাগাঙ্গা ও ধীরেদু প্রিয়া তেলেগু ফিল্মফেয়ার সেরা নবাগতা অভিনেত্রী পুরস্কার-দক্ষিণ[৪৫]৭আউম আরিভু’ র (7aum Arivu ) জন্যেও
২০১১ দিল তো বাচ্চা হে জি নিখি নারাং হিন্দি
২০১১ ৭আউম আরিভু (7aum Arivu০ সুভা শ্রিনভাসন তামিল ফিল্মফেয়ার সেরা নবাগতা অভিনেত্রী - দক্ষিণ [৪৬](আনাগঙ্গা ও ধীরেদু' সিনেমার জন্যেও')
মনোনিত—ফিল্মফেয়ার সেরা অভিনেত্রী পুরস্কার - তামিল
২০১১ ওহ্‌ মাই ফ্রেন্ড শ্রী চন্দনা তেলেগু
২০১২ 3 জননী তামিল এশিয়াভিশন চলচ্চিত্র পুরস্কার, তামিল চলচ্চিত্রে দক্ষতার জন্য [৪৭]
মনোনীত—ফিল্মফেয়ার সেরা অভিনেত্রী পুরস্কার - তামিল
২০১২ গব্বার সিং ভাগ্যলক্ষ্মী তেলেগু
২০১৩ বালুপু শ্রুতি তেলেগু
২০১৩ রামাইয়্যা ভাস্তাভাইয়্যা সোনা হিন্দি
২০১৩ ডি-ডে সুরাইয়্যা হিন্দি প্রদর্শিত—আইফা (IIFA) সেরা সহ-অভিনেত্রী পুরস্কার
২০১৩ রামাইয়্যা ভাস্তাভাইয়্যা আমুল্লু তেলেগু
২০১৪ যেভাদু মঞ্জু তেলেগু
২০১৪ রেস গুররাম তেলেগু Filmfare Award for Best Actress - Telugu
SIIMA Award for Best Actress
২০১৪ ওয়েলকাম ব্যাক পারদর্শী হিন্দি
২০১৪ গাব্বার দেভকী হিন্দি
২০১৫ তেভার নিজেকে হিন্দি Special appearance in song Madamiyan
২০১৫ গাব্বার ইস ব্যাক শ্রুতি হিন্দি
২০১৫ Srimanthudu Charuseela তেলেগু
২০১৫ Welcome Back রাঞ্জেনা হিন্দি
২০১৫ পুলি Pavazhamalli/Malli তামিল
২০১৫ Vedalam Swetha তামিল
২০১৫ ইয়ারা Film has yet to be released হিন্দি পোস্ট - প্রকাশনা
২০১৬ Rocky Handsome Film has yet to be released Rukshida হিন্দি চলমান[৪৮]
২০১৬ S3 Film has yet to be released তামিল চলমান
২০১৬ Untitled Chandoo Mondeti Project Film has yet to be released তেলেগু চলমান[৪৯]

পুরস্কার এবং মনোনীর[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেণী ফলাফল
২০১০ লাক স্টারদাস্ট পুরস্কার কামলা পাসান্দ নতুন মুখ মনোনীত
উন্নাইপল এডিসন পুরস্কার সেরা নবাগত সঙ্গীত পরিচালক বিজয়ী
২০১২ ৭আউম আরিভু (7aum Arivu) বিজয় পুরস্কার সেরা নবাগতা অভিনেত্রী মনোনীত
ফিল্মফেয়ার পুরস্কার দক্ষিণ সেরা অভিনেত্রী - তামিল মনোনীত
সেরা নবাগতা অভিনেত্রী - তামিল বিজয়ী
আনাগঙ্গা ও ধীরেদু বিজয়ী
সিনেমা পুরস্কার (CineMAA Awards) সেরা নবাগতা অভিনেত্রী বিজয়ী
২০১৩ 3 এশিয়াভিশন পুরস্কার তামিল চলচ্চিত্রে দক্ষতার জন্য বিজয়ী
এডিসন পুরস্কার সেরা অভিনেত্রী মনোনীত
বিজয় পুরস্কার সেরা অভিনেত্রী মনোনীত
বিজয় সেরা প্লেব্যাক শিল্পী পুরস্কার মনোনীত
ফিল্মফেয়ার পুরস্কার - দক্ষিণ সেরা অভিনেত্রী - তামিল মনোনীত
সেরা নারী প্লেব্যাক শিল্পী - তামিল মনোনীত
সিমা পুরস্কার (SIIMA Awards) সেরা অভিনেত্রী - তামিল মনোনীত
সেরা নারী প্লেব্যাক শিল্পী - তামিল মনোনীত
শ্রুতি হাসান দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্রের স্টাইলিশ অভিনেত্রী বিজয়ী
গব্বার সিং সেরা অভিনেত্রী - তেলেগু বিজয়ী
সিনেমা পুরস্কার সেরা অভিনেত্রী মনোনীত
২০১৪ ডি-ডে আইফা পুরস্কার (IIFA Awards) সেরা সহ-অভিনেত্রী স্থগিত
Balupu সিমা পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী - তেলুগু মনোনীত
২০১৫ Race Gurram ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড সাউথ শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী - তেলুগু বিজয়ী
Aagadu শ্রেষ্ঠ নারী প্লেব্যাক কন্ঠশিল্পী - তেলুগু মনোনীত
Race Gurram সিমা পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী - তেলুগু বিজয়ী

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Rajeesh, Sangeetha (২০০৩-১০-২৮)। "High Five with Shruti Haasan"। Chennai, India: The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২০ 
  2. "Shruti K. Haasan"Internet Movie Database। ২০০৭-১২-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২০ 
  3. Shankar, Settu (২০০৬-১০-০৪)। "Akshara Hassan eyes on Olympic 2012!!"। OneIndia। ২০১২-০৭-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২০ 
  4. "Artistic Lineage..."। Magna Magazine। ২০০৭-০৭-২৫। ২০০৭-১২-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২০ 
  5. Prakash, Chitra (২০০৭-১২-১৪)। "Kamal Haasan's daughter to make film debut opposite Madhavan"The Hindustan Times। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২০ 
  6. Sreenivasan, P. (২০০৭-১১-২৭)। "Daughter to follow Kamal Haasan in his footsteps"। ApunkaChoice। ২০০৮-০১-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২১ 
  7. "A score which shows you what good music is all about."। ScreenIndia। ২০০০-০৩-০২। ২০০৭-১২-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২১ 
  8. Moviebuzz (২০০৭-০৬-২৮)। "Maestro's blessings for Shruti"Sify.com। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২১ 
  9. "Hisss-toric soundtrack for Mallika!"The Times of India। সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১০। 
  10. "Musician David Kushner praises HISSS and Shruti"Glamsham। অক্টোবর ৯, ২০১০। 
  11. "Shruti collaborates with Velvet Revolver star"The Times of India। সেপ্টেম্বর ৮, ২০১০। 
  12. Prakash, Chitra (২০০৭-১১-২৪)। "Kamal Haasan's daughter to debut opposite Madhavan"। NewKerala। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২১ 
  13. Jha, Subhash K. (২০০৭-১১-২৮)। "Kamal Haasan's daughter loves to sing"। NewKerala। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-১২-২১ 
  14. "Shruthi Haasan – to be shot"। Behindwoods। ২০০৮-০১-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-১১ 
  15. "Maddy –Sruthi film shelved!"Sify.com। ২০০৮-০৫-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-১১ 
  16. "The Hindu News Update Service"। Hindu.com। ২০০৮-০৬-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  17. "All eyes on Shruti Haasan as Luck D-day nears"। Sify.com। ২০০৯-০৭-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  18. Parkar, Shaheen (২০০৯-০৭-০৬)। "Shruti Haasan says it\'s no big deal to don swimwear for a film"। Mid-day.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  19. "Review: Luck is a dud – Rediff.com Movies"। Movies.rediff.com। ২০০৯-০৭-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  20. Gaurav Malani, INDIATIMES MOVIES Jul 24, 2009, 12.39pm IST (২০০৯-০৭-২৪)। "Luck: Movie Review – Economic Times"। Articles.economictimes.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  21. "Masand's movie review: Luck – Movies News News – IBNLive"। Ibnlive.in.com। ২০০৯-০৭-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  22. TNN Sep 26, 2010, 12.57pm IST (২০১০-০৯-২৬)। "Hisss-toric soundtrack for Mallika! – Times Of India"। Articles.timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  23. "Shruti Hassan to Debut in Telugu film"। ২১ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  24. "Rich visuals, top-class technology makes 'Anaganaga...' a must watch (Telugu Movie Review)"। Sify.com। ২০১১-০১-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  25. "Anaganaga O Dheerudu: A visual extravaganza – Rediff.com Movies"। Rediff.com। ২০১১-০১-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  26. Kotwani, Hiren (২০১০)। "'I have no regrets'"Hindustan Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-০৩ 
  27. "Review: Dil Toh Baccha Hai Ji is mostly juvenile comedy – Entertainment – DNA"। Dnaindia.com। ২০১১-০১-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  28. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১১ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  29. "Shruti's Debut."। Behindwoods.com। ২০০৮-০৬-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৬-২৪ 
  30. "Bodhidharma segment in '7aum Arivu' is authentic, says Murugadoss"। Nowrunning.com। ২০১১-১০-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  31. "7 Aum Arivu spells magic at box office, Suriya excited"। NDTV.com। ২০১১-১১-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  32. "7aum Arivu"। Behindwoods। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১২ 
  33. Malathi Rangarajan (২০১১-১০-২৯)। "Arts / Cinema : Does Seven make complete Sense?"। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  34. Mar 22, 2011, 12.27pm IST। "Shruti learns Kuchipudi for next – Times Of India"। Articles.timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  35. Nov 12, 2011 By B.V.S. Prakash (২০১১-১১-১২)। "Oh My Friend review: Just another deja vu"। Deccan Chronicle। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  36. Vishnupriya Bhandaram (২০১২-০৩-৩১)। "Arts / Cinema : 3: Different strokes"। The Hindu। ২০১২-০৬-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  37. "Gopichand Malineni about Shruthi"। ifilmish। ২০১২-০৭-০৩। ২০১২-০৭-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  38. "Review: Gabbar Singh is Pawan Kalyan show all the way – Rediff.com Movies"। Rediff.com। ২০১২-০৫-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  39. "Movie Review:Gabbar Singh review"। Sify.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৫ 
  40. "Shruti Haasan bags Prabhu Dheva's next film." 
  41. "Shruthi Hassan secret love affair"। apHerald.com। ২০১৩-০৫-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৫-১৩ 
  42. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  43. Narayanan, Sharadha (২০০৯-০৪-১১)। "At Home in Chennai"। The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৪-১২ 
  44. "Shruthi sings for Imman"Filmysouth.com। আগস্ট ২, ২০১৩। সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৫, ২০১৩ 
  45. "The 59th Idea Filmfare Awards 2011(South)"। ৮ জুলাই ২০১২। 
  46. http://timesofindia.indiatimes.com/entertainment/regional/tamil/news-interviews/The-59th-Idea-Filmfare-Awards-2011South/articleshow/14742576.cms
  47. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১০ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  48. "John Abraham, Shruti Haasan's 'Rocky Handsome' to release on February 5, 2016"The Indian Express। ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  49. "Shruti Haasan in Premam’s Telugu remake"

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Commoncat

টেমপ্লেট:FilmfareTeluguBestActress