সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড হাই স্কুল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড হাই স্কুল
অবস্থান

,
৫৩১০

তথ্য
বিদ্যালয়ের ধরনবেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়
নীতিবাক্যনিজেকে জান
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৭২
অবস্থাসক্রিয়
বিদ্যালয় বোর্ডমাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, দিনাজপুর
বিদ্যালয় জেলানীলফামারী
সেশনজানুয়ারি- ডিসেম্বর
ইআইআইএন১২৫২০৬ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রধান শিক্ষকসৈয়দ মোঃ নজমুল হক
শিক্ষকমণ্ডলী৩০+
শ্রেণীনার্সারী - দশম
লিঙ্গছেলে, মেয়ে
বয়সসীমা০৬-১৬
শিক্ষার্থী সংখ্যা১০১৭ জন
ভাষাবাংলা
সময়সূচির ধরনমাধ্যমিক বিদ্যালয়
সময়সূচিসকাল ৮ঃ০০ মিনিট - বিকাল ২ঃ১৫ মিনিট
বিদ্যালয়ের কার্যসময়৬ ঘণ্টা
শ্রেণীকক্ষ২০+ টি
ক্যাম্পাসসমূহ১টি
শিক্ষায়তন১.৮০ একর
ক্যাম্পাসের ধরনউপশহর
রঙসমূহনেভি ব্লু এবং সাদা         
ক্রীড়াফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, ব্যাডমিন্টন, হ্যান্ডবল
ডাকনামক্যান্ট বোর্ড
যোগাযোগ+880 1712-161368
ওয়েবসাইটhttp://www.saidpurcantonmentboardschool.edu.bd

সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড হাই স্কুল বাংলাদেশের নীলফামারীর সৈয়দপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণাধীন একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের অধীন এই প্রতিষ্ঠানে প্রাথমিক, নিম্ন মাধ্যমিক এবং মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষা কার্যক্রম চালু রয়েছে। বর্তমানে স্কুলটি সামরিক ভূমি ও সেনানিবাস অধিদপ্তর, ঢাকা সেনানিবাস অধিনে পরিচালিত হয়ে আসছে। [১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এটি ১৯৭২ সালের পুর্বে বাঙ্গালীপুর কলোনী প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে পরিচিত ছিলো । যার প্রতিষ্টাকাল ১৯৫০ । এরপর ১৯৭২ সালে সেনানিবাসে কর্মরত ব্যক্তিবর্গের সন্তানদের লেখাপড়ার মানউন্নায়ন এর সার্থে বিদ্যালয়টিকে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এর অধীনস্থ করা হয় । ১৯৭৯ সালে জুনিয়র হাই স্কুল এবং ১৯৮০ সালে হাই স্কুল রুপে আত্নপ্রকাশ করে। ১৯৯১ সালে এখানে শিশু শ্রেনিতে পাঠদান শুরু করা হয়। [২]

ক্যাম্পাসের বর্ণনা[সম্পাদনা]

এর অবস্থান সৈয়দপুর বিমানবন্দরের ঠিক পাশে এবং সৈয়দপুর শহর হতে এক কিলোমিটার দূরে। এটি সৈয়দপুর সেনানিবাস এর দক্ষিণ-পর্শ্চিম কোনে অবস্থিত।[২]

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

এ প্রতিষ্ঠানে রয়েছে উন্নত ও আধুনিক অবকাঠামোগত সুবিধাদি। প্রতিষ্ঠানের ইংরেজি বর্ণ T আকৃতির একটি ভবন রয়েছে। পদার্থ, রসায়ন, জীববিদ্যা, কম্পিউটার বিজ্ঞান প্রভৃতি বিষয়ভিত্তিক গবেষণাগার। বিদ্যালয়ের সামনেই রয়েছেএকটি মাঠ । এছড়া পাশে আরেকটি মাঠে শিশুদের খেলাধুলার বিভিন্ন সরঞ্জাম রয়েছে।[৩]

সুযোগ-সুবিধা[সম্পাদনা]

ছাত্র-ছাত্রী পরিবহনের জন্য রয়েছে ১টি বাস। এছাড়াও রয়েছে অভিভাবকদের জন্য বিশ্রামাগার, সুবিশাল খেলার মাঠ নার্সারির শিশুদের জন্য পার্ক প্রভৃতি। ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আছে একটি ক্যান্টিন।

সহশিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

এই প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়ার পাশাপাশি নিয়ম-শৃঙ্খলার চর্চা ও খেলাধুলাসহ অন্যান্য সহপাঠ কার্যক্রমের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করা হয়। অভিভাবকদের সঙ্গে মত বিনিময়ের জন্য আছে অভিভাবক দিবসের ব্যবস্থা। শিক্ষার্থীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা ও প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব সৃষ্টির লক্ষ্যে সকল শিক্ষার্থীকে চারটি হাউজে বিন্যস্ত করে নিয়মিতভাবে বিভিন্ন আন্তঃ হাউজ প্রতিযোগিতা; যেমন – বির্তক, আবৃত্তি, সঙ্গীত, খেলাধুলা, চিত্রাংকন, দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ প্রভৃতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও বি এন সি সি, স্কাউটস, গার্ল গাইডস, রেড ক্রিসেন্ট প্রভৃতি সংগঠনের শাখা রয়েছে।[৩]

লাইব্রেরি[সম্পাদনা]

এই প্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিতে প্রায় ১৪৮১০ বই রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে নার্সারী থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত সকল শ্রেণীর পাঠ্যবই, অভিধান, সাধারণ জ্ঞান, ম্যাগাজিন, উপন্যাস প্রভৃতি।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. স্কুল ডায়েরী, পৃষ্টা ৩
  2. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  3. বিদ্যালয় হতে প্রাকাশিত ম্যাগাজিন,২০১০

বহিসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:নীলফামারী জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান