কার্তিক (অভিনেতা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কার্তিক
Navarasa nayagan karthik.jpg
জন্ম
মুরালি কার্তিক মুথুরমণ

(1960-09-13) ১৩ সেপ্টেম্বর ১৯৬০ (বয়স ৬১)
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাঅভিনেতা, গায়ক, রাজনীতিবিদ
কর্মজীবন১৯৮১ - বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীরাগিনী (১৯৮৮ সালে বিয়ে)
রথী (১৯৯২ সালে বিয়ে)
সন্তানগৌতম কার্তিক (জন্ম ১৯৮৯)
গায়েন কার্তিক (জন্ম ১৯৯১)
তিরণ কার্তিক (১৯৯৩ সালে জন্ম)
পিতা-মাতাআর. মুথুরমণ
সুলোচনা

কার্তিক (জন্মঃ ১৯৬০) হচ্ছেন ভারতের সাবেক একজন তামিল চলচ্চিত্র অভিনেতা। তিনি অভিনেতা আর. মুথুরমণের ছেলে। ১৯৮১ সালের চলচ্চিত্র আলাইগাল ওইভাতিল্লাই ছিলো তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র।[১] অভিনয়ে তাকে এখন আর তেমন সক্রিয় দেখা যায়না, তিনি আশির দশক থেকে নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত অভিনয় করেছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুইবার বিয়ে করেছিলেন।[২]

চলচ্চিত্র কর্মজীবন[সম্পাদনা]

কার্তিকের বাবা ছিলেন ষাটের দশকের একজন অখ্যাত অভিনেতা নাম আর. মুথুরমণ, তার অভিনয় দেখে ছোটোবেলা থেকেই কার্তিক চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করার ব্যাপারে আগ্রহী ছিলেন। ১৯৮০ সালে পরিচালক পি ভারতীরাজা (তখন তামিল চলচ্চিত্র জগতে নতুন এবং কমল হাসন এবং শ্রীদেবীকে নিয়ে ১৬ ভায়াথিনিলে এবং ছিগাপ্পু রোজাক্কাল এর মত দর্শকপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাণ করে ফেলেছেন) আর. মুথুরমণের ছেলে কার্তিককে উঠতি বয়সী প্রেম নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র আলাইগাল ওইভাতিল্লাই চলচ্চিত্রে মূল নায়ক চরিত্রে নিতে চাইলে কার্তিক সঙ্গে রাজী হয়ে যান, কার্তিক নায়িকা হিসেবে অভিনেত্রী আম্বিকার কনিষ্ঠ ভগ্নী রাধাকে পান, রাধা অভিনীত এই আলাইগাল ওইভাতিল্লাইই ছিলো জীবনের প্রথম চলচ্চিত্র, প্রথম চলচ্চিত্র কার্তিক এবং রাধার জীবনে সাফল্য এনে দিয়েছিলো, চলচ্চিত্রটি দর্শকপ্রিয়তা এবং ব্যবসাসফলতা পেয়েছিলো, ইলাইয়ারাজার সুর করা গানগুলোও ছিলো শ্রুতিমধুর। কার্তিক এরপর অনেক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব পেতে থাকেন, যদিও আশির দশকের মৌন রাগ চলচ্চিত্র ছিলো তার কর্মজীবনের অন্যতম সেরা চলচ্চিত্র যেটা মণি রত্নম পরিচালনা করেছিলেন এবং চলচ্চিত্রটিতে রেবতী এবং মোহন ছিলেন, কার্তিকের চরিত্র ছিলো সংক্ষিপ্ত তবে চলচ্চিত্রটিতে তার ভূমিকা দর্শক ভালোভাবে নিয়েছিলো কারণ কার্তিক তখন বলা যায় অনেকটাই পরিচিত মুখ।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "like father, like son"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৫ 
  2. "Tamil Celebrities who married more than once"The Times of India 
  3. "Exclusive biography of #KarthikMuthuraman and on his life."FilmiBeat 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]